kalerkantho

রবিবার। ১০ নভেম্বর ২০১৯। ২৫ কার্তিক ১৪২৬। ১২ রবিউল আউয়াল ১৪৪১     

তথ্য-প্রযুক্তি খাতে ২০ লাখ দক্ষ জনবল প্রয়োজন হবে

বাণিজ্য ডেস্ক   

৩ মার্চ, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



তথ্য-প্রযুক্তি খাতে ২০ লাখ দক্ষ জনবল প্রয়োজন হবে

রাজধানীর মহাখালীতে মানবসম্পদ ব্যবস্থাপকদের সংগঠন ইনস্টিটিউট অব পার্সোনেল ম্যানেজমেন্ট (আইপিএম) আয়োজিত এইচআর সামিটে বাংলাদেশ হাইটেক পার্ক কর্তৃপক্ষের এমডি হোসনে আরা বেগম, আইপিএমের সভাপতি আনোয়ারুল আজিম ও মহাসচিব শাকিল মেরাজসহ অন্যরা

প্রতিযোগিতামূলক বিশ্বে যেকোনো প্রতিষ্ঠানের এগিয়ে যাওয়া নির্ভর করে দক্ষ কর্মীর ওপর। মুনাফা বৃদ্ধি ও  প্রতিষ্ঠানকে দীর্ঘ মেয়াদে টিকে থাকতে যুগোপযোগী মানবসম্পদ ব্যবস্থাপনা প্রয়োজন। প্রতিটি প্রতিষ্ঠান প্রযুক্তিনির্ভর হচ্ছে, এ কারণে ২০৩০ সালে তথ্য-প্রযুক্তি খাতে ২০ লাখ দক্ষ জনবল প্রয়োজন হবে। এ জন্য দক্ষ মানবসম্পদ সৃষ্টি করতে প্রয়োজন গুণগত শিক্ষা ও প্রশিক্ষণ।

রাজধানীর মহাখালীতে মানবসম্পদ ব্যবস্থাপকদের সংগঠন ইনস্টিটিউট অব পার্সোনেল ম্যানেজমেন্ট (আইপিএম) আয়োজিত এইচআর সামিটে বক্তারা এসব কথা বলেন। শুক্রবার এর উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্যে বাংলাদেশ হাইটেক পার্ক কর্তৃপক্ষের ব্যবস্থাপনা পরিচালক হোসনে আরা বেগম বলেন, দক্ষ মানবশক্তি ছাড়া এগিয়ে যাওয়া সম্ভব নয়। প্রতিটি প্রতিষ্ঠান প্রযুক্তিনির্ভর হচ্ছে, এ কারণে ২০৩০ সালে তথ্য-প্রযুক্তি খাতে ২০ লাখ দক্ষ জনবল প্রয়োজন হবে।

তিনি বলেন, সরকার তরুণ প্রজন্মকে দক্ষ করে তুলতে প্রশিক্ষণের নানা ধরনের প্রকল্প হাতে নিয়েছে। সরকারি উদ্যোগের পাশাপাশি প্রয়োজন বেসরকারি উদ্যোগ। আইপিএম এ ক্ষেত্রে গুরুত্বপূর্ণ অবদান রাখছে।

আইপিএমের সভাপতি আনোয়ারুল আজিম বলেন, ১৯৮০ সালে যখন আইপিএম গঠিত হয়, তখন এ দেশে প্রশাসন বা কর্মী ব্যবস্থাপনায় নিয়োজিত পেশাজীবীদের কোন প্ল্যাটফর্ম ছিল না। আইপিএম প্রথম সরকারি ও বেসরকারি খাতে এইচআর পেশাজীবীদের নিয়ে কাজ শুরু করে। অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্যে আইপিএমের মহাসচিব শাকিল মেরাজ বলেন, দেশে মানবসম্পদ ব্যবস্থাপনায় আইপিএম গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখছে। দেশ এখন উন্নয়নের মহাসড়কে। আর উন্নয়নকে টেকসই করতে হলে প্রয়োজন দক্ষ মানবসম্পদও। প্রতিষ্ঠানের কর্মীদের দক্ষতা, প্রেষণা, ব্যবস্থাপনার জন্য মানবসম্পদ বিভাগ জরুরি; যার মাধ্যমে কর্মীদের সঠিকভাবে পরিচালন সম্ভব।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে আরো বক্তব্য দেন এফবিএইচআরওর সভাপতি মোশাররফ হোসেন, আইপিএমের প্রতিষ্ঠাতা পরিচালক ও সাবেক সভাপতি এ বি এম ওসমান গণি, ইউনাইটেড ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটির ভাইস চ্যান্সেলর প্রফেসর চৌধুরী মফিজুর রহমান প্রমুখ।

দিনব্যাপী এই সামিটে একাধিক সেশন অনুষ্ঠিত হয়। এসব সেশনে দেশ-বিদেশের প্রখ্যাত এইচআর এক্সপার্টরা তাঁদের বক্তব্য তুলে ধরেন।

 

 

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা