kalerkantho

বুধবার । ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২২ । ১৩ আশ্বিন ১৪২৯ ।  ১ রবিউল আউয়াল ১৪৪৪

ব্যয় সাশ্রয়ে অর্থবছরের শুরুতেই কৃচ্ছ্রসাধনে কঠোর সরকার

নিজস্ব প্রতিবেদক   

৪ জুলাই, ২০২২ ০০:০০ | পড়া যাবে ৪ মিনিটে



ব্যয় সাশ্রয়ে অর্থবছরের শুরুতেই কৃচ্ছ্রসাধনে কঠোর সরকার

ব্যয় সাশ্রয়ে নতুন অর্থবছরের শুরুতেই কৃচ্ছ্রসাধনের নীতিতে কঠোর হচ্ছে সরকার। এ নীতির আওতায় গতকাল রবিবার পৃথক তিনটি প্রজ্ঞাপন জারি করে বড় ধরনের পদক্ষেপ নেওয়া হয়েছে। এর মধ্যে রয়েছে—সরকারি কাজে ব্যবহৃত সব ধরনের মোটরযান, জলযান ও আকাশযান কেনা বন্ধ থাকবে। স্থগিত করা হয়েছে উন্নয়ন প্রকল্পের বৈঠকে দেওয়া সম্মানী ভাতা।

বিজ্ঞাপন

সবচেয়ে উল্লেখযোগ্য বিষয় হলো বার্ষিক উন্নয়ন কর্মসূচির (এডিপি) মধ্যম বা ‘বি’ ক্যাটাগরির প্রকল্পের জিওবি অংশ থেকে ২৫ শতাংশ অর্থ আটকে রাখার বাধ্যবাধকতা আরোপ করা হয়েছে। পাশাপাশি ‘সি’ বা কম অগ্রাধিকারমূলক প্রকল্পের অর্থছাড় আপাতত বন্ধ থাকবে।

করোনা মহামারি শুরুর পর অহেতুক ব্যয় কমাতে ২০২০-২১ অর্থবছরে কৃচ্ছ্রসাধনের নীতি গ্রহণ করে সরকার। ২০২০ সালের ৮ জুলাই প্রজ্ঞাপন জারি করে সব ধরনের যানবাহন ক্রয়ে নিষেধাজ্ঞা দেওয়া হয়। এরপর ১৯ জুলাই সরকারি চাকরিজীবীদের বিশেষ প্রয়োজন ছাড়া বিদেশভ্রমণ ও ভ্রমণ ব্যয় ৫০ শতাংশ কমানো হয়। এ ছাড়া কৃচ্ছ্রসাধনের নীতিতে কম গুরুত্বপূর্ণ প্রকল্প বাস্তবায়ন পিছিয়ে দেওয়ার মতো সিদ্ধান্তও নেয় সরকার। বর্তমানে করোনাভাইরাস নিয়ন্ত্রণে থাকলেও রাশিয়া-ইউক্রেন যুদ্ধের প্রভাবে নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্যসহ আমদানি ব্যয় বেড়ে গেছে। মূল্যস্ফীতিও গত আট বছরের মধ্যে সর্বোচ্চ পর্যায়ে রয়েছে। এ পরিস্থিতিতে সরকার আবারও কৃচ্ছ সাধনের নীতি অবলম্বন করল।

সব ধরনের যানবাহন কেনা বন্ধ

বর্তমান বৈশ্বিক প্রেক্ষাপটে সরকারি কাজে সব ধরনের যানবাহন কেনায় নিষেধাজ্ঞা দিয়েছে অর্থ মন্ত্রণালয়। গতকাল অর্থ বিভাগের বাজেট অনুবিভাগ-১ থেকে জারি করা এক পরিপত্রের মাধ্যমে এ সিদ্ধান্তের কথা জানানো হয়। বিভাগের উপসচিব মোহাম্মদ আনিসুজ্জামান স্বাক্ষরিত ওই পরিপত্রে বলা হয়, বর্তমান বৈশ্বিক অর্থনৈতিক অবস্থার প্রেক্ষাপটে নতুন বা প্রতিস্থাপক হিসেবে সব ধরনের যানবাহন ক্রয়, মোটরযান, জলযান ও আকাশযান ক্রয় বন্ধ থাকবে।

প্রজ্ঞাপনে আরো কিছু ক্ষেত্রে কৃচ্ছ্রসাধন করা হবে বলে উল্লেখ করা হয়েছে। এর মধ্যে রয়েছে—শুধু জরুরি ও অপরিহার্য ক্ষেত্র বিবেচনায় আপ্যায়ন ব্যয়, ভ্রমণ ব্যয়, অন্যান্য মনিহারি, কম্পিউটার ও আনুষঙ্গিক, বৈদ্যুতিক সরঞ্জাম ও আসবাবপত্র খাতে বরাদ্দ করা অর্থের সর্বোচ্চ ৫০ শতাংশ ব্যয় করা যাবে।

