kalerkantho

রবিবার। ৩ মাঘ ১৪২৭। ১৭ জানুয়ারি ২০২১। ৩ জমাদিউস সানি ১৪৪২

আয়কর রিটার্ন জমার সময় বাড়ল

নিজস্ব প্রতিবেদক   

১ ডিসেম্বর, ২০২০ ০০:০০ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



আয়কর রিটার্ন জমার সময় বাড়ল

আয়কর জমা দেওয়ার ঘোষিত শেষ দিন ছিল গতকাল। ফলে কর অঞ্চলগুলোতে ছিল উপচে পড়া ভিড়। অবশ্য দিনশেষে সময়সীমা বাড়ানো হয়েছে আরো এক মাস। গতকাল রাজধানীর কর অঞ্চল-৪ থেকে তোলা। ছবি : কালের কণ্ঠ

করোনাভাইরাস মহামারির কারণে আর্থিক ও স্বাস্থ্যগত সংকটে আছেন সাধারণ করদাতারা। নানামুখী সমস্যার কারণে এবার অনেকেই পূর্বনির্ধারিত সময়ের মধ্যে আয়কর রিটার্ন দাখিল করতে ব্যর্থ হন। বিভিন্ন অবস্থান থেকে জোরালো দাবি ওঠে রিটার্ন জমার সময়সীমা বাড়ানোর; কিন্তু গত রবিবার পর্যন্তও জাতীয় রাজস্ব বোর্ড (এনবিআর) সময় না বাড়ানোর সিদ্ধান্তে অনড় থাকে। শেষ পর্যন্ত সরকারের ঊর্ধ্বতন মহলের নির্দেশে রিটার্ন দাখিলের সময় ৩১ ডিসেম্বর পর্যন্ত বাড়ানো হয়েছে।

গতকাল সোমবার বিকেলে এনবিআরের দ্বিতীয় সচিব মহিদুল ইসলাম চৌধুরী স্বাক্ষরিত এক আদেশে বলা হয়, আয়কর অধ্যাদেশ ১৯৮৪-এর ধারা ১৮৪ (জি)-তে প্রদত্ত ক্ষমতাবলে কভিড পরিস্থিতিতে সৃষ্ট অসুবিধা বিবেচনায় নিয়ে ব্যক্তিশ্রেণির করদাতার ২০২০-২১ করবছরের আয়কর রিটার্ন দাখিলের সময় ৩১ ডিসেম্বর পর্যন্ত বাড়ানো হয়েছে। 

আয়কর দিবস উদযাপনের অংশ হিসেবে গতকাল এনবিআরের প্রধান কার্যালয়ের সম্মেলনকক্ষে আয়োজিত এক সেমিনারে এনবিআর চেয়ারম্যান আবু হেনা মো. রহমাতুল মুনিমও রিটার্ন জমার সময় বাড়ানোর কথা জানান। তিনি বলেন, করোনা পরিস্থিতি বিবেচনায় এবার রিটার্ন দাখিলের সময় বাড়াতে বিভিন্ন মহল থেকে আবেদন করা হয়েছে। ঊর্ধ্বতন মহলের নির্দেশে ৩১ ডিসেম্বর পর্যন্ত রিটার্ন দাখিলের সময় বাড়ানো হয়েছে।

এনবিআর চেয়ারম্যান বলেন, ‘এনবিআর করবান্ধব পরিবেশ সৃষ্টিতে কাজ করে চলেছে। দুর্নীতিমুক্ত স্বচ্ছ পরিবেশ নিশ্চিত হলে কর আদায় ও করদাতার সংখ্যা বাড়বে। রাজস্ব আহরণে আমরা আরো ডিজিটাল মাধ্যমে যাচ্ছি। সঠিক আয়ের তথ্য ও অডিট রিপোর্ট পাওয়া গেলে করপোরেট কর আরো কমানো হবে।’

এর আগে সকালে ভার্চুয়াল মাধ্যমে সেমিনারটির উদ্বোধন করেন অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল। সেমিনারে অনলাইনে মতামত জানান বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক উপাচার্য প্রফেসর ড. প্রাণ গোপাল দত্ত, বিআইডিএসের সিনিয়র রিসার্চ ফেলো ড. নাজনিন আহমেদ, আইসিএবির প্রেসিডেন্ট মুহাম্মদ ফারুকসহ অনেকে। মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন এনবিআর সদস্য (করনীতি) মো. আলমগীর হোসেন। সেমিনারে এনবিআরের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

এনবিআরের সর্বশেষ হিসাবে ২৯ নভেম্বর পর্যন্ত দাখিল করা রিটার্নের সংখ্যা ১৫ লাখ চার হাজার ২০৬টি। গত বছর রিটার্ন দাখিলের সংখ্যা ছিল ১৪ লাখ ৬৫ হাজার ৪৭২টি। ২৯ নভেম্বর পর্যন্ত কর আদায়ের পরিমাণ দুই হাজার ৫৩৪ কোটি টাকা, যা গত বছর ছিল দুই হাজার ৭৭৩ কোটি টাকা।

সরেজমিনে গতকাল বিভিন্ন কর অঞ্চল ঘুরে করদাতাদের উপচে পড়া ভিড় লক্ষ করা গেছে। রিটার্ন জমার সময় বাড়ানো হবে না—এনবিআর চেয়ারম্যান গত রবিবার এমন ঘোষণা দেওয়ায় পূর্বনির্ধারিত শেষ দিনে গতকাল অনেকেই ছুটে আসেন রিটার্ন দাখিল করতে। রাজধানীর সেগুনবাগিচায় বেশির ভাগ কর অঞ্চল হওয়ায় এলাকায় রিটার্ন জমা দিতে আসা করদাতাদের ভিড়ে যানজট দেখা দেয়। প্রয়োজনীয় প্রস্তুতি না নিতে পারায় অনেকে আবার রিটার্ন জমার সময় বাড়ানোর আবেদন করতে আসেন। দীর্ঘ লাইনে দাঁড়িয়ে করদাতারা রিটার্ন জমা দেন।

 

মন্তব্য