kalerkantho

রবিবার । ২ অক্টোবর ২০২২ । ১৭ আশ্বিন ১৪২৯ ।  ৫ রবিউল আউয়াল ১৪৪৪

কেন্দ্রীয় ব্যাংকের নির্দেশ

ডলারপ্রতি এক টাকা লাভ করতে পারবে ব্যাংক

নিজস্ব প্রতিবেদক   

১৫ আগস্ট, ২০২২ ০০:০০ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



ডলারপ্রতি এক টাকা লাভ করতে পারবে ব্যাংক

ডলারের বাজারে স্থিতিশীলতা ফেরাতে এবার আন্তর্জাতিক বাণিজ্যে ডলার কেনা-বেচায় দামের ব্যবধান (স্প্রেড) সর্বোচ্চ কত হতে পারবে, তা বেঁধে দিয়েছে বাংলাদেশ ব্যাংক। এখন থেকে ব্যাংকগুলো যে দামে ডলার কিনবে, তার চেয়ে সর্বোচ্চ এক টাকা বেশি দামে বিক্রি করতে পারবে। এ ছাড়া সব রপ্তানি আয় দ্রুত দেশে এনে নগদায়নের নির্দেশ দিয়েছে বাংলাদেশ ব্যাংক।

বৈদেশিক মুদ্রার বাজার স্থিতিশীল করতে ব্যাংকগুলোর জন্য ডলারের ক্রয়-বিক্রয় হারের মধ্যে এক টাকার ব্যবধান বেঁধে দিয়েছে বাংলাদেশ ব্যাংক।

বিজ্ঞাপন

অর্থাৎ ব্যাংকগুলো যে দামে ডলার কিনবে, তার চেয়ে সর্বোচ্চ এক টাকা বেশি দামে বিক্রি করতে পারবে। বিষয়টি পর্যবেক্ষণে রাখবে বাংলাদেশ ব্যাংক।

গতকাল রবিবার অ্যাসোসিয়েশন অব ব্যাংকার্স বাংলাদেশ (এবিবি) এবং বাংলাদেশ ফরেন এক্সচেঞ্জ ডিলারস অ্যাসোসিয়েশনের (বাফেদা) সদস্য ব্যাংকগুলোর সঙ্গে বাংলাদেশ ব্যাংকের এক বৈঠকে এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়।

সভায় সভাপতিত্ব করেন বাংলাদেশ ব্যাংকের গভর্নর আব্দুর রউফ তালুকদার। অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন ডেপুটি গভর্নর কাজী ছাইদুর রহমান, আহমেদ জামাল, এ কে এম সাজেদুর রহমান খান, আবু ফরাহ মো. নাছের, বিএফআইইউয়ের প্রধান মাসুদ বিশ্বাস এবং সংশ্লিষ্ট বিভাগের পরিচালকরা। এবিবির পক্ষে সভায় উপস্থিত ছিলেন সংগঠনের চেয়ারম্যান সেলিম আর এফ হোসাইন এবং বাফেদার পক্ষে ছিলেন চেয়ারম্যান আতাউর রহমান প্রধান ও বিভিন্ন বাণিজ্যিক ব্যাংকের ব্যবস্থাপনা পরিচালকরা।

ব্যাংকগুলো সাধারণত দুটি উৎস থেকে ডলার কেনে—প্রবাসী আয় প্রেরক ও রপ্তানিকারক। তারা বিভিন্ন উৎস থেকে একেক হারে ডলার কেনে। তাই সভায় সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়, ব্যাংকগুলো ডলার কেনার খরচের গড় হিসাব করবে এবং বিক্রির সময় আমদানিকারকদের থেকে এই গড় ক্রয়মূল্যের চেয়ে সর্বোচ্চ এক টাকা বেশি রাখবে।

সভার পরপরই বাংলাদেশ ব্যাংকের মুখপাত্র ও নির্বাহী পরিচালক মো. সিরাজুল ইসলাম সাংবাদিকদের বলেন, ‘বাজারকে কিভাবে খুব দ্রুত স্থিতিশীলতার মধ্যে নিয়ে আসা যায় তার জন্য ব্যাংকগুলো পদক্ষেপ নেবে বলে তারা আমাদের আশ্বস্ত করেছে। তারা একমত হয়েছে, দ্রুততম সময়ের মধ্যে বাজার স্থিতিশীল হয়ে যাবে। পাশাপাশি তাদের বলা হয়েছে যে সব রপ্তানি আয় খুব দ্রুত দেশে আনতে হবে এবং সেটাকে নগদায়ন করতে হবে। ’

বাংলাদেশ ব্যাংক এবিবি ও বাফেদাকে অক্টোবরের মধ্যে আন্ত ব্যাংক এক্সচেঞ্জ কার্যক্রম চালুর জন্য একসঙ্গে কাজ করতে বলেছে। এই কার্যক্রম তিন মাস ধরে বন্ধ আছে।

আন্ত ব্যাংকে ডলার বিক্রির বিনিময় হার ৯৫ টাকা। তবে বাণিজ্যিক ব্যাংকগুলোতেও এখন ১০৬ থেকে ১০৮ টাকায় নগদ ডলার বিক্রি হচ্ছে। গত সপ্তাহে খোলাবাজারে ডলারের দাম বেড়ে ১২০ টাকায় উঠে যায়। তবে গতকাল রবিবার খোলাবাজারে প্রতি ডলারের দাম ১১০ থেকে ১১২ টাকায় নেমে আসে।

 

 



সাতদিনের সেরা