kalerkantho

শুক্রবার । ২২ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭ । ৫ জুন ২০২০। ১২ শাওয়াল ১৪৪১

করোনা মোকাবেলা

জাতিসংঘে সহযোগিতার প্রস্তাব অনুমোদন

► এক দিনে বিশ্বের সর্বোচ্চ মৃত্যু যুক্তরাষ্ট্রে
► ভারতের বৃহৎ বস্তিতে করোনার হানা
► হুবেইয়ে ১৪ জনকে শহীদ ঘোষণা

কালের কণ্ঠ ডেস্ক   

৪ এপ্রিল, ২০২০ ০০:০০ | পড়া যাবে ৮ মিনিটে



জাতিসংঘে সহযোগিতার প্রস্তাব অনুমোদন

করোনা মোকাবেলায় আন্তর্জাতিক সহযোগিতা ও বহুপক্ষীয় পদক্ষেপ গ্রহণে জাতিসংঘে একটি প্রস্তাব অনুমোদিত হয়েছে। গত বৃহস্পতিবার জাতিসংঘের সাধারণ পরিষদে প্রস্তাবটি সর্বসম্মতিক্রমে গৃহীত হয়। ওই প্রস্তাবে বলা হয়েছে, উদ্ভূত পরিস্থিতিতে মানবাধিকার রক্ষায় পূর্ণ সম্মান প্রয়োজন। এই মহামারিকালে কোনো ধরনের বৈষম্য, বর্ণবিদ্বেষ, বিদেশিদের প্রতি বিদ্বেষপূর্ণ প্রতিক্রিয়া দেখানোর সুযোগ নেই।

জাতিসংঘের ওই প্রস্তাবে বৈশ্বিক স্বাস্থ্য রক্ষা ও অর্থনৈতিক সংকট মোকাবেলায় গুরুত্ব দেওয়া হয়েছে। সুইজারল্যান্ড, ইন্দোনেশিয়া, সিঙ্গাপুর, নরওয়ে, লিশটেনস্টাইন ও ঘানা উত্থাপিত প্রস্তাবটির পক্ষে ১৮৮টি দেশ সায় দেয় বলে কূটনৈতিক সূত্রে জানা গেছে। নিরাপত্তা পরিষদ ছাড়া সাধারণ পরিষদের কোনো প্রস্তাব মানার বাধ্যবাধকতা না থাকলেও রাজনৈতিক দৃষ্টিতে এটিকে জোরালো পদক্ষেপ হিসেবে বিবেচনা করা হচ্ছে। এর আগে জাতিসংঘের মহাসচিব আন্তোনিও গুতেরেস বলেছিলেন, দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের পর সবচেয়ে কঠিন চ্যালেঞ্জের মুখে বিশ্ব।

বৈশ্বিক পরিসংখ্যানভিত্তিক ওয়েবসাইট ওয়ার্ল্ডোমিটারের হিসাব অনুযায়ী, গতকাল বাংলাদেশ সময় রাত সাড়ে ১২টা পর্যন্ত বিশ্বের ২০৪টি দেশ ও অঞ্চল কভিড-১৯-এ আক্রান্ত হয়েছে। আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ১০ লাখ ৭৪ হাজার ৯৬১ জনে। মোট মৃত্যু হয়েছে ৫৮ হাজার ১১০ জনের। সুস্থ হয়েছেন দুই লাখ ২৬ হাজার ৫৪ জন। ফলে সব শেষ কভিড-১৯ রোগীর সংখ্যা দাঁড়িয়েছে সাত লাখ ৯১ হাজার ২১২। এদের মধ্যে সোয়া সাত লাখ বা ৯৫ শতাংশ রোগীর শারীরিক অবস্থা গুরুতর নয়। বাকি সাড়ে ৩৮ হাজার মানুষের শারীরিক অবস্থা সংকটজনক। অর্থাৎ সর্বোচ্চ প্রাণঝুঁকিতে আছেন এই ৫ শতাংশ রোগী।

এক দিনে বিশ্বের সর্বোচ্চ মৃত্যু যুক্তরাষ্ট্রে

নভেল করোনাভাইরাসের কেন্দ্রস্থল যুক্তরাষ্ট্রে ২৪ ঘণ্টায় এক হাজার ১৬৯ জনের মৃত্যু হয়েছে। যা এক দিনের মৃত্যুর হিসাবে বিশ্বের সর্বোচ্চ মৃত্যুসংখ্যা। গতকাল জনস হপকিন্স ইউনিভার্সিটির বরাত দিয়ে এ তথ্য জানিয়েছে বার্তা সংস্থা এএফপি। এর আগে করোনাভাইরাসে এক দিনে সর্বোচ্চ মৃত্যুর রেকর্ড ছিল ইতালির। গত ২৭ মার্চ দেশটিতে মারা যায় ৯৬৯ জন।

