kalerkantho

সোমবার । ২৩ ফাল্গুন ১৪২৭। ৮ মার্চ ২০২১। ২৩ রজব ১৪৪২

সেরামের নির্মাণাধীন ভবনে আগুন পাঁচজনের মৃত্যু

‘কোভিশিল্ড উৎপাদনে প্রভাব পড়বে না’

কালের কণ্ঠ ডেস্ক   

২২ জানুয়ারি, ২০২১ ০০:০০ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে




সেরামের নির্মাণাধীন ভবনে আগুন পাঁচজনের মৃত্যু

টিকা উৎপাদনকারী বিশ্বের সর্ববৃহৎ প্রতিষ্ঠান সেরাম ইনস্টিটিউটের একটি নির্মাণাধীন ভবনে অগ্নিকাণ্ডে পাঁচজন মারা গেছেন। ভারতের পুনে শহরে অবস্থিত এই প্রতিষ্ঠানে গতকাল বৃহস্পতিবার বিকেল সোয়া ৩টায় এ দুর্ঘটনা ঘটে। তবে এতে টিকা উৎপাদনে তেমন প্রভাব পড়বে না বলে জানিয়েছেন প্রতিষ্ঠানটির কর্মকর্তারা।

অক্সফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয় ও অ্যাস্ট্রাজেনেকা উদ্ভাবিত করোনার টিকা ‘কোভিশিল্ড’ নামে উৎপাদন করছে ইনস্টিটিউট। প্রতিষ্ঠানটির কাছে এ টিকার তিন কোটি ডোজের ক্রয়াদেশ দিয়েছে বাংলাদেশ। আগামী ২৫ জানুয়ারির মধ্যে টিকার প্রথম চালান দেশে পৌঁছানোর কথা। এরই মধ্যে গতকাল ভারত সরকারের তরফ থেকে কোভিশিল্ডের ২০ লাখ ডোজ উপহার হিসেবে বাংলাদেশকে দেওয়া হয়েছে।

সেরাম ইনস্টিটিউটের অবস্থান পুনে শহরের মঞ্জরি এলাকায় ১০০ একরের বেশি জায়গাজুড়ে। সেখানকার ৮-৯টি ওয়ার্কশপে কোথাও গবেষণা হয়, কোথাও টিকা উৎপাদন হয়, আবার কোথাও টিকা সংরক্ষণ হয়। কভিড ছাড়াও পোলিও, ডিপথেরিয়া, টিটেনাস, হেপাটাইটিস বি, হাম ও রুবেলার টিকাও উৎপাদন করে প্রতিষ্ঠানটি, যা ১৭০টি দেশে রপ্তানি হয়ে থাকে।

গতকাল বিকেল সোয়া ৩টার দিকে সেরামের এক নম্বর টার্মিনাল-সংলগ্ন এসইজেড-৩ ভবনের চতুর্থ ও পঞ্চম তলায় আগুন লাগে। কালো ধোঁয়ায় ঢেকে যায় এলাকা। খবর পেয়ে দমকলকর্মীরা পৌঁছে যান ঘটনাস্থলে। দীর্ঘ তিন ঘণ্টার চেষ্টায় নিয়ন্ত্রণে আসে আগুন। তবে এতে ইনস্টিটিউটের উৎপাদিত কোভিশিল্ড টিকার উৎপাদন ক্ষতিগ্রস্ত হয়নি। যেখানে টিকা উৎপাদিত হয় সেখান থেকে মঞ্জরির ওই ভবনটি কয়েক মিনিট গাড়ির দূরত্বে অবস্থিত।

ভবিষ্যতে জরুরি প্রয়োজনে দ্রুত টিকা উৎপাদনের লক্ষ্যে সেরাম ইনস্টিটিউটের ওই সাইটে অন্তত আটটি নতুন ভবন নির্মাণের কাজ চলছে।

সেখানে টিকা তৈরির পাশাপাশি প্যাকেজিংয়ের ব্যবস্থাও থাকবে। দুর্ঘটনাকবলিত ভবনটিতে টিকা তৈরির কাজ শুরু না হলেও তার প্রস্তুতি চলছিল। প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে, ভবনটিকে প্রস্তুত করার জন্য ওয়েল্ডিংয়ের যে কাজ চলছিল, তা থেকেই আগুন ছিটকে বড় আকার নেয়। অগ্নিকাণ্ডের খবর পেয়ে মহারাষ্ট্রের মুখ্যমন্ত্রী উদ্ধব ঠাকরেও ঘটনাস্থলে ছুটে যান।

গতকাল বিকেলে অগ্নিকাণ্ডে কেউ আহত হননি বলে জানালেও পরে সেরাম ইনস্টিটিউটের প্রধান আদর পুনেওয়ালা  টুইটে  পাঁচজনের প্রাণহানির খবর জানিয়েছেন। তিনি টুইটার বার্তায় বলেন, ‘আমরা দুঃখজনক খবর পেলাম। আগুনে কয়েকজন মারা গেছেন। তাঁদের পরিবারের প্রতি গভীর সমবেদনা জানাচ্ছি।’

এর আগে আদর পুনেওয়ালাও টুইটারে হ্যান্ডলে আশ্বস্ত করেন, ‘এই আগুন লাগার ঘটনা কোভিশিল্ড টিকা তৈরিতে কোনো সমস্যা তৈরি করবে না।’

আদর পুনেওয়ালার বাবা সাইরাজ পুনেওয়ালা ১৯৬৬ সালে সেরাম ইনস্টিটিউট গড়ে তোলেন। গড়ে প্রতিবছর ১৫০ কোটি ডোজ টিকা উৎপাদন করে এই প্রতিষ্ঠান। অক্সফোর্ডের টিকা ছাড়াও ওষুধ প্রস্তুতকারী মার্কিন প্রতিষ্ঠান নোভাভ্যাক্সের করোনার টিকাও উৎপাদনের ঘোষণা দিয়েছে সেরাম। সূত্র : আনন্দবাজার, এনডিটিভি, রয়টার্স।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা