kalerkantho

শনিবার । ৩১ আশ্বিন ১৪২৮। ১৬ অক্টোবর ২০২১। ৮ রবিউল আউয়াল ১৪৪৩

জাতিসংঘে উচ্চ পর্যায়ের বিতর্ক কাল শুরু

প্রধানমন্ত্রী জলবায়ুবিষয়ক সভায় যোগ দেবেন আজ

কূটনৈতিক প্রতিবেদক   

২০ সেপ্টেম্বর, ২০২১ ০০:০০ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



জাতিসংঘে উচ্চ পর্যায়ের বিতর্ক কাল শুরু

জাতিসংঘ সাধারণ পরিষদের ৭৬তম অধিবেশনে উচ্চ পর্যায়ের বিতর্ক আগামীকাল মঙ্গলবার শুরু হচ্ছে। এর আগে আজ সোমবার ভোরেই নিউ ইয়র্কে পৌঁছবেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। ফিনল্যান্ডের রাজধানী হেলসিংকিতে দুই দিনের যাত্রাবিরতি শেষে গতকাল রবিবার সন্ধ্যায় তিনি নিউ ইয়র্কের উদ্দেশে রওনা হন।

গত বছর ৭৫তম অধিবেশনের উচ্চ পর্যায়ের বিতর্কে বিশ্বনেতারা ভার্চুয়ালি অংশ নিয়েছিলেন। দুই বছর পর এবার কভিড বাস্তবতার মধ্যেই সশরীরে নিউ ইয়র্কে সাধারণ পরিষদে উপস্থিত হচ্ছেন বিশ্বনেতারা। জানা গেছে, এবার প্রায় ১০০ রাষ্ট্রপ্রধান বা সরকারপ্রধান সশরীরে জাতিসংঘে বক্তব্য দেবেন। গত বছরের শুরুর দিকে বিশ্বে কভিড মহামারি শুরুর পর এটিই হবে বিশ্বনেতাদের সবচেয়ে বড় সম্মেলন।

উচ্চ পর্যায়ের বিতর্ক পর্বের প্রথম দিন আগামীকাল মঙ্গলবার যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন বক্তব্য দেবেন। সাধারণ পরিষদের ৭৬তম অধিবেশনের সভাপতি মোহাম্মদ সলিহও বক্তব্য দেবেন কাল। খসড়া সূচি অনুযায়ী প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা নিউ ইয়র্ক সময় আগামী শুক্রবার দিনের প্রথম ভাগে বক্তব্য দেবেন। পরদিন শনিবার বক্তব্য দেবেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। জানা গেছে, জাতিসংঘ সাধারণ পরিষদের অধিবেশনের ফাঁকে সুবিধাজনক সময়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির বৈঠক আয়োজনের চেষ্টা চলছে।

নিউ ইয়র্কে যাওয়ার আগে পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আব্দুল মোমেন ঢাকায় সাংবাদিকদের বলেন, বিতর্ক পর্বে প্রতিবারের মতো এবারও প্রধানমন্ত্রী বাংলায় বক্তব্য দেবেন। তিনি বাংলাদেশের অভাবনীয় উন্নয়ন অগ্রযাত্রা, অন্তর্ভুক্তিমূলক অর্থনৈতিক উন্নয়ন, স্বাস্থ্য খাতে সাফল্য তুলে ধরবেন। এর পাশাপাশি, বিশ্বশান্তি, নিরাপদ অভিবাসন, করোনার টিকার ন্যায্যতাভিত্তিক বণ্টন, বৃহৎ পরিসরে করোনার টিকা উৎপাদনের লক্ষ্যে পেটেন্টসহ মেধাস্বত্ব উন্মুক্তকরণ, ফিলিস্তিনি ও বলপূর্বক বাস্তুচ্যুত মিয়ানমার নাগরিক সংকট, জলবায়ু ন্যায়বিচার প্রতিষ্ঠা সম্পর্কিত বিষয়গুলো প্রধানমন্ত্রীর বক্তব্যে উঠে আসবে।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আজ সোমবার রাতে যুক্তরাজ্যের প্রধানমন্ত্রী ও জাতিসংঘ মহাসচিবের আমন্ত্রণে জলবায়ু পরিবর্তনসংক্রান্ত উচ্চ পর্যায়ের বৈঠকে অংশ নেবেন। শেখ হাসিনা আগামীকাল মঙ্গলবার যুক্তরাষ্ট্র আয়োজিত কভিড মহামারিবিষয়ক উচ্চ পর্যায়ের সভায় বক্তব্য দেবেন। সেদিনই রোহিঙ্গা ইস্যুতে বাংলাদেশ আয়োজিত একটি উচ্চ পর্যায়ের আলোচনায় বক্তব্য দেবেন প্রধানমন্ত্রী। পরে ২৩ সেপ্টেম্বর প্রধানমন্ত্রী খাদ্য ব্যবস্থাবিষয়ক উচ্চ পর্যায়ের সভায় যোগ দেবেন। সেদিনই ‘ইউএন কমন এজেন্ডা : অ্যাকশন টু অ্যাচিভ ইকুয়ালিটি অ্যান্ড ইনক্লুশন’ একটি উচ্চ পর্যায়ের সাইড ইভেন্টে প্রধানমন্ত্রী বক্তব্য দেবেন। 

প্রতিবছরের মতো এবারও যুক্তরাষ্ট্রপ্রবাসী বাংলাদেশিরা প্রধানমন্ত্রীর সম্মানে একটি অভ্যর্থনা অনুষ্ঠানের আয়োজন করবে। করোনা মহামারির পরিপ্রেক্ষিতে ভার্চুয়াল প্ল্যাটফর্ম ব্যবহার করে এই সভা অনুষ্ঠিত হবে। এ ছাড়া প্রধানমন্ত্রী প্রতিবারের মতো বেশ কয়েকটি দ্বিপক্ষীয় বৈঠকে অংশ নেবেন। প্রধানমন্ত্রী যুক্তরাষ্ট্রের ব্যবসায়ী সম্প্রদায়ের আয়োজনে একটি গোলটেবিল বৈঠকে অংশ নেবেন।

নিউ ইয়র্ক সফর শেষে প্রধানমন্ত্রী ওয়াশিংটন ডিসিতে যাবেন। আগামী ১ অক্টোবর তাঁর দেশে ফেরার কথা রয়েছে।

 



সাতদিনের সেরা