kalerkantho

বৃহস্পতিবার । ১৩ মাঘ ১৪২৮। ২৭ জানুয়ারি ২০২২। ২৩ জমাদিউস সানি ১৪৪৩

মুরাদকে উপজেলা আওয়ামী লীগ থেকেও অব্যাহতি

নিজস্ব প্রতিবেদক   

৯ ডিসেম্বর, ২০২১ ০০:০০ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



মুরাদকে উপজেলা আওয়ামী লীগ থেকেও অব্যাহতি

মুরাদ হাসান

এবার সরিষাবাড়ী উপজেলা আওয়ামী লীগের সদস্য পদ থেকেও বাদ পড়ছেন সদ্য পদত্যাগ করা তথ্য প্রতিমন্ত্রী মুরাদ হাসান। গতকাল বুধবার সন্ধ্যায় উপজেলা আওয়ামী লীগের জরুরি সভায় তাঁকে অব্যাহতি দেওয়ার সিদ্ধান্ত হয়েছে। এর আগে গত মঙ্গলবার তাঁকে জামালপুর জেলা আওয়ামী লীগের স্বাস্থ্যবিষয়ক সম্পাদক পদ থেকে অব্যাহতির সিদ্ধান্ত নেয় জেলা কমিটি।

আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় নীতিনির্ধারণী পর্যায়ের সূত্র জানায়, মুরাদ হাসানকে দল থেকেই বহিষ্কার চান কেন্দ্রীয় প্রায় সব নেতা।

বিজ্ঞাপন

তবে দল থেকে তাঁকে বহিষ্কারের সিদ্ধান্ত আসতে মাসখানেক লাগতে পারে। কারণ অন্তত আগামী এক মাসের আগে আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী সংসদের সভা অনুষ্ঠিত হওয়ার সম্ভাবনা কম। আওয়ামী লীগ থেকে কাউকে বহিষ্কার করার এখতিয়ার কেবল কেন্দ্রীয় কমিটির হাতে। সাধারণত দেড় থেকে দুই মাস সময়ের ব্যবধানে আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় সভা অনুষ্ঠিত হয়। গত ১৯ নভেম্বর দলের এ সভা অনুষ্ঠিত হয়েছিল। ফলে আগামী জানুয়ারির মাঝামাঝির আগে এ সভা আহ্বান করার সম্ভাবনা কম।

আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় নীতিনির্ধারণী পর্যায়ের একাধিক নেতা কালের কণ্ঠকে জানান, সাধারণত কাউকে দল থেকে বহিষ্কারের আগে তাঁকে আত্মপক্ষ সমর্থনের সুযোগ দিয়ে কারণ দর্শানোর নোটিশ দেওয়া হয়। কিন্তু মুরাদ হাসানকে এই নোটিশ দেওয়ার পক্ষে নন একাধিক কেন্দ্রীয় নেতা।

জিডির তদন্ত করছে ডিএমপির সাইবার অপরাধ বিভাগ

মুরাদ হাসানের বিরুদ্ধে শাহবাগ থানায় মঙ্গলবার যে লিখিত অভিযোগ করা হয়েছে, তা তদন্ত করছে পুলিশের সাইবার অপরাধ বিভাগ। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র জুলিয়াস সিজার তালুকদারের করা অভিযোগটি গতকাল সাইবার ক্রাইম বিভাগে পাঠানো হয়।

শাহবাগ থানার ওসি মওদুদ হাওলাদার কালের কণ্ঠকে বলেন, ‘মঙ্গলবার রাতে মুরাদ হাসানের বিরুদ্ধে জিডি করা হয়েছে। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের নারী শিক্ষার্থীদের কটাক্ষ করে অবমাননাকর বক্তব্য দেওয়া এবং বিশ্ববিদ্যালয়কে হেয় করে বক্তব্য দেওয়ার অভিযোগে বিশ্ববিদ্যালয়ের একজন শিক্ষার্থী একটি অভিযোগ নিয়ে আসেন। ’

বিচার বিভাগীয় তদন্ত চেয়ে  হাইকোর্টে রিট

মুরাদ হাসানের বিতর্কিত কর্মকাণ্ড নিয়ে বিচার বিভাগীয় তদন্তের জন্য প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নিতে কেন নির্দেশ দেওয়া হবে না এবং তাঁর সংসদীয় আসন (জাপালপুর-৪) শূন্য ঘোষণা করতে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নিতে কেন নির্দেশ দেওয়া হবে না—এ বিষয়ে রুল চাওয়া হয়েছে। গতকাল হাইকোর্টের সংশ্লিষ্ট শাখায় আইনজীবী ইউনুছ আলী আকন্দ রিটটি করেছেন। আজ বৃহস্পতিবার এটি হাইকোর্টে দাখিল করা হবে বলে ইউনুছ আলী আকন্দ সাংবাদিকদের জানিয়েছেন।

অশ্লীল বক্তব্যের ৩৮৭টি লিংক চিহ্নিত করেছে বিটিআরসি

মুরাদ হাসানের অশ্লীল-কুরুচিপূর্ণ বক্তব্যের ৩৮৭টি লিংক চিহ্নিত করেছে বিটিআরসি। এর মধ্যে ফেসবুকে ২৭২টি এবং ইউটিউবে ১১৫টি লিংক চিহ্নিত করা হয়েছে।

 



সাতদিনের সেরা