kalerkantho

শুক্রবার । ৯ ডিসেম্বর ২০২২ । ২৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৯ । ১৪ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪৪

ঘর সাজাবে আসবাব

কোন ঘরে কেমন আসবাব হবে আর তার অবস্থানই বা কী হবে তা নির্বাচনে সচেতন হতে হবে। পরামর্শ দিয়েছেন রেডিয়েন্ট ইনস্টিটিউট অব ডিজাইনের প্রধান ইন্টেরিয়র ডিজাইনার গুলসান নাসরীন চৌধুরী।

৭ অক্টোবর, ২০২২ ০০:০০ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



ঘর সাজাবে আসবাব

মডেল : আয়েশা, ছবি : আবু সুফিয়ান নিলাভ, স্থান কৃতজ্ঞতা : ইশো

ঘরের আসবাব বিন্যাসের ক্ষেত্রে প্রথমেই অতিরিক্ত আসবাব বাদ দিয়ে দরকারি জিনিস বাছাই করতে হবে। এতে জায়গা যেমন বাঁচবে, ঘরও দেখাবে খোলামেলা। আসবাবের বিন্যাসের ক্ষেত্রে ঘরের আকার ও আয়তন এ ক্ষেত্রে একটি বড় বিষয়। বড় ঘরের ফার্নিচার একটু বড় ও জমকালো হতে পারে, তবে ছোট ঘরের জন্য ছিমছাম ও মাল্টিপারপাস ফার্নিচার বেছে নেওয়া উচিত।

বিজ্ঞাপন

 

প্যাসেজ বা প্রবেশপথ

মূল প্রবেশপথের সঙ্গে জুতার কেবিনেট রাখুন, যেন সহজে জুতা নেওয়া ও রাখা যায়। একটু বনেদিয়ানা যোগ করতে জুতার কেবিনেটের ওপরের খালি দেয়ালে নকশাদার ফ্রেমে বাঁধানো আয়না বসিয়ে দিন। পাশে একটা চেয়ার বা টুল দিয়ে বসার ব্যবস্থা রাখতে পারেন, যেন জুতা খুলতে ও পরতে সুবিধা হয়।

 

বসার ঘর

বসার ঘরের একটা খালি দেয়াল টিভির জন্য বরাদ্দ রাখুন। টিভির দেয়ালের নিচে নিচু করে টিভি কেবিনেট বানিয়ে নিন। চাইলে এর সঙ্গে দুই পাশে বইয়ের তাক বানিয়ে নিতে পারেন। বাকি দুটি দেয়ালের সামনে সোফা, ডিভান ও অন্যান্য বসার ব্যবস্থা রাখুন। সোফার সামনে দুই থেকে আড়াই ফুট জায়গা খালি রাখুন। এভাবে সাজালে ঘর বড় ও প্রশস্ত দেখাবে।

খাবার ঘর

বড় ঘরে আয়তাকার টেবিল অনায়াসে মানিয়ে যায়। ছয় থেকে আটজনের খাবার টেবিল চাইলে আয়তাকার টেবিল রাখুন। ছোট ঘরের জন্য চারকোনা বা গোলাকৃতির টেবিল নির্বাচন করুন। এ ক্ষেত্রে খেয়াল রাখতে হবে, টেবিলের চারপাশে যাতে অন্তত তিন থেকে চার ফুট খালি জায়গা থাকে। খাবার ঘরের খালি দেয়ালে রাখতে পারেন বুফে কেবিনেট ও চায়না কেবিনেট। দেয়াল ও আসবাবের মধ্যে কিছুটা ফাঁকা জায়গা রাখুন।

 

শোবার ঘর

ঘরে খাটকে কেন্দ্র করে বাকি সব ফার্নিচার  রাখতে হবে। খাট এমন জায়গায় রাখতে হবে, যেন ঘরের জানালা মাথা বা পায়ের দিকে না হয়। আলমারি, কেবিনেট ড্রেসিংটেবিল ইত্যাদি দেয়ালের পাশে রাখতে পারেন। ড্রেসিংটেবিল যেন জানালা বা লাইট, অর্থাৎ আলোর বিপরীত দিকে না হয়। ডিভান বা ছোট সোফার মতো আসবাব জানালার পাশে রাখা যেতে পারে।  

 

রান্নাঘর

রান্নাঘরে কাউন্টারের নিচে ও ওপরে কেবিনেট করে নেওয়া ভালো। এতে জায়গা বাড়বে, দেখতেও ভালো দেখাবে।

দেশের শীর্ষস্থানীয় আসবাবপত্র প্রস্তুতকারক প্রতিষ্ঠান পারটেক্স ফার্নিচার ইন্ডাস্ট্রিজ লিমিটেডের সিওও শাহ আলম মুনশি বলেন, ‘একেক ক্রেতার একেক রকম রুচি। কেউ যেমন কাঠের ভারী নকশা করা আসবাব খোঁজেন, তেমনি কেউ চান ছিমছাম আধুনিক নকশা। দুই কম্বিনেশনই রেখেছি আমরা। নিজের ঘর ও রুচি অনুযায়ী ক্রেতা তাঁর পছন্দের আসবাব বেছে নিতে পারবেন। আমাদের ম্যাটরিয়াল, রং, নকশা—সব কিছুতেই এসেছে আধুনিকতা।

পারটেক্স ফার্নিচার বাংলাদেশের শুধু ক্লাসিক নয় সমসাময়িক ডিজাইনের কাঠ, মেটাল ও বোর্ডের আসবাবপত্র বাজারজাত করেছে। এর সহায়তায় আছে পারটেক্স স্টার গ্রুপের অন্যান্য ট্রেড ইউনিট এর শক্তি যেমন পার্টিকেল বোর্ড, মেলামাইন ফেসড চিপ বোর্ড, পিভিসি শীট, আঠালো রেজিন। পারটেক্স ফার্নিচার

আসবাবপত্র শিল্পের জন্য একটি নতুন যুগ তৈরি করেছে, যেটি আভিজাত্য এবং আধুনিকতার প্রতিচ্ছবি। ’

 

 

 

 



সাতদিনের সেরা