kalerkantho

মঙ্গলবার । ২৭ শ্রাবণ ১৪২৭। ১১ আগস্ট ২০২০ । ২০ জিলহজ ১৪৪১

সহজ শর্তে ব্যাংকঋণ পাবেন দেশে ফেরত আসা প্রবাসীরা

হায়দার আলী   

১৪ জুলাই, ২০২০ ০০:০০ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



সহজ শর্তে ব্যাংকঋণ পাবেন দেশে ফেরত আসা প্রবাসীরা

‘করোনা মহামারিতে সারা পৃথিবীতেই অর্থনৈতিক মন্দার প্রভাব পড়েছে। এর ধাক্কা লেগেছে আমাদের শ্রমবাজারেও। পরিস্থিতি কোথায় গিয়ে ঠেকবে, সেটা এখনো আমরা জানি না। যেসব দেশে আমাদের শ্রমবাজার আছে, সেসব দেশে প্রতিনিয়ত আমরা যোগাযোগ রাখছি। শ্রমবাজার খোলার বিষয়ে মালয়েশিয়ার সংশ্লিষ্ট মন্ত্রীর সঙ্গে রেগুলার কথা বলছি, চিঠি আদান-প্রদান করছি। মার্কেট রেডি হওয়ার সঙ্গে সঙ্গে যেন আমরা সেখানে কর্মী পাঠাতে পারি, সেই প্রাথমিক কাজটি কিন্তু আমরা সম্পন্ন করে রাখছি’, কালের কণ্ঠকে কথাগুলো বলছিলেন প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রী ইমরান আহমদ।

কালের কণ্ঠ’র সঙ্গে আলাপকালে মধ্যপ্রাচ্যের শ্রমিকদের বর্তমান অবস্থা প্রসঙ্গে প্রবাসী কল্যাণ মন্ত্রী বলেন, ‘আমাদের সবচেয়ে বড় শ্রমবাজার সৌদি আরব। সেখানে ২০ লাখের বেশি প্রবাসী কর্মী আছেন। সেই প্রবাসী শ্রমিকরা যেন সেখানে সুন্দরভাবে থাকতে পারেন, কর্মসংস্থানের সুযোগ দেওয়া হয়, সে বিষয়ে আমাদের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় এবং আমাদের সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা কাজ করছেন। তেলসমৃদ্ধ দেশ সৌদি আরবসহ বেশ কয়েকটি দেশে তেলের দাম কমে যাওয়া এবং করোনা উদ্ভূত পরিস্থিতিতে সে দেশের বিভিন্ন কম্পানিতে কর্মী ছাঁটাই করা হচ্ছে। এসব কারণে আমাদের কর্মীদের অনেকেই কিছুটা সমস্যায় আছেন। কিন্তু আশা করছি, এসব সমস্যা দ্রুতই কেটে যাবে।’

সৌদি আরব থেকে ছুটিতে দেশে আসা প্রবাসী শ্রমিকদের পুনরায় সৌদি আরব যেতে সমস্যা হবে না জানিয়ে প্রবাসী কল্যাণ মন্ত্রী বলেন, ‘সৌদি আরব থেকে যেসব প্রবাসী ছুটিতে বাংলাদেশে এসেছিল এবং করোনার কারণে ভিসার মেয়াদ শেষ হয়ে গেছে, সেসব প্রবাসীর সৌদি আরব যেতে কোনো সমস্যা হবে না। কারণ ইতিমধ্যে সৌদি আরব সরকার তিন মাসের ভিসা-আকামার মেয়াদ বাড়িয়েছে। সুতরাং এটা নিয়ে প্রবাসীদের চিন্তার কোনো কারণ নেই। বিশেষ করে মালয়েশিয়া ও মধ্যপ্রাচ্যের বিভিন্ন দেশে যারা আটকে আছে, কাজ নেই, ওই শ্রমিকদের কিভাবে কাজে লাগানো যায়, অন্য কারখানা কিংবা শিল্পপ্রতিষ্ঠানে কাজে লাগানো যায় কি না, সেই বিষয়ে আমরা কাজ করছি।’

দেশে ফেরত আসা শ্রমিকদের পুনর্বাসনের বিষয়ে মন্ত্রী ইমরান আহমদ বলেন, ‘করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাবে বেশি ক্ষতিগ্রস্ত প্রবাসী শ্রমিকরা। দেশে ফেরত আসা এসব প্রবাসীকর্মীকে সহজ শর্তে ঋণ দেওয়ার উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। আগামী ১২ জুলাই প্রবাসীকল্যাণ ব্যাংকের সঙ্গে একটি চুক্তি হবে। সেই চুক্তির পর খুবই সহজ শর্তে প্রবাসীদের ঋণ দেওয়া হবে, যেন দেশে ফেরত আসা প্রবাসী শ্রমিকরা অল্প সুদে ঋণ নিয়ে নিজেরাই দেশে স্বাবলম্বী হতে পারে।’

প্রবাসী কল্যাণ মন্ত্রী বলেন, ‘বর্তমান পরিস্থিতিতে বিদেশে অবস্থানরত বাংলাদেশিদের সুরক্ষা ও করোনা-উত্তর পরিস্থিতিতে আন্তর্জাতিক শ্রমবাজার সুরক্ষায় বিভিন্ন দেশের মন্ত্রীদের সঙ্গে আলোচনা অব্যাহত রয়েছে। প্রবাসী কর্মীদের সুরক্ষায় সততা, দক্ষতা ও নিষ্ঠার সঙ্গে প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনা বাস্তবায়নে আমরা কাজ করে যাচ্ছি।’

 

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা