kalerkantho

রবিবার । ১৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৭। ২৯ নভেম্বর ২০২০। ১৩ রবিউস সানি ১৪৪২

মন্ত্রিসভার বৈঠক

রাষ্ট্রপতির ভাষণ অনুমোদনের জন্য উঠছে আজ

২০২১ সালের সরকারি ছুটির তালিকা চূড়ান্ত

বাহরাম খান   

২৫ অক্টোবর, ২০২০ ০০:০০ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



রাষ্ট্রপতির ভাষণ অনুমোদনের জন্য উঠছে আজ

জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী উপলক্ষে আগামী ৮ নভেম্বর বসছে জাতীয় সংসদের বিশেষ অধিবেশন। এই অধিবেশনে রাষ্ট্রপতি যে ভাষণ দেবেন তা অনুমোদনের জন্য আজ রবিবার মন্ত্রিসভার বৈঠকে উঠছে। সংশ্লিষ্ট সূত্র জানিয়েছে, রাষ্ট্রপতির ভাষণ অনুমোদনের জন্যই জরুরি ভিত্তিতে বৈঠকটি ডাকা হয়েছে। এ ছাড়া জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের ২০২১ সালের সরকারি ছুটির তালিকাও এই বৈঠকে উঠতে পারে।

মন্ত্রিসভার সাপ্তাহিক বৈঠক সাধারণত প্রতি সোমবার অনুষ্ঠিত হয়ে থাকে। দুর্গাপূজার কারণে আগামীকাল সোমবার সরকারি ছুটি। তাই চলতি সপ্তাহের মন্ত্রিসভার বৈঠক এক দিন এগিয়ে আজ অনুষ্ঠিত হচ্ছে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা গণভবন থেকে এবং সংশ্লিষ্ট মন্ত্রীরা সচিবালয়ে উপস্থিত থেকে মন্ত্রিসভার ভার্চুয়াল বৈঠকে অংশ নেবেন। দুপুর সাড়ে ১২টায় বৈঠকের সময় নির্ধারিত রয়েছে।

জানা গেছে, জাতির পিতার জীবনব্যাপী অর্জনের বিষয়গুলো গুরুত্ব দিয়ে স্থান পাচ্ছে রাষ্ট্রপতির ভাষণে। বিশেষ করে সম্পূর্ণ নতুন একটি রাষ্ট্র গঠনের সময়ে অর্থনীতি, রাজনীতি, কূটনীতি সংস্কৃতিসহ জাতীয় ও আন্তর্জাতিক পর্যায়ে বঙ্গবন্ধু কিভাবে নানা সমস্যা মোকাবেলা করে বিশ্বের বুকে বাংলাদেশকে এগিয়ে নিয়ে গেছেন তা সবিস্তারে তুলে ধরবেন রাষ্ট্রপতি।

রাষ্ট্রপতির ভাষণে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে আধুনিক বাংলাদেশ হিসেবে বিশ্বের বুকে এগিয়ে যাওয়ার দৃশ্যপটও উঠে আসবে। বিশেষ করে করোনাভাইরাস সংকট শেখ হাসিনার নেতৃত্ব যেভাবে সামাল দিয়ে যাচ্ছে, তার বিশেষ প্রশংসা থাকছে ভাষণে। উঠে আসবে অর্থনৈতিক অগ্রগতির প্রসঙ্গও।

২০২১ সালের ছুটি : ২০২১ সালের সরকারি ছুটির তালিকা চূড়ান্ত করেছে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়। খসড়া তালিকা অনুযায়ী, ২০২১ সালে সাধারণ ছুটি ১৪ দিন ও নির্বাহী আদেশে ছুটি আট দিন। মোট ২২ দিন সাধারণ ও নির্বাহী আদেশের ছুটি হলেও এর মধ্যে শুক্র ও শনিবারের সাপ্তাহিক ছুটি রয়েছে সাত দিন। এসংক্রান্ত খসড়া ক্যালেন্ডার মন্ত্রিসভায় উঠানোর অনুমোদন দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী। মন্ত্রিসভার অনুমোদন সাপেক্ষে এ বিষয়ে প্রজ্ঞাপন জারি করবে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়। এরপরই ২০২১ খ্রিস্টাব্দের ক্যালেন্ডার ছাপানোর প্রক্রিয়া শুরু হবে।

তালিকা অনুযায়ী, শবেবরাত ২৯ মার্চ সোমবার, শবেকদর ১০ মে সোমবার, ঈদুল ফিতর ১৩ মে বৃহস্পতিবার, ঈদুল আজহা ২০ জুলাই মঙ্গলবার, আশুরা ১৯ আগস্ট বৃহস্পতিবার, ঈদে মিলাদুন্নবী (সা.) ১৯ অক্টোবর মঙ্গলবার। তবে চাঁদ দেখাসাপেক্ষে এগুলো এক দিন এদিক-ওদিক হয়ে থাকে, যা ক্যালেন্ডারে উল্লেখ করা থাকে। ধর্মীয় পর্ব উপলক্ষে প্রজাতন্ত্রের কর্মচারীদের তিন দিনের ঐচ্ছিক ছুটি ভোগের সুযোগ রয়েছে। একইভাবে পার্বত্য চট্টগ্রাম এলাকা ও এর বাইরে কর্মরত বিভিন্ন ক্ষুদ্র নৃগোষ্ঠীর অন্তর্ভুক্ত কর্মচারীদের প্রধান সামাজিক উৎসব বৈসাবি বা অনুরূপ সামাজিক উৎসব উপলক্ষে দুই দিনের ঐচ্ছিক ছুটির বিধান রয়েছে।

বিভিন্ন জাতীয় দিবস ও বিভিন্ন সম্প্রদায়ের গুরুত্বপূর্ণ ধর্মীয় দিবসের ছুটি সাধারণ ছুটির অন্তর্ভুক্ত। এর মধ্যে সাপ্তাহিক ছুটি চারটি শুক্রবার ও দুটি শনিবার অন্তর্ভুক্ত রয়েছে। বাংলা নববর্ষ ও বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ ধর্মীয় দিবস উপলক্ষে আট দিন নির্বাহী আদেশে সরকারি ছুটি থাকবে। নির্বাহী আদেশে ছুটির মধ্যে এক দিন সাপ্তাহিক ছুটি (শনিবার) রয়েছে। সাধারণ ছুটি ও নির্বাহী আদেশের ছুটি ২২ দিন হলেও সাপ্তাহিক ছুটি শুক্র ও শনিবারের কারণে এই ছুটি কার্যত ১৫ দিন।

 

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা