kalerkantho

মঙ্গলবার । ২৩ আষাঢ় ১৪২৭। ৭ জুলাই ২০২০। ১৫ জিলকদ  ১৪৪১

প্রথম রেড জোন কক্সবাজার

যেভাবে কাটল লকডাউনের প্রথম দিন

বিশেষ প্রতিনিধি, কক্সবাজার   

৭ জুন, ২০২০ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



যেভাবে কাটল লকডাউনের প্রথম দিন

পর্যটন শহর কক্সবাজারকে দেশের প্রথম রেড জোন হিসেবে চিহ্নিত করে করোনা সংক্রমণ প্রতিরোধে গতকাল শনিবার থেকে শুরু হয়েছে টানা দুই সপ্তাহের লকডাউন। গত শুক্রবার মধ্যরাতে এ কর্মসূচি শুরুর কয়েক ঘণ্টা আগে সন্ধ্যায় করোনা আক্রান্ত আবু সাদাত ডালিম নামের তরুণ এক পর্যটন উদ্যোক্তা মারা যান। এরও কিছুক্ষণ পর করোনা উপসর্গ নিয়ে মারা যান আরো এক নারী। এভাবে একের পর এক মৃত্যুতে পর্যটন শহরটিতে আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে। গতকাল শনিবার সকালে কর্মসূচি চলাকালে শহরের নানা স্থানে যানবাহন ও মানুষ চলাচল শুরু হলেও বেলা বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে ক্রমেই পরিস্থিতি স্বাভাবিক হয়। শহরের দোকানপাট বন্ধ রয়েছে। দুই সপ্তাহের এ কর্মসূচিকে শহরবাসী স্বাগত জানিয়েছে। স্বাস্থ্য বিভাগ সূত্রে জানা গেছে, কক্সবাজারে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ৯৪৮ জনে দাঁড়িয়েছে। এরই মধ্যে জেলায় মারা গেছে ২২ জন। এর মধ্যে রেড জোন হিসেবে চিহ্নিত কক্সবাজার পৌর শহরে আক্রান্তের সংখ্যা ২৮০। করোনায় এরই মধ্যে শহরে মারা গেছে ১৫ জন।

কক্সবাজার জেলা করোনাভাইরাস প্রতিরোধ কমিটির সভাপতি ও কক্সবাজারের জেলা প্রশাসক মো. কামাল হোসেন বলেন, এমনিতেই কক্সবাজার দেশের অন্যান্য জেলার চেয়ে ভিন্ন গুরুত্ব বহন করে। এ অবস্থায় মহামারি করোনাভাইরাসও এ জেলায় উদ্বেগজনকভাবে সংক্রমণ শুরু করেছে। তাই রেড জোন হিসেবে চিহ্নিত করার বিষয়টি গুরুত্বপূর্ণ হয়ে ওঠে। তিনি বলেন, রেড জোন হিসেবে চিহ্নিত এলাকাগুলো সম্পূর্ণ অবরুদ্ধ থাকবে।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা