kalerkantho

বৃহস্পতিবার । ১৪ নভেম্বর ২০১৯। ২৯ কার্তিক ১৪২৬। ১৬ রবিউল আউয়াল ১৪৪১     

ভারতের তুলা রপ্তানি বেড়েছে ৩০%

বাণিজ্য ডেস্ক   

১৫ জুন, ২০১৮ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



ভারতীয় মুদ্রা রুপির দর কমায় আমদানি ক্ষতিগ্রস্ত হলেও লাভবান হচ্ছেন দেশটির রপ্তানিকারকরা। বিশেষ করে দেশটির তুলা রপ্তানি বেড়ে চার বছরে সর্বোচ্চ হয়েছে। কটন অ্যাসোসিয়েশন অব ইন্ডিয়া (সিএআই) পূর্বাভাসে জানায়, চলতি ২০১৭-১৮ অর্থবছরে তুলা রপ্তানি হবে ৭.৫ মিলিয়ন ব্যাল, যা আগের বছরের তুলনায় ৩০ শতাংশ বেশি এবং চার বছরে সর্বোচ্চ।

সংস্থার মতে, বিশ্ববাজারে তুলার দাম বৃদ্ধি এবং রুপির দর কমে যাওয়ায় ভালো দাম পাওয়া যাচ্ছে। এতে তুলা রপ্তানিতে উৎসাহিত হচ্ছেন ভারতের ব্যবসায়ীরা। এ বাজারে যুক্তরাষ্ট্র, ব্রাজিল ও অস্ট্রেলিয়ার প্রতিদ্বন্দ্বিতায় এগিয়ে যাচ্ছে ভারত। সিএআই প্রেসিডেন্ট অতুল গানত্র বলেন, এ মৌসুমে আমাদের রপ্তানি হবে ৭.৫ মিলিয়ন ব্যারেল। আন্তর্জাতিক বাজারে তুলার দাম বাড়ায় তা রপ্তানি উৎসাহিত করছে। তিনি জানান, গত অক্টোবরে শুরু হওয়া এ বাজার মৌসুমে ভারত এ পর্যন্ত ৬.৩ মিলিয়ন ব্যাল তুলা রপ্তানি করেছে। প্রতি ব্যালে ১৭০ কেজি তুলা থাকে। রাষ্ট্রীয় টেক্সটাইল কমিশনারের কর্যালয় জানায়, এর আগের বছরে ভারত ৫.৮২ মিলিয়ন ব্যাল তুলা রপ্তানি করে।

অন্যতম শীর্ষ তুলা রপ্তানিকারক প্রতিষ্ঠান খিমজি ভিসরাম অ্যান্ড সন্সের অংশীদার নয়ন মিরানি বলেন, এ বছর ভারতীয় রুপির দর পড়েছে ৬ শতাংশ, এ কারণে বিদেশি ক্রেতাদের কাছে তুলা কিছুটা সস্তা হয়েছে। তিনি বলেন, তুলার ব্যাপক রপ্তানি চাহিদা থাকলেও মৌসুম শেষ হয়ে আসায় ভালো মানের তুলা সীমিত রপ্তানি হচ্ছে। রয়টার্স।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা