kalerkantho

রবিবার । ২১ জুলাই ২০১৯। ৬ শ্রাবণ ১৪২৬। ১৭ জিলকদ ১৪৪০

লং রুটের বাস ড্রাইভার

ফখরুল ইসলাম

১১ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ০০:০০ | পড়া যাবে ১ মিনিটে




লং রুটের বাস ড্রাইভার

এক ব্রাহ্মণ মৃত্যুর পর স্বর্গে পৌঁছানোর লাইনে দাঁড়িয়ে আছেন! ওনার সামনে জিন্স, টি-শার্ট আর চোখে রোদচশমা পরা একটি কম বয়সী ছেলে দাঁড়ানো। ব্রাহ্মণ মহাশয় কৌতূহল চেপে ধর্মরাজের অপেক্ষা করতে লাগলেন।

ধর্মরাজ : নিজের পরিচয় দাও।

ছেলে : আমি নগেন। পেশা বাস ড্রাইভার। ঢাকা-চট্টগ্রাম রুটে চার বছর বাস চালাইছি।

ধর্মরাজ : এই নাও পিওর উলের শাল, আর ভেতরে গিয়ে সোনার খাটটি নিয়ে স্বর্গে প্রবেশ করো।

ধর্মরাজ ব্রাহ্মণকে : কে তুমি?

ব্রাহ্মণ : আমি ব্রাহ্মণ! আর গত ৪৫ বছর ধরে মানুষকে প্রভুর মহত্ত্বের কথা শুনিয়েছি।

ধর্মরাজ : এই নাও সুতির চাদর, আর ভেতরে গিয়ে নারিকেলের ছোবড়ার খাটটা নিয়ে স্বর্গে যাও।

ব্রাহ্মণ : প্রভু, এটা কি ঠিক করলেন? ও রাফ ড্রাইভিং করে সোনার খাট পেল, আর আমি সারা জীবন প্রভুর গুণ গেয়ে সুতির চাদর!

ধর্মরাজ : রেজাল্ট বত্স...রেজাল্ট! যখন তুমি ভক্তদের প্রভুর বাণী শোনাতে, তখন সব ভক্ত ঘুমাত। আর যখন ওই ড্রাইভারটা গাড়ি চালাত, তখন সব যাত্রী সত্যি সত্যি মনেপ্রাণে আমাকে স্মরণ করত। বত্স! সব জায়গায়ই performanceদেখা হয়, position নয়!

 

মন্তব্য