kalerkantho

বুধবার । ১৩ নভেম্বর ২০১৯। ২৮ কার্তিক ১৪২৬। ১৫ রবিউল আউয়াল ১৪৪১     

স্টার্টআপ
ভাণ্ডারে ৯০০ কোটি ছবি

আনস্প্লাশে আলোচিত মাইকেল

শরিফ রনি   

৮ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



আনস্প্লাশে আলোচিত মাইকেল

বিশ্বের আলোচিত উদ্যোগগুলোর বেশ কয়েকটির গোড়াপত্তন হয়েছে যুক্তরাষ্ট্রে। নতুন চিন্তা নিয়ে প্রাত্যহিক জীবনের কোনো একটি সমস্যা সমাধানের লক্ষ্যে শুরু হয় একটি স্টার্টআপ বা উদ্যোগ। পরবর্তী সময় এটিই একটি ব্যবসাপ্রতিষ্ঠানে পরিণত হয়। যার মাধ্যমে অনেক মানুষের কর্মসংস্থান সৃষ্টি হয়। ফলে ডিজিটাল মাধ্যমে সেই উদ্যোগগুলো বিশ্বজুড়ে জনপ্রিয় হয়ে উঠেছে। যার একটি হলো ফেসবুক। যেখানে বিশ্বের লাখ লাখ মানুষ প্রতিদিন নিজের ব্যক্তিগত ছবি, লেখা এমনকি ইকমার্স প্রতিষ্ঠানও পরিচালনা করেন।

একই ধরনের একটি প্রতিষ্ঠান হলো ‘আনস্প্লাশডটকম’। বর্তমানে যুক্তরাষ্ট্রসহ দুনিয়াজুড়ে আলোচিত স্টার্টআপ। যেখানে ব্যবহারকারীরা নিজের ফটোগ্রাফি শেয়ার করেন এবং অন্য কাজগুলো দেখতে পারেন ও বিনা মূল্যে ডাউনলোড করতে পারেন। বলা চলে এটি একটি ফটোগ্রাফি প্ল্যাটফর্ম। তবে এই ফটোসাইটের উল্লেখযোগ্য দিক হলো সেখানে হাই রেজল্যুশনের ফটোগ্রাফি শেয়ার করা হয়।

সেখানে বছরে ১০০ কোটির বেশি ছবি আপলোড হয়। ২০১৩ সালে শুরু হওয়া আনস্প্লাশ.কম যুক্তরাষ্ট্রের সেরা স্টার্টআপগুলোর মধ্যে অন্যতম একটি হয়ে ওঠে। বিশেষজ্ঞদের মতে এই স্টার্টআপটির সম্পদমূল্য কিছুদিনের মধ্যে কয়েক বিলিয়ন ডলারে পরিণত হতে পারে। সেখানে ছবিগুলো সংরক্ষিত থাকে। সাইটটি সহজে ব্যবহার করা যায়। তবে খুব একটা ব্যক্তিগত তথ্য শেয়ার করতেও হয় না।

উদ্যোগ শুরুর পর থেকে দেড় লাখ ফটোগ্রাফার সেখানে নিজের ছবি শেয়ার করেছেন যার পরিমাণ ৯০০ কোটির বেশি। ফোর্বস ম্যাগাজিনের মতে এটিই বিশ্বের শীর্ষ ফটোগ্রাফি সাইট। যুক্তরাষ্ট্রের মাইকেল চো এই সাইটের উদ্যোক্তা। তিনি কপিরাইট মুক্ত ছবিগুলোতে তাঁর সাইটে আপলোড করার অনুমতি দেন।

তবে এর বিপরীতে কিছু সমালোচনাও আছে। কারণ ফটোগ্রাফি বিনা মূল্যে আদান-প্রদান হতে পারে না বলে মত দিয়েছেন বিশ্বের বিখ্যাত ফটোগ্রাফাররা। কারণ প্রতিটি ছবির পেছনে প্রচুর শ্রম দিতে হয় ফটোগ্রাফারকে। তা ছাড়া ক্যামেরা এবং লেন্স বাবদ মোটা অঙ্কের অর্থও বিনিয়োগ করতে হয়।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা