kalerkantho

বুধবার । ৭ ডিসেম্বর ২০২২ । ২২ অগ্রহায়ণ ১৪২৯ । ১২ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪৪

পথে পথে ভালোবাসায় সিক্ত ফুটবলকন্যারা

কালের কণ্ঠ ডেস্ক   

১ অক্টোবর, ২০২২ ০০:০০ | পড়া যাবে ৪ মিনিটে



পথে পথে ভালোবাসায় সিক্ত ফুটবলকন্যারা

সংবর্ধনা : সাফ শিরোপাজয়ী ফুটবলকন্যাদের গতকাল সকালে ময়মনসিংহ নগরীর টাউন মোড়ের পুলিশ অফিসার্স মেস থেকে ফুলের মালা পরিয়ে দুটি ঘোড়ার গাড়িতে করে পুলিশ লাইনসের সংবর্ধনাস্থলে নেওয়া হয়। ছবি : কালের কণ্ঠ

‘এই উপজেলার মাটি আমাদের শরীরে লেগে আছে। এই মাটিতেই আমরা বড় হয়েছি। অনেকবার এসেছি উপজেলা পরিষদ চত্বরে। কিন্তু আজ সব কিছু নতুন মনে হচ্ছে।

বিজ্ঞাপন

আমরা নিজ ভূমিতে এত ভালোবাসা পাব, ভাবতেও পারিনি। আপনাদের সমর্থন, ভালোবাসায় আমরা এ পর্যন্ত আসতে পেরেছি, সাফজয়ী হিসেবে বাংলাদেশের নাম উজ্জ্বল করতে পেরেছি। আপনাদের ভালোবাসা ও সমর্থন সব সময় চাই। ’

গতকাল শুক্রবার নিজ উপজেলা ময়মনসিংহের ধোবাউড়ায় সংবর্ধনায় আপ্লুত হয়ে শুভেচ্ছা বক্তব্যে এসব কথা বলেন সাফজয়ী বাংলাদেশ নারী ফুটবল দলের সহকারী অধিনায়ক মারিয়া মান্দা। সেখানে সাফজয়ী কলসিন্দুরের আট নারী ফুটবলারের জন্য সংবর্ধনার আয়োজন করে উপজেলা প্রশাসন।

এ ছাড়া সাফজয়ী খাগড়াছড়ির তিন ফুটবলকন্যাকে সংবর্ধনা দিয়েছে জেলাবাসী। ঠাকুরগাঁওয়ের রানীশংকৈলের দুই নারী ফুটবলারকে সাদরে বরণ করেছে উপজেলাবাসী।

ধোবাউড়ায় সংবর্ধিতরা হলেন মারিয়া মান্দা, সানজিদা আক্তার, শিউলি আজিম, মার্জিয়া আক্তার, শামছুন্নাহার সিনিয়র, তহুরা আক্তার, সাজেদা আক্তার ও শামছুন্নাহার জুনিয়র। এর আগে বিকেলে ময়মনসিংহের হালুয়াঘাট পৌর শহরে এই আট কৃতী ফুটবলারকে সংবর্ধনা দেয় হাজারো মানুষ, উপজেলা ও পুলিশ প্রশাসন, বিভিন্ন সামাজিক, রাজনৈতিক সংগঠন। সংবর্ধনা দেওয়া হয় আট ফুটবলারকে গড়ার মূল কারিগরদেরও। স্থানীয় সংসদ সদস্য জুয়েল আরেং এ অনুষ্ঠানের আয়োজন করেন।

এর আগে সকালে ময়মনসিংহে কলসিন্দুরের আট ফুটবলকন্যাকে সংবর্ধনা দেয় জেলা পুলিশ প্রশাসন। নগরের টাউন হল মোড়ে পুলিশ অফিসার্স মেসে আট ফুটবলারকে ফুলের মালা দিয়ে বরণ করে পুলিশ। এরপর তাঁদের সুসজ্জিত দুটি ঘোড়ার গাড়িতে করে নেওয়া হয় পুলিশ লাইনসের অনুষ্ঠানস্থলে। অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি রেঞ্জ পুলিশের ডিআইজি দেবদাস ভট্টাচার্য্য তাঁদের হাতে তুলে দেন সম্মাননা ক্রেস্ট ও অর্থ পুরস্কার। এ সময় খেলোয়াড়দের সঙ্গে তাঁদের পরিবারের সদস্যরাও ছিল। অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন পুলিশ সুপার মাছুম আহমেদ ভূঞা। বক্তব্য দেন জেলা ক্রীড়া সংস্থার সাধারণ সম্পাদক এহতেশামুল আলম, সহসভাপতি সাজ্জাত জাহান চৌধুরী শাহীন, জেলা ফুটবল অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি এ কে এম দেলোয়ার হোসেন মুকুল, সাধারণ সম্পাদক মাসুদ আহম্মেদ রানা, কলসিন্দুর নারী ফুটবল দলের কোচ মো. মফিজ উদ্দিন, কলসিন্দুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মিনতি রানী শীল, সাবেক প্রধান শিক্ষক মফিজ উদ্দিন, বিদ্যালয়ের নারী ফুটবল টিমের ম্যানেজার মালা রানী সরকার প্রমুখ।

