kalerkantho

বৃহস্পতিবার । ২৫ আষাঢ় ১৪২৭। ৯ জুলাই ২০২০। ১৭ জিলকদ ১৪৪১

মধ্যবিত্তের ত্রাণ সহায়তায় ৯৮ সংগঠনের ‘সেবা সমন্বয়’

ফোন দিলে পৌঁছে যাচ্ছে সহায়তা

বিশেষ প্রতিনিধি   

১৮ মে, ২০২০ ০০:০০ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



মধ্যবিত্তের ত্রাণ সহায়তায় ৯৮ সংগঠনের ‘সেবা সমন্বয়’

মধ্যবিত্তের ত্রাণ সহায়তায় এগিয়ে এসেছে ৯৮টি স্বেচ্ছাসেবী সংগঠনের প্ল্যাটফর্ম ‘সেবা সমন্বয়’। গতকাল রাজধানীর যাত্রাবাড়ী এলাকায় অস্থায়ী কার্যালয়ে সহায়তা প্রস্তুত করছেন স্বেচ্ছাসেবীরা। ছবি : কালের কণ্ঠ

একই পরিবার ঘুরেফিরে পাচ্ছে ত্রাণ সহায়তা, আবার অনেকে প্রয়োজনীয় খাবারটুকুও পাচ্ছে না। ত্রাণের জন্য কোথাও গিয়ে দাঁড়াতেও পারছে না; কিন্তু দিনাতিপাত করছে নীরব কষ্টে। এ রকম বিশৃঙ্খলা দূর করার জন্য শুরু হয়েছে সমন্বিত উদ্যোগ।

করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাবের কারণে ক্ষতিগ্রস্ত মানুষের কাছে ত্রাণ সহায়তা পৌঁছে দেওয়ার কাজে জড়িত স্বেচ্ছাসেবী সংগঠনগুলোর কাজের সমন্বয়ের জন্য গড়ে উঠেছে একটি ঐক্যবদ্ধ প্ল্যাটফর্ম। এর নাম দেওয়া হয়েছে ‘সেবা সমন্বয়’। এরই মধ্যে এই প্ল্যাটফর্মে জড়ো হয়েছে ৯৮টির মতো স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন।

নিম্নমধ্যবিত্ত ও মধ্যবিত্ত শ্রেণির যারা জীবিকা বন্ধ হওয়ার কারণে কষ্টের মধ্যে দিনানিপাত করছে তারা ফেসবুকে ফরম পূরণ অথবা নির্ধারিত ফোন নম্বরে ফোন করলে এই সহযোগিতা পৌঁছে দেওয়া হচ্ছে। এ রকম ১৪০টি পরিবারকে গতকাল রবিবার (১৭ মে) সহায়তা পৌঁছে দেওয়া হয়েছে। এ পর্যন্ত মোট এক হাজার ৩৩২টি নিম্নমধ্যবিত্ত ও মধ্যবিত্ত পরিবারের মাঝে সেবা পৌঁছে দেওয়া হয়েছে বলে জানা গেছে। নিম্নমধ্যবিত্ত ও মধ্যবিত্ত পরিবারগুলো প্রয়োজনীয় ত্রাণসেবার জন্য এই ফোন নম্বরে—০১৭৯৫ ৮৬৯১৭৭ অথবা অনলাইন shorturl.at/gikxM  ঠিকানায় আবেদন করতে পারেন।

প্ল্যাটফর্মটি সম্পর্কে সেবা সমন্বয়ের প্রধান সমন্বয়ক জাহিদুল ইসলাম কালের কণ্ঠকে জানান, একজন মানুষও যেন অভুক্ত না থাকে তা নিশ্চিত করার জন্য অনেকে নিরলস কাজ করে যাচ্ছে। কিন্তু দেখা যাচ্ছে, এই সহযোগিতা কার্যক্রমে কোনো সমন্বয় না থাকায় কেউ কেউ প্রয়োজনের বেশি পাচ্ছে, আবার কেউ কেউ বঞ্চিত হচ্ছে। এসব সহযোগিতামূলক কার্যক্রম সমন্বয়ের জন্য সব স্বেচ্ছাসেবককে একটি সাধারণ প্ল্যাটফর্ম হিসেবে গড়ে উঠেছে সেবা সমন্বয়।

গত ১৯ মার্চ পাঁচটি সংগঠন মিলে সেবা সমন্বয়ের যাত্রা শুরু হয়। গতকাল রবিবার (১৭ মে) পর্যন্ত এই উদ্যোগে যুক্ত হওয়া ৯৮টি সংগঠনের মধ্যে রাজধানী ও আশপাশ এলাকায় কাজ করছে ৫৪টি সংগঠন। এই প্রক্রিয়ায় প্রতিদিনই নতুন নতুন সংগঠন যোগ হচ্ছে। এই উদ্যোগের সঙ্গে উপদেষ্টা হিসেবে যুক্ত রয়েছেন বাংলাদেশ ব্যাংকের সাবেক গভর্নর সালেহউদ্দিন আহমেদ, আইন ও সালিশ কেন্দ্রের সাবেক পরিচালক শীপা হাফিজা, পরিবেশ আন্দোলনের অ্যাডভোকেট সৈয়দা রিজওয়ানা হাসান প্রমুখ।

জানা গেছে, সেবা সমন্বয় কার্যক্রমের আওতায় সারা দেশে ত্রাণ-সহযোগিতা কার্যক্রমে যুক্ত সংগঠনগুলোর একটি ডাটাবেইস প্রস্তুত করা হয়েছে। এর মাধ্যমে কোন কোন এলাকায় জরুরি সহযোগিতা প্রয়োজন তা নির্ণয় করা হচ্ছে। অন্যদিকে ঢাকা-৯ আসন ও তার আশপাশ এলাকার ২৭১টি পরিবারকে চিহ্নিত করা হয়েছে, যাদের সহায়তা প্রয়োজন। এদের তথ্য স্থানীয় সংসদ সদস্য সাবের হোসেন চৌধুরীকে জানানো হলে তিনি এই পরিবারগুলোকে সহায়তার দায়িত্ব নিয়েছেন।

এই কার্যক্রমের স্বচ্ছতার জন্য সেবা সমন্বয়ের অন্যান্য সংগঠন নিয়ে ফেসবুক এবং ইউটিউব লাইভ অনুষ্ঠান ‘একসাথে আমরাই, দেশটাকে সামলাই’ প্রতি রাত ৯টা ৩০ মিনিটে অনুষ্ঠিত হয়। সংশ্লিষ্ট ইউটিউব চ্যানেল লিংক— shorturl.at/giTX3  এবং সেবা সমন্বয়ের ফেসবুক গ্রুপের লিংক  shorturl.at/wyRV0।

 

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা