kalerkantho

সোমবার । ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২২ । ১১ আশ্বিন ১৪২৯ ।  ২৯ সফর ১৪৪৪

১১টি ব্যালিস্টিক ক্ষেপণাস্ত্র ছুড়ল চীন

কালের কণ্ঠ ডেস্ক   

৫ আগস্ট, ২০২২ ০০:০০ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



১১টি ব্যালিস্টিক ক্ষেপণাস্ত্র ছুড়ল চীন

তাইওয়ান ঘিরে চীনের মহড়া

মার্কিন আইনসভার স্পিকারের আলোচিত সফরের জেরে তাইওয়ানের আশপাশের সাগরে গতকাল বৃহস্পতিবার বেশ কয়েকটি ডংফেং ব্যালিস্টিক ক্ষেপণাস্ত্র ছুড়েছে চীন। তাইওয়ানি কর্তৃপক্ষের তথ্য অনুযায়ী, এর সংখ্যা ১১। চীনের পূর্বঘোষিত সামরিক মহড়াকে কেন্দ্র করে এলাকায় উদ্বেগজনক পরিস্থিতির সৃষ্টি হয়। ব্যাহত হয় জাহাজ ও বিমান চলাচল।

বিজ্ঞাপন

পূর্ব নির্ধারিত সময় অনুসারে দিনের ঠিক মধ্যভাগে (দুপুর ১২টায়) তাইওয়ান প্রণালিতে মহড়া শুরু করে চীনা বাহিনী। এ সময় স্বশাসিত ভূখণ্ডটির উত্তর, দক্ষিণ ও পূর্বের নৌপথে গুলি ছোড়ে তারা। এখন পর্যন্ত তাইওয়ানসংলগ্ন সাগরে এটিই চীনের সর্ববৃহৎ সামরিক মহড়া। তাইওয়ানের প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় বলেছে, সব মিলিয়ে ১১টি চীনা ডংফেং ব্যালিস্টিক ক্ষেপণাস্ত্র ছোড়া হয়েছে। এর আগে ১৯৯৬ সালে শেষ তাইওয়ানের জলপথে ক্ষেপণাস্ত্র ছুড়েছিল চীন।

চীন মার্কিন প্রতিনিধি পরিষদের স্পিকার ন্যান্সি পেলোসির তাইওয়ান সফরের সম্ভাবনার কথা প্রকাশ পাওয়ার পর থেকেই এর বিরোধিতা করে আসছিল। দেশটি এ সফর সত্যিই সত্যিই করা হলে ‘পরিণতির’ হুঁশিয়ারি দিয়েছিল।

গতকাল দিনের মধ্যভাগে মহড়া এলাকার দুই পাশেই স্বল্প দূরত্বে যুদ্ধজাহাজও অবস্থান করতে দেখা গেছে। এ ছাড়াও ওই সময় আকাশ সীমারেখা অতিক্রম করেছে চীনের একাধিক যুদ্ধবিমান।

তাইওয়ানি এক সূত্র বলে, ‘তারা উড়ে আমাদের সীমায় প্রবেশ করেছে, এরপর বের হয়ে গেছে। বারবার এটা ঘটেছে। তারা আমাদের এভাবে হয়রানি করা অব্যাহত রেখেছে। ’

তাইওয়ানের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় মন্তব্য করেছে, দ্বীপটির চারপাশের সাগরে রকেট ছুড়ে উত্তর কোরিয়াকে ‘অনুকরণ’ করছে চীন। এক বিবৃতিতে মন্ত্রণালয় বলেছে, তাইওয়ানের সুরক্ষাকে হুমকির মুখে ফেলেছে চীন। তবে বেইজিংয়ের সঙ্গে এ উত্তেজনাময় মুহূর্তে সংযম দেখানো হবে বলেই জানিয়েছে তারা।

তাইওয়ানের কর্মকর্তারা আনুষ্ঠানিকভাবে চীনের সামরিক মহড়ার নিন্দা জানিয়েছেন। তাঁরা বলছেন, এর মাধ্যমে জাতিসংঘের নীতিমালার লঙ্ঘন হচ্ছে। এ ছাড়া এটি আকাশ ও সমুদ্রে মুক্ত চলাচলের ওপর প্রত্যক্ষ চ্যালেঞ্জ।

গতকাল বৃহস্পতিবার তাইওয়ানের ‘মূল ভূখণ্ড বিষয়ক পরিষদ’ জানিয়েছে, তারা ‘অনুপ্রবেশ ও মনস্তাত্ত্বিক যুদ্ধের বিষয়ে সতর্ক থাকবে। ’

বাইরের বিশ্বেও উত্তাপ

চীন-তাইওয়ান উত্তেজনার রেশ ছড়িয়ে পড়েছে আন্তর্জাতিক পরিমণ্ডলেও। চীনের মহড়ার ঘোষণার পর নিরাপত্তাজনিত বিবেচনায় গতকাল স্বশাসিত ভূখণ্ডটির আগে থেকে নির্ধারিত উভয়মুখী ৫০টি আন্তর্জাতিক ফ্লাইট বাতিল করা হয়। বৈশ্বিক সরবরাহ চেইনেও প্রভাব ফেলছে তাইওয়ান প্রণালির অস্থিরতা। বাণিজ্যিক অনেক জাহাজ নিজেদের যাত্রাপথ পরিবর্তন করতে বাধ্য হওয়ায় এরই মধ্যে রপ্তানি খাতে বিলম্ব দেখা দেওয়ার শঙ্কা তৈরি হয়েছে।

বাণিজ্যবিষয়ক মার্কিন সংবাদমাধ্যম ব্লুমবার্গের তথ্যানুসারে, বৈশ্বিক কনটেইনারবাহী জাহাজের প্রায় অর্ধেক এবং বড় বড় জাহাজগুলোর ৮৮ শতাংশই এ বছর তাইওয়ান প্রণালি দিয়ে পার হয়েছে।   

তাইওয়ানিদের উদ্বেগ ও ক্ষোভ

তাইওয়ানের ভেতরে জীবনযাত্রা স্বাভাবিক থাকলেও জনসাধারণের মধ্যে উদ্বেগ লক্ষ করা গেছে বলে জানিয়েছেন ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসির তাইপের প্রতিনিধি। আর সাগরে মাছ ধরাসহ কার্যক্রম বিঘ্নিত হওয়ায় ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন হাত গুটিয়ে বসে থাকতে বাধ্য হওয়া জেলেরা।

এলাকায় যাচ্ছে মার্কিন রণতরি

মার্কিন নৌবাহিনীর রণতরি ও বিমান বহনকারী জাহাজ ইউএসএস রোনাল্ড রিগ্যান তাইওয়ানের দক্ষিণ-পূর্বের ফিলিপাইন সাগরে পৌঁছানোর কথা রয়েছে। সূত্র : বিবিসি, রয়টার্স

 



সাতদিনের সেরা