kalerkantho

শনিবার । ৯ শ্রাবণ ১৪২৮। ২৪ জুলাই ২০২১। ১৩ জিলহজ ১৪৪২

বাজেট প্রতিক্রিয়ায় এফবিসিসিআই

অপ্রদর্শিত অর্থ বিনিয়োগের সুযোগ দিন

বাজেট নীতি ও বাস্তবায়ন উইং পৃথক করার দাবি

নিজস্ব প্রতিবেদক   

৬ জুন, ২০২১ ০০:০০ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



অপ্রদর্শিত অর্থ বিনিয়োগের সুযোগ দিন

দেশের শিল্প ও অবকাঠামো খাতের উন্নয়নে একটি নির্দিষ্ট সময়ের জন্য অপ্রদর্শিত অর্থ বিনিয়োগে সুযোগ দিতে সরকারের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন ব্যবসায়ীদের শীর্ষ সংগঠন ফেডারেশন অব বাংলাদেশ চেম্বারস অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রির (এফবিসিসিআই) সভাপতি মো. জসিম উদ্দিন। গতকাল শনিবার রাজধানীর মতিঝিলে এফবিসিসিআই আইকন টাওয়ারে সরকারের প্রস্তাবিত বাজেট নিয়ে প্রতিক্রিয়া জানাতে এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ আহ্বান জানিয়েছেন।

এফবিসিসিআইয়ের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা মাহফুজুর রহমানের সঞ্চালনায় এই সংবাদ সম্মেলনে সংগঠনটির সহসভাপতি আমিন হেলালী, সালাউদ্দিন আলমগীর, হাবিবুল্লাহ ডন, এমসিসিআই সভাপতি ড. নিহাদ কবির, ডিসিসিআই সভাপতি রিজওয়ান রহমানসহ অন্যান্য ব্যবসায়ী নেতা উপস্থিত ছিলেন।

সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে জসিম উদ্দিন বলেন, সরকার চাইলে শিল্প খাতে (উৎপাদন) নির্দিষ্ট সময়ের জন্য কালো টাকা বিনিয়োগের সুযোগ দিতে পারে, তবে এটা যেন সব সময়ের জন্য না হয়। কেননা তাহলে প্রকৃত করদাতারা নিরুৎসাহ হন এবং এক ধরনের বৈষম্য তৈরি হয়।

অগ্রিম আয়করের উদ্যোগকে (এআইটি) বেআইনি উল্লেখ করে তা বাতিলের দাবি জানান এফবিসিসিআই সভাপতি। তিনি বলেন, ‘আগাম কর ব্যবসার খরচ বাড়িয়ে দেয়। এ জন্য আমরা বিদ্যমান ৫ শতাংশ আগাম কর ব্যবস্থা প্রত্যাহারের প্রস্তাব করেছি। অথচ বাজেটে সর্বোচ্চ ২০ শতাংশ এআইটি ধরা হয়েছে, যা সম্পূর্ণ বেআইনি।’

প্রস্তাবিত জাতীয় বাজেটকে দেশি শিল্প সুরক্ষার বাজেট উল্লেখ করে জসিম উদ্দিন বলেন, সরকার দেশি শিল্পের সুরক্ষায় কর অব্যাহতির সুযোগ দিয়ে আসছে। এর প্রভাবে পণ্যের দাম সাধারণ মানুষের নাগালের মধ্যে রয়েছে। দেশে মূল্যস্ফীতি থেকেই বোঝা যায়, সরকার দেশীয় শিল্প সুরক্ষায় কাজ করছে। এটা কর্মসংস্থানে ভূমিকা রাখছে।

এফবিসিসিআই সভাপতি বলেন, ‘পুঁজিবাজারের দীর্ঘদিনের প্রত্যাশা সরকার পূরণ করেছে। নন-লিস্টেড প্রতিষ্ঠানে করহার ৩২.৫ শতাংশ থেকে কমিয়ে ৩০ শতাংশ, লিস্টেড করহার ২৫ শতাংশ থেকে কমিয়ে ২২.৫ শতাংশ করা হয়েছে। একই সঙ্গে একক ব্যক্তি-প্রতিষ্ঠানের করহার ৩২.৫ থেকে কমিয়ে ২৫ শতাংশ করা হয়েছে। এ অবস্থায় ব্যাংক ও বীমা প্রতিষ্ঠানের করহার কমানোর পরামর্শ আমাদের।’

বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের ১৫ শতাংশ আয়কর প্রত্যাহারের দাবি জানিয়ে এফবিসিসিআই সভাপতি বলেন, করোনাকালে বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয় ভীষণভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। এ অবস্থায় তাদের ওপর নির্ধারিত এই আয়কর প্রত্যাহার করা উচিত।

বাজেট বাস্তবায়ন নিয়ে শঙ্কা প্রকাশ করেন জসিম উদ্দিন। তিনি বলেন, ‘যে প্রতিষ্ঠান নীতি প্রণয়ন করে সেই প্রতিষ্ঠান তা বাস্তবায়ন করে না। বিশ্বের কোথাও এমন নজির নেই। এর ফলে স্বার্থের দ্বন্দ্ব হয়। তাই বাজেট নীতি ও বাস্তবায়ন উইং পৃথক করার দাবি জানাচ্ছি আমরা।’ তিনি ভ্যাট আইন বাস্তবায়ন করতে টাস্কফোর্স করার দাবি জানান।