kalerkantho

মঙ্গলবার । ৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৮। ১৮ মে ২০২১। ৫ শাওয়াল ১৪৪

জরুরি চলাচলে লাগবে পুলিশের ‘মুভমেন্ট পাস’

বিধি-নিষেধে থাকবে পুলিশ-র‌্যাবের টহল

নিজস্ব প্রতিবেদক   

১৩ এপ্রিল, ২০২১ ০০:০০ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



জরুরি চলাচলে লাগবে পুলিশের ‘মুভমেন্ট পাস’

করোনা সংক্রমণ রোধে আগামীকাল বুধবার থেকে এক সপ্তাহের কঠোর বিধি-নিষেধ চলাকালে মানুষের ঝুঁকিপূর্ণ চলাচল নিয়ন্ত্রণে টহল দেবে পুলিশ, র‌্যাবসহ আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী। গতকাল প্রজ্ঞাপন জারির আগে ও পরে এ ব্যাপারে সংশ্লিষ্ট বিশেষ নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে।

নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে কাউকে রাস্তায় নামতে দেবে না পুলিশ। বিশেষ বা জরুরি প্রয়োজনের কিছু বিষয় এই নিষেধাজ্ঞার বাইরে রয়েছে। এসব বিষয়ও যাচাই করবে টহলরত পুলিশ। এই সময়ে চলাচলের জন্য পুলিশের কাছ থেকে ‘মুভমেন্ট পাস’ নিতে হবে। অ্যাপের মাধ্যমে এই পাস সংগ্রহ করা যাবে।

সূত্র জানায়, পুলিশ সদর দপ্তরের তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি (আইসিটি) উইংয়ের সমন্বয়ে ‘মুভমেন্ট পাস’ কার্যক্রম শুরু হচ্ছে আজ। জরুরি পণ্য পরিবহন, সেবাদাতা, ব্যবসায়ী ও চাকরিজীবীদের যাচাই-বাছাই করে দেওয়া হবে এই পাস। মুদি দোকানের জন্য কেনাকাটা, কাঁচাবাজার, ওষুধপত্র, চিকিৎসাকাজে নিয়োজিত, কৃষিকাজ, পণ্য পরিবহন ও সরবরাহ, ত্রাণ বিতরণ, পাইকারি/খুচরা ক্রয়, পর্যটন, মৃতদেহ সৎকার, ব্যবসা ও অন্যান্য ক্যাটাগরিতে দেওয়া হবে এই পাস। যাঁদের বাইরে চলাফেরা প্রয়োজন, কিন্তু কোনো ক্যাটাগরিতেই পড়েন না, তাঁদের অন্যান্য ক্যাটাগরিতে পাস দেওয়ার বিষয়টি বিবেচনা করা হবে। পাসটি পেতে আবেদনের জন্য https://movementpass.police.gov.bd/ লিংকে ক্লিক করতে হবে।

আজ মঙ্গলবার রাজারবাগ পুলিশ লাইনসে আনুষ্ঠানিকভাবে ‘মুভমেন্ট পাস’ অ্যাপ্লিকেশনের উদ্বোধন করবেন বাংলাদেশ পুলিশের মহাপরিদর্শক (আইজিপি) ড. বেনজীর আহমেদ।

জানতে চাইলে পুলিশ সদর দপ্তরের সহকারী মহাপরিদর্শক (এআইজি-মিডিয়া) সোহেল রানা কালের কণ্ঠকে বলেন, ‘সরকার যেসব নির্দেশনা দিয়েছে এবং দেবে, তার আলোকেই কাজ করবে পুলিশ। এ ছাড়া করোনাকালে পুলিশের দায়িত্ব পালন সংক্রান্ত আমাদের একটি সুুলিখিত ও আন্তর্জাতিক মানের এসওপি (স্ট্যান্ডিং অপারেটিং প্রসিডিওর) রয়েছে। সেখানে সুস্পষ্টভাবে উল্লেখ রয়েছে পুলিশের দায়িত্ব-কর্তব্য এবং তা পালনের উপায়। সেই এসওপি অনুসরণ করে সরকারি নির্দেশনার আলোকে দায়িত্ব পালন করবে পুলিশ সদস্যরা।’

পুলিশ সদর দপ্তর সূত্র জানায়, করোনা ও হেফাজতে ইসলামের কর্মসূচি নিয়ে গুজব মোকাবেলায় সতর্ক থাকতে বলা হয়েছে। এ কারণে আজ থেকেই পুলিশ নজরদারি বাড়াবে। করোনার বিধি-নিষেধের ব্যাপারে প্রথম দফায় পুলিশ সতর্কতা অবলম্বন করতে পারেনি। এবার সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখাসহ সব ধরনের সুরক্ষাব্যবস্থা গ্রহণ করবে সরকারের নির্দেশনা অনুযায়ী।

গতকাল সরকারি নির্দেশনা বাস্তবায়ন নিয়ে প্রজ্ঞাপনে বলা হয়, সারা দেশে জেলা ও মাঠ প্রশাসন উল্লেখিত নির্দেশনা বাস্তবায়নে কার্যকর পদক্ষেপ নেবে এবং আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী নিয়মিত টহল জোরদার করবে। স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালক তাঁর পক্ষে জেলা প্রশাসন ও পুলিশ বিভাগকে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য প্রয়োজনীয় ক্ষমতা প্রদান করবেন। এ জন্য সব বিভাগের মতো স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় ও পুলিশও সম্পূরক নির্দেশনা জারি করতে পারবে।