kalerkantho

শনিবার । ১৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৭। ২৮ নভেম্বর ২০২০। ১২ রবিউস সানি ১৪৪২

কাশি নিয়েই সমাবেশে যাবেন ট্রাম্প

কালের কণ্ঠ ডেস্ক   

১০ অক্টোবর, ২০২০ ০০:০০ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



কাশি নিয়েই সমাবেশে যাবেন ট্রাম্প

করোনা থেকে সবে সেরে ওঠা মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প আজ শনিবার থেকেই নির্বাচনী সমাবেশে অংশ নেওয়ার ঘোষণা দিয়েছেন। যদিও ট্রাম্প শারীরিক ও মানসিকভাবে পুরোপুরি সুস্থ কি না, তা নিয়ে বিরোধী ডেমোক্রেটিক দলের অনেক নেতাই সন্দিহান। এমনকি ট্রাম্পের সুস্থতা নিশ্চিত হতে একটি কমিশন গঠন করার প্রস্তাবও উঠেছে।

আগামী ৩ নভেম্বর যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট নির্বাচন। তাতে ট্রাম্পের প্রতিদ্বন্দ্বী হিসেবে আছেন ডেমোক্র্যাট নেতা জো বাইডেন। যুক্তরাষ্ট্রে এখন চলছে নির্বাচনী সভা-সমাবেশ। এর মধ্যে গত ১ অক্টোবর সস্ত্রীক করোনায় আক্রান্ত হন ট্রাম্প। তিনি তিন দিন ভর্তি ছিলেন একটি সামরিক হাসপাতালে। হোয়াইট হাউসে ফিরেছেন গত সোমবার। তবে ট্রাম্প যেসব কথাবার্তা বলছেন, তাতে অনেকেই মনে করে যে তিনি এখনো পুরোপুরি সুস্থ নন। মার্কিন গণমাধ্যমের খবর, ট্রাম্পের সুস্থতা নিশ্চিত হতে একটি কমিটি গঠনের প্রস্তাব দিতে যাচ্ছেন ডেমোক্র্যাট নেতা ও হাউস স্পিকার ন্যান্সি পেলোসি। গত রাতে প্রস্তাবটি পার্লামেন্টে উত্থাপন হওয়ার কথা। মার্কিন সংবিধানের ২৫তম সংশোধনীর আলোকে এই কমিশন গঠনের কথা উঠেছে। ২৫তম সংশোধনীতে বলা হয়েছে, প্রেসিডেন্ট দায়িত্ব পালনে অক্ষম হলে সাময়িকভাবে তিনি ভাইস প্রেসিডেন্টের হাতে ক্ষমতা হস্তান্তর করতে পারেন। যখন আবার দায়িত্ব পালনে সক্ষম হবেন, তখন আবার এই ক্ষমতা ফিরিয়ে নিতে পারেন।

গতকাল ফক্স নিউজে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে এসব বিষয়ে কথা বলেন ট্রাম্প। নিজের শারীরিক সুস্থতা দাবি করে তিনি বলেন, ‘আমি ভাবছি, শনিবার রাতে একটি নির্বাচনী সমাবেশ করা যায় কি না। যদি সব কিছু গুছিয়ে আনতে পারি, তাহলে সমাবেশ করব। আর এটা খুব সম্ভবত ফ্লোরিডায় হবে।’

সাক্ষাৎকার দেওয়ার সময় একটু পরপরই কাশি দিচ্ছিলেন করোনাভাইরাসকে প্রতিনিয়ত তাচ্ছিল্য করা ট্রাম্প। তিনি বলেন, ‘পরের দিন (রবিবার) পেনসিলভানিয়ায় আমি আরেকটি সমাবেশ করতে পারি।’

এদিকে বৃহস্পতিবার ট্রাম্পকে নির্বাচনী সমাবেশে যাওয়ার অনুমতি দিয়েছেন তাঁর চিকিৎসক সিন কলনি। তিনি বলেন, ‘ট্রাম্প করোনায় আক্রান্ত হয়েছিলেন ১ অক্টোবর। শনিবার ১০ দিন পূর্ণ হবে। আমরা পরীক্ষা-নিরীক্ষা করে দেখেছি, তিনি পুরোপুরি সুস্থ। তিনি চাইলে নির্বাচনী সমাবেশ করতে পারবেন।’

নির্বাচনের আগে বরাবরের মতো এবারও ট্রাম্প ও বাইডেনের মধ্যে তিনটি টেলিভিশন বিতর্ক হওয়ার কথা ছিল। প্রথম বিতর্ক এরই মধ্যে সম্পন্ন হয়েছে। দ্বিতীয় ও তৃতীয় বিতর্ক হওয়ার কথা ১৫ ও ১২ অক্টোবর। এর মধ্যে ১৫ অক্টোবরের বিতর্কে অংশ না নেওয়ার ঘোষণা দিয়েছেন ট্রাম্প।

এদিকে জনমত জরিপে ট্রাম্পের চেয়ে এগিয়ে থাকা বাইডেন এখন ব্যস্ত সময় পার করছেন। গত বৃহস্পতিবার আরিজোনায় বিশাল সমাবেশ করেছেন তিনি। সূত্র : এএফপি।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা