kalerkantho

বৃহস্পতিবার । ১৩ মাঘ ১৪২৮। ২৭ জানুয়ারি ২০২২। ২৩ জমাদিউস সানি ১৪৪৩

বুয়েট উপাচার্য ও শিক্ষার্থীদের সন্তোষ

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিনিধি   

৯ ডিসেম্বর, ২০২১ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



বুয়েট উপাচার্য ও শিক্ষার্থীদের সন্তোষ

বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বুয়েট) শিক্ষার্থী আবরার ফাহাদ হত্যার রায়ে সন্তোষ প্রকাশ করেছেন বুয়েটের উপাচার্য ও শিক্ষার্থীরা। একই সঙ্গে রায় দ্রুত কার্যকর করার দাবি জানিয়েছেন তাঁরা।

বুয়েটের উপাচার্য সত্যপ্রসাদ মজুমদার গতকাল বুধবার তাঁর কার্যালয়ে সাংবাদিকদের বলেন, ‘দীর্ঘদিনের প্রতীক্ষিত রায় আমরা পেয়েছি। আমরা মনে করি, বিচার বিভাগ তাঁদের প্রজ্ঞা ও আইন অনুযায়ী বিচার করেছেন।

বিজ্ঞাপন

সর্বোচ্চ শাস্তি হয়েছে। আমাদের সবারই আশা, রায় যেন দ্রুত কার্যকর করা হয়। ভবিষ্যতে আমাদের ছাত্র-ছাত্রীদের মনে রাখতে হবে, কেউ এই ধরনের কর্মকাণ্ডে জড়িত হলে তাকে সর্বোচ্চ শাস্তি ভোগ করতে হবে। ’

গতকাল রায় ঘোষণার পর বুয়েটের শহীদ মিনারে তাত্ক্ষণিক এক সংবাদ সম্মেলন করেন শিক্ষার্থীরা। এতে লিখিত বক্তব্যে তাঁরা বলেন, ‘আমরা মনে করি, এই রায়ে সবার আস্থার প্রতিফলন ঘটেছে। আমরা এই রায় দ্রুত কার্যকরের দাবি জানাচ্ছি। একই সঙ্গে আমাদের প্রত্যাশা, ভবিষ্যতে বাংলাদেশের কোনো শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে ছাত্র-শিক্ষক কাউকেই যেন রাজনৈতিক অপসংস্কৃতির বলি না হতে হয় এবং সব ক্ষেত্রে শিক্ষার সুষ্ঠু পরিবেশ বজায় থাকে। ’

পলাতক তিন আসামিকে দ্রুত গ্রেপ্তারের দাবি জানিয়ে সংবাদ সম্মেলনে বলা হয়, সাজাপ্রাপ্ত আসামিদের মধ্যে এহতেশামুল রাব্বি তানিম, মুজতবা রাফিদ, মোর্শেদ উজ জামান মণ্ডল জিসান—এই তিনজন এখনো পলাতক। পলাতক তিনজনকে দ্রুততম সময়ে আইনের আওতায় আনতে হবে।

সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত এক শিক্ষার্থী বলেন, ‘হলগুলোতে আমাদের এখন আর ভয়ের মধ্যে থাকতে হয় না। আমরা এখন মুক্ত পরিবেশে হলে থাকতে পারি। স্বাভাবিক কর্মকাণ্ড করতে পারি। আবরার তাঁর রক্তের বিনিময়ে আমাদের একটি সুন্দর বুয়েট ক্যাম্পাস দিয়ে গেছেন। ’

আবরার হত্যা মামলার রায় দ্রুত কার্যকর করার দাবি জানিয়েছে বাংলাদেশ ছাত্র অধিকার সংরক্ষণ পরিষদ। একই সঙ্গে বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসগুলোতে গেস্টরুমবিরোধী আইন পাসের দাবি জানিয়েছেন বাংলাদেশ ছাত্র অধিকার সংরক্ষণ পরিষদের নেতাকর্মীরা।



সাতদিনের সেরা