kalerkantho

রবিবার । ৯ কার্তিক ১৪২৭। ২৫ অক্টোবর ২০২০। ৭ রবিউল আউয়াল ১৪৪২

করোনার দ্বিতীয় ঢেউ মোকাবেলায় প্রস্তুতির নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর

নিজস্ব প্রতিবেদক   

২২ সেপ্টেম্বর, ২০২০ ০০:০০ | পড়া যাবে ৪ মিনিটে



করোনার দ্বিতীয় ঢেউ মোকাবেলায় প্রস্তুতির নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর

আগামী অক্টোবরের শেষে ও নভেম্বরে দ্বিতীয় দফায় করোনাভাইরাস সংক্রমণের আশঙ্কা করছে সরকার। এ জন্য বর্তমান অভিজ্ঞতা কাজে লাগিয়ে দ্বিতীয় সংক্রমণ প্রতিরোধের জন্য প্রস্তুতি নিয়ে রাখার নির্দেশ দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। একই সঙ্গে অনেকে মাস্ক পরা কমিয়ে দেওয়ায় উদ্বেগ প্রকাশ করে তিনি সবার মাস্ক পরা নিশ্চিত করার বিষয়টিতে গুরুত্ব দিতে সংশ্লিষ্টদের নির্দেশ দিয়েছেন।

গতকাল সোমবার মন্ত্রিসভার ভার্চুয়াল বৈঠকে প্রধানমন্ত্রী এসব নির্দেশ দেন। প্রধানমন্ত্রী গণভবন থেকে এবং সংশ্লিষ্ট মন্ত্রীরা সচিবালয়ে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ থেকে এই ভার্চুয়াল বৈঠকে যুক্ত হন। বৈঠক শেষে মন্ত্রিপরিষদসচিব খন্দকার আনোয়ারুল ইসলাম সাংবাদিকদের ব্রিফ করেন।

প্রধানমন্ত্রীর বরাত দিয়ে মন্ত্রিপরিষদসচিব বলেন, অক্টোবরের শেষে ও নভেম্বরের প্রথম দিকে শীত শুরু হয়ে যায়। শীতের সময়ে দ্বিতীয় দফায়  করোনাভাইরাস সংক্রমণের আশঙ্কা করা হচ্ছে।

বর্তমান অভিজ্ঞতার আলোকে পরবর্তী সংক্রমণ প্রতিরোধের জন্য প্রস্তুতি নিতে নির্দেশ দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী। প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশের পরিপ্রেক্ষিতে আজ মঙ্গলবার সচিবালয়ের মন্ত্রিপরিষদ বিভাগে আন্ত মন্ত্রণালয় বৈঠক ডাকা হয়েছে। বিকেল ৪টায় অনুষ্ঠেয় বৈঠকে সভাপতিত্ব করবেন মন্ত্রিপরিষদসচিব।

করোনা সচেতনতায় পর্যাপ্ত উদ্যোগ নেই কেন—এমন প্রশ্নের জবাবে মন্ত্রিপরিষদসচিব বলেন, জেলা তথ্য অফিসের মাধ্যমে করোনাসংক্রান্ত সচেতনতামূলক কার্যক্রম শুরু হয়েছে। এ ছাড়া গ্রামপর্যায়ে মসজিদে যাদের মাইক আছে বা নাই, তাদের সবার পক্ষ থেকে প্রতিদিন জোহর এবং মাগরিবে অন্তত দুইবার করোনা বিষয়ে সচেতনতামূলক তথ্য প্রচারের জন্য ধর্ম মন্ত্রণালয়কে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। তারা ইসলামিক ফাউন্ডেশনের মাধ্যমে এই বিষয়ে ব্যবস্থা নিচ্ছে।

ব্যক্তিগত অভিজ্ঞতা জানাতে গিয়ে খন্দকার আনোয়ারুল ইসলাম বলেন, ঢাকায় একটি মার্কেটে গিয়ে দেখি, বেশির ভাগ মানুষের মুখেই মাস্ক নেই। তখন মার্কেট কর্তৃপক্ষকে বলা হয়েছে, নিয়ম মেনে যেন মানুষ মার্কেটে ঢুকে, তা নিশ্চিত করতে হবে। না হয় আমরা অ্যাকশন নেব।

এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, দেশব্যাপী করোনা সচেতনতাসহ প্রয়োজনীয় কার্যক্রম চলছে। মোবাইল কোর্টও পরিচালিত হচ্ছে। বিশেষজ্ঞদের তথ্য অনুযায়ী, দুই পক্ষই যদি মাস্ক পরা থাকে, তাহলে ৯৫ থেকে ৯৮ শতাংশ নিরাপদ থাকা যায়। আর এক পক্ষ থেকে মাস্ক থাকলে ৬০ থেকে ৬৫ শতাংশ নিরাপদ। মাস্ক যদি না পরে, তাহলে কিন্তু কোনো কিছুই সফল হবে না। এ জন্য সবাইকে মাস্ক পরায় উদ্বুদ্ধ করতে প্রধানমন্ত্রী নির্দেশ দিয়েছেন।

মন্ত্রিসভা বৈঠকে ‘শেখ হাসিনা মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয় আইন, খুলনা, ২০২০’-এর খসড়া, ‘চিকিৎসক ডিগ্রি (রহিতকরণ) আইন-২০২০’-এর খসড়া এবং ‘বাংলাদেশ পর্যটন করপোরেশন আইন-২০২০’-এর চূড়ান্ত অনুমোদন দিয়েছে মন্ত্রিসভা।

মন্ত্রিপরিষদসচিব জানান, খুলনায় মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিষ্ঠার পর খুলনা বিভাগে থাকা মেডিক্যাল কলেজসহ চিকিত্সাসংক্রান্ত প্রতিষ্ঠানগুলো এই বিশ্ববিদ্যালয়ের অধীনে চলে যাবে। এ ছাড়া গতকালের বৈঠকে, ‘সেন্ট কিটস অ্যান্ড নেভিস’ এবং ‘কমনওয়েলথ অব ডোমিনিকা’ নামক ক্যারিবীয় দ্বীপপুঞ্জের দুটি ছোট রাষ্ট্রের সঙ্গে বাংলাদেশের কূটনৈতিক সম্পর্ক স্থাপনের সিদ্ধান্ত হয়েছে। ‘সেন্ট কিটস অ্যান্ড নেভিস’ ৫৫ হাজার ও ‘কমনওয়েলথ অব ডোমিনিকা’য় ৭৫ হাজার মানুষের বাস। এসব দেশে কিছু বাংলাদেশি বিভিন্ন সূত্রে কাজ করেন।

শেখ মুজিব : এ নেশনস ফাদার বইয়ের মোড়ক উন্মোচন

প্রধানমন্ত্রী মন্ত্রিসভার বৈঠকের আগে “শেখ মুজিব : এ নেশন’স ফাদার” শীর্ষক একটি বইয়ের মোড়ক উন্মোচন করেন। প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয় জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী উপলক্ষে সচিত্র বইটি প্রকাশ করেছে। বইটির উপদেষ্টা সম্পাদক প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রী ইমরান আহমেদ এবং বইটির সম্পাদক বদরুন্নেসা আহমেদ ফাউন্ডেশনের চেয়ারম্যান ও ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক উপ-উপাচার্য ড. নাসরিন আহমেদ এ সময় উপস্থিত ছিলেন।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা