kalerkantho

এমন যদি হতো

বিয়ে যদি সঞ্চয়পত্রের মতো পাঁচ বা ১০ বছরমেয়াদি একটা বন্ড হতো, তবে কেমন হতো? লিখেছেন মাসুদুল হক

১২ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে




এমন যদি হতো

১. বিবাহিত প্রেমিক-প্রেমিকারা একজন আরেকজনকে আশ্বাস দিত, মাত্র তো আর তিনটা মাস। একটু ধৈর্য ধরো।

২. হানিমুন ট্রিপের ব্যবসা হতো জমজমাট। আগে বছরে এক হাজার হলে তা এক লাখে উন্নীত হতো।

৩. ফ্রিজ, টিভি, ওয়াশিং মেশিনের বিক্রি কমে যেত। সবাই ভাবত, কয় দিনের না কয় দিনের সংসার। এসব আমি কিনমু কেন?

৪. ১০ বছরমেয়াদি কাবিননামা করা লোকেরা তিন বছরমেয়াদি কাবিননামা করা বন্ধুদের দিকে চেয়ে দীর্ঘশ্বাস ছাড়ত। আত্মীয়-স্বজন বলত, তোরে আগেই বলছিলাম ১০ বছরের করিস না...

৫. বন্ডের অটোরিনিউ বন্ধ হয়ে যেত।

৬. নারীরা (যদি উপার্জনক্ষম না হয়) দুজন পাত্রের মধ্যে ১০ বছরমেয়াদি বন্ডের পাত্রকে বেশি প্রেফার করত।

৭. সন্তান উত্পাদন কমে যেত।

৮. যুগলদের একসঙ্গে দেখলে পুলিশ কাবিনামার পাশাপাশি কাবিননামার মেয়াদও দেখতে চাইত।

৯. পুরুষ পিতা হতে চাইলে নারী জানতে চাইত, কথা দাও, তুমি পাঁচ বছর পর কাবিননামা রিনিউ করবে।

১০. অধিক বয়সী পাত্রদের বিয়ের বাজারে ডিমান্ড বেড়ে যেত।

১১. স্টেপ ফাদার বা মাদারদের পরিচয় নতুন করে লিখতে হতো। ফার্স্ট কাজিন-সেকেন্ড কাজিনের মতো ফার্স্ট স্টেপ ফাদার, নাইন্থ স্টেপ মাদার নামক নতুন সম্পর্ক তৈরি হতো।

১২ মেয়াদ শেষে বিদায়ের দিন একজন আরেকজনকে জড়িয়ে ধরে বলত, অসম্ভব সুন্দর পাঁচটি বছর কাটালাম। জীবনে আরো অনেক বিয়ে হবে; কিন্তু তোমাকে আমি কখনোই ভুলব না।

 

সংবিধিবদ্ধ সতর্কীকরণ

ঘোড়ার ডিমে প্রকাশিত লেখালেখি, আঁকাআঁকি নিছক কল্পনামাত্র। কোনো জীবিত বা মৃত অথবা ভবিষ্যতে জন্মগ্রহণ করবে—এমন কোনো ব্যক্তি বা প্রতিষ্ঠানের সঙ্গে এর কোনো মিল নেই। এর পরও যদি কেউ মিল খুঁজে পান, ঘোড়ার ডিম তো নয়ই, দুনিয়ার কেউ দায়ী হবে না।

মন্তব্য