kalerkantho

মঙ্গলবার । ২৯ নভেম্বর ২০২২ । ১৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৯ ।  ৪ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪৪

নেইমারকে রোমারিওর চিঠি

নিজের কথা শুনবে মানুষের কথায় পাত্তা দেবে না

ক্রীড়া প্রতিবেদক   

২৪ নভেম্বর, ২০২২ ০০:০০ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



নিজের কথা শুনবে মানুষের কথায় পাত্তা দেবে না

রোমারিও

১৯৭০ সালের পর বিশ্বকাপ শিরোপার অপেক্ষা বাড়ছিল ব্রাজিলের। পেলের মতো একজন জাদুকরের অপেক্ষায় ছিল সেলেসাওরা। এত বড় মানের কিংবদন্তি হয়তো ব্রাজিল পায়নি, তবে ১৯৯৪ বিশ্বকাপে ছিলেন রোমারিও, বেবেতো, দুঙ্গার মতো তারকা। তাঁদের দ্যুতিতে ২৪ বছর পর চতুর্থ বিশ্বকাপ জিতেছিল ব্রাজিল।

বিজ্ঞাপন

আর পাঁচ গোল করে গোল্ডেন বলের পুরস্কার জেতেন রোমারিও।

ব্রাজিলের এই তারকার বিশ্বাস, ’৯৪-এ তিনি যা করেছেন এবার নেইমার করে দেখাবেন সেটা। তৃতীয় বিশ্বকাপ খেলতে যাওয়া নেইমারকে উৎসাহ দিতে টুইটারে একটি খোলা চিঠি লিখেছেন রোমারিও। এর শুরুটা করেছেন নিজের সাফল্যের গল্প শুনিয়ে, ‘প্রিয় নেইমার, তোমাকে কি কিছু বলতে পারি? যদি সেই সময়ে ফিরে যেতে পারতাম তাহলে সেসব কিছুই করতাম, যা ব্রাজিলকে শিরোপা জিতিয়েছিল ১৯৯৪ সালে। ’

’৯৪ বিশ্বকাপের আগে বার্সেলোনায় দুর্দান্ত ছন্দে ছিলেন রোমারিও। নেইমারও এবারের বিশ্বকাপের আগে পিএসজির হয়ে ২০ ম্যাচে করেছেন ১৫ গোল। তাই নেইমারকে সাহস জোগালেন রোমারিও, ‘আমি নিজের গল্প তৈরি করেছি। আমি নিশ্চিত, তুমিও সেটা পারবে। আমাদের আত্মনিবেদন, প্রতিশ্রুতি আর জয়ের তীব্র বাসনা যখন ব্রাজিলিয়ান সমর্থকরা বুঝতে পারে, তখন তারা দলের পাশে থাকে। এভাবে নিজের খেলা উপভোগ করেছি। আমি জানি, তুমিও সেটা করবে। ’

‘ব্যাডবয়’ হিসেবে দুর্নাম ছিল রোমারিওর। শৃঙ্খলা না মানায় সমালোচিতও হয়েছিলেন ক্যারিয়ারে। নেইমারও সমালোচনার শিকার হয়েছেন যথেষ্ট। তবে লোকের কথায় কান না দেওয়ার পরামর্শ দিলেন রোমারিও, ‘সেই ১৯৯৩ সালে কতজন কত কথা বলেছে আমাকে নিয়ে। সবই নেতিবাচক। আমি নাকি কোনো কিছুর পরোয়া করি না। তারা প্রশ্ন করত মাঠে আমার আচরণ নিয়ে। প্রশ্ন করত সংবাদমাধ্যমে আমার বক্তব্য নিয়ে। আসলে কী চাইত তারা? এসব সমালোচনা পাত্তা দিলে আমি রোমারিও হতাম না, যে কিনা বক্সের ভেতরে জাদু দেখিয়ে সর্বোচ্চ গোলদাতা হয়েছে। হ্যাঁ নেইমার, এটা অহংকার নয় আত্মবিশ্বাস। তোমার মতোই সংগ্রাম করে আমি ফুটবলার হয়েছি আর অর্জন করেছি সম্ভাব্য সব কিছু। তাই প্রিয় নেইমার, তোমাকে যা বলতে চাচ্ছি, সেটা হলো শুধু নিজের কথা শুনবে। মানুষের কথায় পাত্তা দেবে না একেবারে। ’

নেইমারের মাঝে সত্যিকারের ব্রাজিলিয়ান ফুটবলারের প্রতিকৃতি দেখার কথাও জানিয়েছেন রোমারিও, ‘তোমাকে মাঠে দেখলেই অন্য রকম অনুভূতি হয়। ব্রাজিলিয়ানরা যা পছন্দ করে তুমি সেই ফুটবলটা খেলো। আমি মনে করি, তুমিই ষষ্ঠ বিশ্বকাপ জেতাবে আমাদের। ’ টুইটার

 



সাতদিনের সেরা