kalerkantho

মঙ্গলবার । ২৯ নভেম্বর ২০২২ । ১৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৯ ।  ৪ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪৪

পাতাল রেল নির্মাণকাজের চুক্তি সই

ডিসেম্বরের শেষ সপ্তাহে চলতে পারে মেট্রো রেল

নিজস্ব প্রতিবেদক   

২৪ নভেম্বর, ২০২২ ০০:০০ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



ডিসেম্বরের শেষ সপ্তাহে চলতে পারে মেট্রো রেল

আগামী ডিসেম্বরের শেষ সপ্তাহের যেকোনো দিন দেশের প্রথম মেট্রো রেলের উত্তরা থেকে আগারগাঁও অংশের উদ্বোধন হতে পারে বলে জানিয়েছেন ঢাকা ম্যাস ট্রানজিট কম্পানি লিমিটেডের (ডিএমটিসিএল) ব্যবস্থাপনা পরিচালক এম এ এন সিদ্দিক। তিনি বলেন, ‘সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রণালয়ে উদ্বোধনের যে প্রস্তাব আমরা পাঠিয়েছি সেখানে ডিসেম্বর মাসের শেষ সপ্তাহের কথা বলা হয়েছে। আমরা আশা করছি সে প্রস্তাব অনুযায়ী ডিসেম্বর মাসের শেষ সপ্তাহের যেকোনো দিন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা মত প্রদান করতে পারেন। ’

গতকাল বুধবার রাজধানীর একটি হোটেলে মেট্রো রেল লাইন-১ নামে পরিচিত দেশের প্রথম পাতাল রেলের নির্মাণকাজের জন্য ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠানের সঙ্গে চুক্তি শেষে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে তিনি এ কথা জানান।

বিজ্ঞাপন

গতকাল রাজধানীর একটি হোটেলে ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান জাপানের টোকিয়ু কনস্ট্রাকশন কম্পানি লিমিটেড এবং বাংলাদেশের ম্যাক্স ইনফ্রাস্ট্রাকচার লিমিটেডের সঙ্গে  ডএমটিসিএলের চুক্তি স্বাক্ষর হয়।

এম এ এন সিদ্দিক বলেন, ‘আগামী ১৬ ডিসেম্বর মেট্রো রেল উদ্বোধনের যে পরিকল্পনা ছিল সেখান থেকে সরে আসা হয়েছে। কারণ ১৬ ডিসেম্বর অনেক প্রগ্রাম আছে। দিনটিকে অনেক বড় করে উদযাপন করা হচ্ছে। ফলে ১৬ ডিসেম্বরে হচ্ছে না। ডিসেম্বরের শেষ সপ্তাহে উদ্বোধন করার জন্য সামারি আমরা মন্ত্রণালয়ে দাখিল করেছি। তারিখ এখনো আমাকে জানানো হয়নি। তবে আমি মন্ত্রিপরিষদসচিবের সঙ্গে কথা বলেছি। তিনি বলেছেন, তারিখ নির্ধারণের কাজ চলমান আছে। ’

পাতাল রেলের নির্মাণকাজ শুরুর বিষয় জানতে চাইলে ডিএমটিসিএলের ব্যবস্থাপনা পরিচালক বলেন, ‘পাতাল রেলের নির্মাণকাজের চুক্তি আজ (গতকাল) হয়েছে। এরপর আরো কিছু প্রক্রিয়া শেষ করে জানুয়ারি মাসের শেষ সপ্তাহ বা ফেব্রুয়ারি মাসের প্রথম সপ্তাহে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা পাতাল রেলের নির্মাণকাজের গ্রাউন্ড ব্রেকিংকাজের উদ্বোধন করবেন। ১২টি প্যাকেজের মাধ্যমে পাতাল রেলের কাজ শেষ করা হবে। কিছু প্যাকেজের কাজ এখনো বাকি আছে। সেগুলো শেষ হলে আমরা বলতে পারব কবে থেকে টানেল বোরিং মেশিনের কাজটি শুরু হবে। আমরা আশা করছি, এই অর্থবছরের মধ্যে কাজটি শুরু করতে পারব। ৩০ মিটার নিচ দিয়ে টানেল বোরিং মেশিন যাবে। ফলে নিচে কাজ হলে ওপরে বোঝা যাবে না নিচে কাজ হচ্ছে। ’

মেট্রো রেল লাইন-১-এর প্রকল্পের নথির তথ্য বলছে, পাতাল ও উড়াল মিলে মেট্রো রেল লাইন-১-এর মোট দৈর্ঘ্য ৩১.২৪১ কিলোমিটার। রাজধানীর বিমানবন্দর থেকে কমলাপুর রেলস্টেশন পর্যন্ত পাতাল অংশের দৈর্ঘ্য ১৯.৮৭ কিলোমিটার।

 



সাতদিনের সেরা