প্রশিক্ষণ খাতের পুরো অর্থ ব্যবহারেও নিষেধাজ্ঞা দেওয়া হয়েছে। বলা হয়েছে, দেশের অভ্যন্তরে প্রশিক্ষণের ক্ষেত্রে প্রশিক্ষণ খাতে (প্রশিক্ষণ প্রতিষ্ঠান ব্যতীত) বরাদ্দ করা অর্থের সর্বোচ্চ ৫০ শতাংশ ব্যয় করা যাবে। পরিপত্রে মন্ত্রণালয়, বিভাগ, সংস্থা ও অন্যান্য প্রতিষ্ঠানকে সতর্কতা দিয়ে প্রজ্ঞাপনে বলা হয়েছে, বরাদ্দে অব্যবহৃত অর্থ অন্য খাতে ব্যয় করা যাবে না।

সব সরকারি, আধা সরকারি, স্বায়ত্তশাসিত, রাষ্ট্রায়ত্ত, সংবিধিবদ্ধ, রাষ্ট্রীয় মালিকানাধীন কম্পানি ও আর্থিক প্রতিষ্ঠানের ক্ষেত্রে এসব নিষেধাজ্ঞা কার্যকর হবে বলেও এতে উল্লেখ আছে।

উন্নয়ন প্রকল্পের বৈঠকে সম্মানী ভাতা মিলবে না : উন্নয়ন প্রকল্পের বিভিন্ন কমিটির মূল্যায়ন বৈঠকে এখন থেকে আর সম্মানী ভাতা পাবেন না কমিটির সদস্যরা। বৈঠকে অংশ নিলে যে সম্মানী ভাতা পাওয়া যেত, সেটি স্থগিত করেছে অর্থ বিভাগ।

অর্থ বিভাগের বাজেট ১১ শাখার উপসচিব মোহাম্মদ জাকির হোসেন স্বাক্ষরিত পরিপত্রে বলা হয়েছে—সব ধরনের প্রকল্প-কর্মসূচি-স্কিমের ক্ষেত্রে সম্মানী, বরাদ্দ থেকে প্রকল্প বাস্তবায়ন কমিটি (পিআইসি), প্রকল্প স্টিয়ারিং কমিটি (পিএসসি), বিভাগীয় প্রকল্প মূল্যায়ন কমিটি (ডিপিইসি), বিশেষ প্রকল্প মূল্যায়ন কমিটি (এসপিইসি) এবং বিভাগীয় বিশেষ প্রকল্প মূল্যায়ন কমিটি (ডিএসপিইসি) সভায় সম্মানী বাবদ কোনো অর্থ ব্যয় করা যাবে না।

এডিপির পুরো অর্থ ব্যয় করা যাবে না ‘বি’ ক্যাটাগরির প্রকল্পে : কৃচ্ছ সাধনের আওতায় ব্যয় সাশ্রয়ে এডিপির প্রকল্পগুলোকে তিনটি ক্যাটগরিতে ভাগ করেছে অর্থ বিভাগ। ক্যাটাগরিগুলো হলো ‘এ’, ‘বি’ ও ‘সি’। ‘এ’ ক্যাটাগরিতে অগ্রাধিকারভুক্ত প্রকল্পগুলো রাখা হয়েছে। এগুলো বাস্তবায়নের ক্ষেত্রে কোনো ধরনের বাধা-নিষেধ দেওয়া হয়নি।

‘বি’ ক্যাটাগরিতে রাখা হয়েছে মধ্যম অগ্রাধিকারমূলক প্রকল্পগুলোকে। ‘বি’ ক্যাটাগরির প্রকল্পে সরকারি বরাদ্দের ৭৫ শতাংশ অর্থ ব্যয় করা যাবে। জিওবি খাতে বাকি ২৫ শতাংশ অর্থ সংরক্ষণ করতে হবে।

‘সি’ ক্যাটাগরিতে রাখা হয়েছে অনগ্রাধিকারমূলক প্রকল্পগুলোকে। এসব প্রকল্পের অর্থছাড় আপাতত স্থগিত থাকবে। তবে সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয় বা বিভাগ বা অন্যান্য প্রতিষ্ঠান প্রয়োজন অনুসারে এসব প্রকল্পে বরাদ্দ করা অর্থ পুনঃসংযোজনের মাধ্যমে অগ্রাধিকারমূলক প্রকল্পে ব্যবহার করতে পারবে।

 



সাতদিনের সেরা