খাগড়াছড়িতে ফুলেল শুভেচ্ছা

তিন ফুটবলকন্যা আনাই মগিনী, আনুচিং মগিনী ও মণিকা চাকমা এবং জাতীয় নারী ফুটবল দলের সহকারী কোচ তৃঞ্চা চাকমা গতকাল সকালে রাঙামাটি থেকে খাগড়াছড়ি পৌঁছালে তাঁদের শহরের অদূরে ঠাকুরছড়ায় ফুল দিয়ে সাদরে বরণ করে নেয় সংসদ সদস্য বাসন্তী চাকমাসহ অসংখ্য মানুষ। এরপর ছাদখোলা সুসজ্জিত জিপে করে তাঁদের খাগড়াছড়ি শহরে ঘোরানো হয়। মোটরসাইকেলের বিশাল বহর জিপের সামনে ছিল। শত শত মানুষ তাঁদের হাত নেড়ে স্বাগত জানায়। পরে খাগড়াছড়ি স্টেডিয়ামে তাঁদের সংবর্ধনা দেওয়া হয়। জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে তিন খেলোয়াড় ও সহকারী কোচকে এক লাখ টাকা করে চার লাখ টাকার চেক হস্তান্তর করা হয়। খাগড়াছড়ি জেলা ক্রীড়া সংস্থাসহ জেলার বিভিন্ন সামাজিক, সাংস্কৃতিক সংগঠন ও ব্যক্তি সাফজয়ীদের ক্রেস্টসহ বিভিন্ন পুরস্কারে ভূষিত করে।

নিজ গ্রামে স্বপ্না, সোহাগী

দুই কৃতী ফুটবলার সোহাগী কিসকু ও স্বপ্না রাণী বৃহস্পতিবার রাত পৌনে ১২টার দিকে নিজ উপজেলা ঠাকুরগাঁওয়ের রানীশংকৈলে পৌঁছেন। গাড়িবহরসহ উষ্ণ সংবর্ধনায় তাঁদের বরণ করে নেয় উপজেলা প্রশাসন। পরে সোহাগীকে নিজ গ্রাম হাটগাঁওয়ে এবং স্বপ্নাকে বনগাঁ-শিয়ালডাঙ্গীতে পৌঁছে দেয় উপজেলা প্রশাসন। আগামীকাল রবিবার ডিগ্রি কলেজ মাঠে সোহাগী ও স্বপ্নাকে সংবর্ধনা দেওয়া হবে।

মেয়েদের বাড়িতে পেয়ে আনন্দে ভাসছে সোহাগী ও স্বপ্নার পরিবার। স্বপ্নার বাবা নিরেন চন্দ্র বলেন, ‘আমার স্বপ্না আজ আমার নয়, দেশের সম্পদ। তার অর্জনের পেছনে রয়েছে সাবেক অধ্যক্ষ তাজুল ইসলাম, কোচ জয়নুল ও সুর্গার অবদান। ’

মেয়ে আসবেন, তাই রাতে বাতি জ্বালিয়ে রাস্তায় বসে ছিলেন সোহাগীর বাবা গুলজার কিসকু। আইন-শৃঙ্খলা রক্ষা বাহিনীর গাড়ি দেখে ছোটাছুটি করছিলেন তিনি। তখন মেয়ে গাড়ি থেকে নেমেই জাপটে ধরেন বাবাকে। আর আনন্দে কান্নায় ভেঙে পড়ে পরিবারের সবাই।

[প্রতিবেদনে তথ্য দিয়েছেন কালের কণ্ঠের নিজস্ব প্রতিবেদক, ময়মনসিংহ, খাগড়াছড়ি, হালুয়াঘাট ও রানীশংকৈল (ঠাকুরগাঁও) প্রতিনিধি। ]

 



সাতদিনের সেরা