kalerkantho

বুধবার । ১৮ ফাল্গুন ১৪২৭। ৩ মার্চ ২০২১। ১৮ রজব ১৪৪২

বাইডেনের প্রণোদনা পরিকল্পনা

কালের কণ্ঠ ডেস্ক   

১৬ জানুয়ারি, ২০২১ ০০:০০ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



বাইডেনের প্রণোদনা পরিকল্পনা

প্রেসিডেন্ট হিসেবে দায়িত্ব গ্রহণের মাত্র ছয় দিন আগে করোনা মোকাবেলা ও ক্ষতিগ্রস্ত মার্কিন অর্থনীতি মেরামতে ১.৯ ট্রিলিয়ন বা এক লাখ ৯০ হাজার কোটি ডলারের প্রণোদনা পরিকল্পনার কথা জানালেন যুক্তরাষ্ট্রের নবনির্বাচিত প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন। আগামী ২০ জানুয়ারি দায়িত্ব নেওয়ার পর কংগ্রেসে এই পরিকল্পনা পাস করানোর বিষয়টিই অগ্রাধিকার পাবে তাঁর প্রশাসনের কাছে।

তবে এরই মধ্যে বাইডেনের প্রথম ১০০ দিনের অগ্রাধিকারের এই এজেন্ডার ওপর বিদায়ি প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের অভিশংসনের ছায়া পড়তে পারে। গত বুধবার নিম্নকক্ষ প্রতিনিধি পরিষদে অভিশংসিত হয়েছেন ট্রাম্প। এখন তাঁর চূড়ান্ত ভাগ্য নির্ধারিত হবে সিনেটে। এ নিয়ে সিনেটররা ব্যস্ত থাকায় অন্যান্য রুটিন কাজ সময়মতো না হওয়ার শঙ্কা দেখা দিয়েছে। এ অবস্থায় বাইডেন গত বৃহস্পতিবার প্রণোদনার পরিকল্পনা সামনে আনার সময় এও বলেন, ‘আমি আশা করি, অভিশংসন প্রশ্নে সাংবিধানিক দায়িত্ব পালন এবং জাতির জন্য অন্যান্য গুরুত্বপূর্ণ কাজগুলো সম্পন্নে সিনেট নেতৃত্ব কোনো পথ খুঁজে বের করবেন।’

ট্রাম্পের অভিশংসনের পরের দিন বাইডেন এই প্রণোদনা পরিকল্পনা হাজির করলেন। এ সময় তিনি জাতির জন্য ‘নতুন অধ্যায়ের’ সূচনার প্রতিশ্রুতি দেন। তাঁর প্রণোদনা পরিকল্পনায় মার্কিন পরিবারগুলোর জন্য এক ট্রিলিয়ন বা এক লাখ কোটি ডলার বরাদ্দ রাখা হয়েছে। প্রণোদনা পরিকল্পনাটি কংগ্রেসে পাস হলে মার্কিন নাগরিকরা এককালীন এক হাজার ৪০০ ডলার করে পাবেন। তবে এর সঙ্গে ট্রাম্প প্রশাসনের গত মাসে দেওয়া ৬০০ ডলারও যুক্ত হবে। সব মিলিয়ে দুই হাজার ডলার করে পাবেন মার্কিন নাগরিকরা।

প্রণোদনায় করোনাভাইরাসের বিরুদ্ধে লড়াইয়ে ৪১৫ বিলিয়ন ডলার এবং ক্ষুদ্র ব্যবসায়ীদের জন্য ৪৪০ বিলিয়ন ডলার রাখা হয়েছে।

করোনাভাইরাসে এরই মধ্যে দেশটিতে তিন লাখ ৮৫ হাজারের বেশি মানুষের মৃত্যু হয়েছে। যুক্তরাষ্ট্র থেকে প্রাণঘাতী এই মহামারিকে হটিয়ে দেওয়ার প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন ডেমোক্র্যাট বাইডেন। গত বছর নির্বাচনী প্রচারণার সময় তিনি এই প্রতিশ্রুতি দেন।

এমন এক সময়ে নবনির্বাচিত প্রেসিডেন্ট বাইডেন তাঁর প্রণোদনা পরিকল্পনা হাজির করলেন, যখন যুক্তরাষ্ট্রজুড়ে নতুন করে করোনাভাইরাসের প্রকোপ বাড়ছে। দেশটিতে এখন প্রতিদিনই দুই লাখের বেশি নতুন কভিড-১৯ রোগী শনাক্ত হচ্ছে। কোনো কোনো দিন মৃত্যু ছাড়িয়ে যাচ্ছে চার হাজারের ঘর।

বাইডেনের প্রণোদনায় টিকাদান কর্মসূচিতে আরো ২০ বিলিয়ন ডলার যুক্ত করার প্রস্তাব করা হয়েছে।

ট্রাম্প প্রশাসন এরই মধ্যে করোনাভাইরাসের দুটি টিকার প্রয়োগ শুরু করেছে, যদিও এই টিকাদান কর্মসূচির গতি নিয়ে হতাশা আছে।

বাইডেন জানিয়েছেন, তিনি দায়িত্ব নেওয়ার ১০০ দিনের মধ্যেই ১০ কোটি নাগরিককে টিকা দেওয়ার লক্ষ্যমাত্রা ঠিক করেছেন।

তাঁর প্রণোদনা পরিকল্পনায় করোনার পরীক্ষার আওতা বাড়াতে ৫০ বিলিয়ন এবং বসন্তে স্কুল খুলতে সহায়তা বাবদ ১৩০ বিলিয়ন ডলার বরাদ্দ রাখা হয়েছে।

বাইডেনের এই প্রণোদনা পরিকল্পনা নিয়ে রিপাবলিকানদের একাংশ আপত্তি জানাতে পারে। তবে এর পরও কংগ্রেসের উভয় কক্ষেই এটি পাস হবে বলে মনে করা হচ্ছে।

প্রতিনিধি পরিষদে ডেমোক্র্যাটদের সংখ্যাগরিষ্ঠতা আছে। জর্জিয়ার দুই আসনে হেরে রিপাবলিকানরাও সিনেটের একচেটিয়া নিয়ন্ত্রণ হারিয়েছে। সূত্র : এএফপি, রয়টার্স, বিবিসি।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা