kalerkantho

বৃহস্পতিবার  । ২৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৮। ৯ ডিসেম্বর ২০২১। ৪ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪৩

দেড় বছরে চার কোটি টাকা রাজস্ব ফাঁকি

বিপুল ভিওআইপি সরঞ্জামসহ আরেক কারবারি গ্রেপ্তার

নিজস্ব প্রতিবেদক   

২৩ সেপ্টেম্বর, ২০২১ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



বিপুল ভিওআইপি সরঞ্জামসহ আরেক কারবারি গ্রেপ্তার

রাজধানীতে অবৈধ ভিওআইপি কারবারিদের ওপর নজরদারিতে আরেকটি চক্র চিহ্নিত হয়েছে। গতকাল বুধবার শেরেবাংলানগর থানার ইন্দিরা রোড এলাকা থেকে বিপুল পরিমাণ অবৈধ ভিওআইপি সরঞ্জামসহ শামসুজ্জামান (২৬) নামের এক যুবককে গ্রেপ্তার করেছে  র‌্যাব ও বিটিআরসির যৌথ দল। এ সময় তাঁর কাছ থেকে ৯টি মোবাইল ফোন, একটি সিপিইউ, ৯টি মোবাইল চার্জার, একটি কি-বোর্ড, ১৫০ পিস কলিং কার্ড, একটি মাউস, একটি এসি অ্যাডাপ্টর, একটি মনিটর, একটি ডকুমেন্ট ফাইল এবং একটি মনিটর স্ট্যান্ড উদ্ধার করা হয়।  র‌্যাব কর্মকর্তারা বলছেন, গ্রেপ্তার শামসুজ্জামান অবৈধ ভিওআইপি, আন্তর্জাতিক পেমেন্ট ও রিচার্জ কারবার চক্রের সদস্য। গত দেড় বছরে চার কোটি টাকার রাজস্ব ফাঁকি দিয়েছে এই চক্র।

এর আগে গত ১৪ সেপ্টেম্বর রাজধানীর মোহাম্মদপুরের লালমাটিয়ায় অভিযান চালিয়ে অবৈধ ভিওআইপি কারবারের সরঞ্জামসহ শফিকুল ইসলাম (৩৫) নামের একজনকে গ্রেপ্তার করে  র‌্যাব। অভিযানে টেলিটকের এক হাজারের বেশি সিম উদ্ধার করা হয়।  র‌্যাব জানিয়েছিল, অবৈধ এই ভিওআইপি কারবারের হোতা সৌদি আরবপ্রবাসী। তিনি সৌদি আরবে বসে এই কারবার পরিচালনা করতেন।

গতকাল বিকেলে যাত্রাবাড়ীর ধলপুরে  র‌্যাব-১০-এর কার্যালয়ে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে অধিনায়ক (সিও) অতিরিক্ত ডিআইজি মাহফুজুর রহমান জানান, দুপুরে   র‌্যাব-১০ এবং বিটিআরসির সমন্বয়ে যৌথ অভিযান দল শেরেবাংলানগর থানাধীন ৭০/ডি-৩ ইন্দিরা রোড এলাকায় অভিযান চালায়। গ্রেপ্তার শামসুজ্জামান অবৈধ ভিওআইপি, আন্তর্জাতিক পেমেন্ট ও রিচার্জ কারবার চক্রের সদস্য। 

তিনি বলেন, চক্রটি দীর্ঘদিন ধরে সরকারকে প্রদেয় রাজস্ব ফাঁকি দিয়ে অবৈধভাবে ভিওআইপি এবং আন্তর্জাতিক পেমেন্ট ও রিচার্জের কারবার চালিয়ে আসছিল। বিটিআরসি থেকে লাইসেন্স গ্রহণ না করে পারস্পরিক যোগসাজশে সফটওয়্যারভিত্তিক সুইচের মাধ্যমে টেলিযোগাযোগব্যবস্থা স্থাপন করে। চক্রটি গত দেড় বছরে প্রায় চার কোটি টাকা রাজস্ব ফাঁকি দিয়েছে। 



সাতদিনের সেরা