kalerkantho

মঙ্গলবার । ৬ আশ্বিন ১৪২৮। ২১ সেপ্টেম্বর ২০২১। ১৩ সফর ১৪৪৩

অনিবন্ধিত অনলাইন নিউজ পোর্টাল বন্ধের নির্দেশ হাইকোর্টের

নিজস্ব প্রতিবেদক   

১৫ সেপ্টেম্বর, ২০২১ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



অনিবন্ধিত অনলাইন নিউজ পোর্টাল বন্ধের নির্দেশ হাইকোর্টের

অনিবন্ধিত ও অনুমোদনহীন সব অনলাইন নিউজ পোর্টাল বন্ধের নির্দেশ দিয়েছেন হাইকোর্ট। আদেশের কপি পাওয়ার সাত দিনের মধ্যে বাংলাদেশ টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রণ কমিশন (বিটিআরসি) ও প্রেস কাউন্সিলের চেয়ারম্যানকে এ নির্দেশ বাস্তবায়ন করে প্রতিবেদন দিতে বলা হয়েছে।

এসংক্রান্ত একটি সম্পূরক আবেদনের ওপর শুনানি নিয়ে বিচারপতি মো. মজিবুর রহমান মিয়া ও বিচারপতি মো. কামরুল হোসেন মোল্লার হাইকোর্ট বেঞ্চ গতকাল মঙ্গলবার এ আদেশ দেন।

সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী অ্যাডভোকেট রাশিদা চৌধুরী নীলু ও ব্যারিস্টার জারিন রহমানের করা আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে এ আদেশ দেওয়া হয়। তাঁরা নিজেরাই শুনানি করেন। রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল নওরোজ মো. রাসেল চৌধুরী।

এর আগে ওই দুই আইনজীবীর রিট আবেদনে জারি করা রুলের ধারাবাহিকতায় গতকাল এই অন্তর্বর্তীকালীন নির্দেশনা দিয়েছেন। হাইকোর্ট গত ১৬ আগস্ট এক আদেশে অনুমোদনহীন ও অনিবন্ধিত অনলাইন নিউজ পোর্টাল বন্ধে এবং নিবন্ধনের জন্য বিবেচনাধীন অনলাইন নিউজ পোর্টালগুলোকে নিবন্ধন দিতে কেন নির্দেশ দেওয়া হবে না, তা জানতে চেয়ে রুল জারি করেন। রুলে প্রেস কাউন্সিল আইন ১৯৭৪-এর ১১(২)(খ) অনুযায়ী কার্যকর ও উপযুক্ত একটি নৈতিক আচরণবিধি প্রণয়নে নিষ্ক্রিয়তাকে কেন আইনগত কর্তৃত্ব বহির্ভূত ঘোষণা করা হবে না জানতে চাওয়া হয়। সংবাদপত্র ও সংবাদ সংস্থা, সাংবাদিকদের উচ্চ মানসম্পন্ন পেশাদারির জন্য একটি নৈতিক আচরণবিধি করতে কেন নির্দেশ দেওয়া হবে না জানতে চান হাইকোর্ট। এ ছাড়া ন্যাশনাল ব্রডকাস্ট পলিসি-২০১৪ অনুযায়ী একটি ‘ব্রডকাস্টিং কমিশন’ গঠনে যথাযথ পদক্ষেপ নিতে কেন নির্দেশ দেওয়া হবে না জানতে চাওয়া হয়।

তথ্যসচিব, বিটিআরসি চেয়ারম্যান ও বাংলাদেশ প্রেস কাউন্সিলের চেয়ারম্যানকে সাত দিনের মধ্যে এই রুলের জবাব দিতে বলা হয়। এরই ধারাবাহিকতায় সম্পূরক আবেদন করেন রিট আবেদনকারীরা।

এরও আগে গত ৫ মে সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তাদের প্রতি আইনি নোটিশ পাঠান ওই দুই আইনজীবী। নোটিশে সংবাদ প্রকাশের ক্ষেত্রে একটি নৈতিক নীতিমালা করতে বলা হয়। বিভিন্ন অনলাইনে অযাচিত সংবাদ প্রকাশ বন্ধে বিটিআরসি ও প্রেস কাউন্সিল পদক্ষেপ নিতে ব্যর্থ হয়েছে বলেও নোটিশে বলা হয়। এই নোটিশের জবাব না পেয়ে গত জুনে হাইকোর্টে রিট আবেদন করেন তাঁরা।

 



সাতদিনের সেরা