kalerkantho

শনিবার । ৫ আষাঢ় ১৪২৮। ১৯ জুন ২০২১। ৭ জিলকদ ১৪৪২

ঈদে ভিন্ন রকম সাজ

সাজে ত্বকের লুক বদল

ত্বকের ভোল বদল করে নেওয়া যায় মেকআপ টুলসের ব্যবহারে। এ জন্য ত্বকের টোন বুঝে ভিন্ন ভিন্ন কালার পাওয়া যায়। ফলে যেমন ইচ্ছা তেমন ত্বকের টোন বদলে নেওয়া যায়। জানাচ্ছেন বিন্দিয়া বিউটি স্যালনের রূপ বিশেষজ্ঞ শারমিন কচি। লিখেছেন মোনালিসা মেহরিন

১০ মে, ২০২১ ০০:০০ | পড়া যাবে ৪ মিনিটে



সাজে ত্বকের লুক বদল

সব সময় একই লুক কারই বা ভালো লাগে। এ জন্যই একেক সময় একেক রকম সাজে সাজতে ভালোবাসেন তরুণীরা। নিজের লুক বদলে পোশাকের সঙ্গে মানানসই হেয়ার কাটিং তো চাই-ই, সেই সঙ্গে ত্বকের টোনটাও যদি বদলে নেওয়া যায় তবে তো সোনায় সোহাগা। যে কেউ চাইলে চেহারায় একাধিক লুক পরিবর্তন আনতে পারেন।

এ জন্য প্রসাধনী ব্র্যান্ডগুলোর চেষ্টার কমতি নেই। ফ্যাশনে নিত্যনতুন ধারণা যোগ করতে হরহামেশাই বিভিন্ন ক্যাম্পেইন নিয়ে হাজির হয় তারা। ওয়ান ওম্যান—টু লুক, ওয়ান ওম্যান—থ্রি লুক থেকে শুরু করে সম্প্রতি ঘোষণা করেছে ওয়ান ওম্যান—সিক্স লুক ক্যাম্পেইন। মানে একজন চাইলেই ছয় রকম লুকে সাজতে পারবেন।

 

লুক ১

সকালের সাজে প্রকৃতির মতো চেহারাতেও স্নিগ্ধ ভাবটা বজায় রাখলেই বেশি ভালো লাগে। এ জন্য সকালের সাজে বেশি মেকআপ না করাই ভালো। সারা রাত ঘুমানোর পর সকালে ত্বকে এমনিতেই সতেজ ভাব থাকে। এ জন্যই সকালের সাজে মিনিমাল মেকআপের পরামর্শ দেন রূপ বিশেষজ্ঞরা। সকালের লুকে স্পটলাইট ইলুমিনেশন লোশন, সেলুলার ড্রাই অয়েল ব্যবহার করুন। সঙ্গে ঠোঁটে মানানসই লিপস্টিক আর মেইডেন পিংক নেইল বার্নিশ ব্যবহারেই পেয়ে যাবেন স্নিগ্ধ সাজ।

লুক ২

অফিশিয়াল পার্টিতে প্রতিদিনের চেয়ে একটু অন্য রকম সাজ না হলে কী চলে! এ জন্য প্রথমেই ভালো করে কনটুরিং করে নিন। যাতে মসৃণ মুখাবয়ব পাওয়া যায়। সঙ্গে ভ্রু প্লাক করে নিন। চোখে পরুন স্ক্যান্ডাল কাজল। এরপর ফ্ললেস ফিনিশিং প্রাইমার, আই ব্রো পেনসিল, চেকুল্যুশন ব্লাশ এবং সর্বশেষ ম্যাট লিপস্টিক ব্যবহার করুন। সাজে কোনো অসংগতি ধরা পড়লে জুম এন হুশ মাশকারা ব্যবহার করুন।

 

লুক ৩

এই ধাপের সাজ প্রসাধনীতে মুখ্য ভূমিকা পালন করে সেলুলার ড্রাই অয়েল মিশ্রণ। সঙ্গে ব্ল্যাক আউট শেডের আই গ্লিড মিনি আই পেনসিলে চোখের সাজ, ত্বকে গোলাপ ফুলের নির্যাসযুক্ত সিমারবার কনট্যুর ব্যবহার করুন। ত্বকের ভেতর থেকে উঠে আসবে ঝকঝকে উজ্জ্বলতা। ঠোঁটে লাল ম্যাট টাচ মিনি লিপস্টিক লাগান। এরপর ডিফাইনার লিপ লাইনার মিনি। সাজের শেষ ধাপে ব্যবহার রাখুন জুম এন হুশ মাশকারা। ঝকঝকে চেহারা ফুটে উঠবে।

 

লুক ৪

মন মরা মুখে একটু হাসির ছোঁয়াতেই রূপের বোল বদলে যায়। এমন হাসি মুখে নজরকাড়া ভাব আনতে ম্যাট টাচ মিনি লিপস্টিকের বিকল্প খুব কমই। মিষ্টি হাসির সঙ্গে চোখের ঝলক ফুটিয়ে তুলতে চোখে কাজল, মুখে গোলাপ সমৃদ্ধ সিমার বার কনট্যুর ব্যবহার করুন। চেকুল্যুশন ব্লাস, শির টাচ ম্যাটিফাইং লুজ পাউডার ফেস লাগান। শেষ ধাপে জুম এন হুশ মাশকারায়ই পাবেন এমন লুক।

 

লুক ৫

স্ট্যারি ফ্লিপ লিপ কালার, আই শ্যাডো প্লেট এবং ফ্ললেস টাচ কনট্যুর ও হাইলাইটের ব্যবহারে পাওয়া যাবে নতুন লুক। এই সাজে কমণীয়তা ফুটে ওঠার পাশাপাশি ত্বকে গ্লসি ভাব বেশি দেখায়। ফলে দূর থেকেই সহজে নজর করা যায়। সঙ্গে আই গ্লিড মিনি আই পেনসিলের সঙ্গে ব্ল্যাক আউট শেড ও স্টানিং ব্রো মিনি পেনসিল দিয়ে ব্রো প্ল্যাক করে নিন।

 

লুক ৬

রাতের পার্টিতে আইশ্যাডো প্লেটের ব্যবহার জাঁকজমকপূর্ণ ভাব ফুটিয়ে তুলতে সাহায্য করে। স্টানিং ব্রো মিনি পেনসিল, স্পটলাইট ইলুমিনেশন গোল্ড লোশন, বুস্টার মাশকারা, চেকুল্যুশন পিংক পিনচ ব্লাস ব্যবহারে পাওয়া যাবে এমন সাজ।

যে সাজেই সাজুন, খেয়াল রাখুন সেটা যেন আপনার সঙ্গে মানিয়ে যায়। একেকজনের ত্বকের টোন, শারীরিক গঠন, মুখাবয়বের সঙ্গে একেক সাজ ভালো মানায়। সাজের সঙ্গে যেন সহজাত সৌন্দর্যটিও প্রাধান্য পায় সে বিষয়টিও নজর রাখুন। তাহলেই সাজের ষোলোকলা ফুটে উঠবে ত্বকে।



সাতদিনের সেরা