জনস হপকিন্স জানায়, বুধবার থেকে বৃহস্পতিবার পর্যন্ত ২৪ ঘণ্টায় যুক্তরাষ্ট্রে নতুন করে আরো ৩০ হাজারের বেশি মানুষের শরীরে করোনা শনাক্ত হয়েছে। গতকাল দেশটিতে আক্রান্তের সংখ্যা আড়াই লাখ ছাড়িয়ে গেছে।

নিউ ইয়র্ক সিটি স্বাস্থ্য কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, এ নগরে করোনাভাইরাসে প্রায় ৫০ হাজার আক্রান্ত ও এক হাজার ৫০০ জনের বেশি মারা গেছে।

মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প এক ব্রিফিংয়ে বলেন, ‘আমরা এখন প্রতিদিন লক্ষাধিক মানুষের করোনাভাইরাস পরীক্ষা করছি। এ সংখ্যা বিশ্বের অন্য যেকোনো দেশের চেয়ে অনেক বেশি।’

যুক্তরাষ্ট্রে করোনায় এক লাখ থেকে দুই লাখ ৪০ হাজার মানুষ মারা যেতে পারে বলে হোয়াইট হাউস ধারণা করছে। পরিস্থিতি মোকাবেলায় ঘরের বাইরে সবাইকে মাস্ক পরার পরামর্শ দেওয়া হচ্ছে।

এশিয়ার বৃহ বস্তিতে করোনার হানা

নভেল করোনাভাইরাসে মুম্বাইয়ের সবচেয়ে বড় বস্তি ধারাভিতে দুজনের মৃত্যুর পর এর কিছু অংশ পুলিশ ঘিরে রেখেছে। মাত্র দুই বর্গকিলোমিটার এলাকাজুড়ে বিস্তৃত বস্তিটির অজস্র ছোট ছোট ঘরে বাস করেন সাত লাখের বেশি মানুষ। রয়েছে একতলা ও বহুতল ঘর, অজস্র সরু গলি ও কমন টয়লেট। সব মিলিয়ে সেখানে শারীরিক দূরত্ব বজায় রাখা একরকম অসম্ভব ব্যাপার। সেই সঙ্গে সেখানে রয়েছে ছোট ও মাঝারি কয়েকটি গার্মেন্ট, চামড়া প্রক্রিয়াজাতকরণ, জুয়েলারি কারখানা। এগুলোতে কাজ করেন মূলত অভিবাসী শ্রমিকরা, যারা বাস করেনও একই এলাকায়।

মুম্বাইয়ের স্বাস্থ্য দপ্তরের তথ্য বলছে, এই বস্তিটিতে অনেক টিবির রোগী রয়েছে। প্রতি সৌসুমে সেখানে ডেঙ্গু, ম্যালেরিয়ার মতো রোগের প্রাদুর্ভাব দেখা দেয় নিয়মিত। সেখানে করোনাভাইরাসের মতো এত ছোঁয়াচে একটি সংক্রমণ থেকে কী করে মানুষ রক্ষা পাবে, তা নিয়ে অনেকেই হতাশ।

স্থানীয় ওয়ার্ডের কাউন্সিল চেয়ারম্যান বসন্ত নাকাশে বলেন, ধারাভিতে যত জন আক্রান্তের খোঁজ পাওয়া গেছে, তাঁদের সবার বাড়ি বস্তির একপাশে। সব রকম পদক্ষেপ নেওয়া হচ্ছে। স্যানিটাইজার স্প্রে করা হচ্ছে। কিন্তু এখানকার মানুষ লকডাউনকে গুরুত্বের সঙ্গে নিচ্ছে না। অনেকেই ঘোরাঘুরি করছে।

ধারাভিতে বহু বছর ধরে সেবার কাজ করছেন বেসরকারি চিকিৎসক ড. বিকাশ অসওয়াল। তিনি বলেন, করোনার বিস্তার যেভাবে ছড়াচ্ছে, তাতে ধারাভি টাইমবোমা হয়ে ওঠা সময়ের অপেক্ষা মাত্র। কারণ খুব কম করেও ১৪ দিনের আগে অসুখের লক্ষণ দেখা যাবে না। আর এই সময়টায় যে অসুখ আরো কত গভীরে ছড়িয়ে পড়বে, তা কেউ জানে না।

এদিকে ভারতের স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, দিল্লির নিজামউদ্দিনের তাবলিগ জামাতের সমাবেশে হাজির হওয়াদের মধ্যে প্রায় ৬৪৭ জন করোনায় আক্রান্ত হয়েছে। দেশটির ১৪টি রাজ্যে ছড়িয়ে-ছিটিয়ে আছে আক্রান্ত হওয়া এই মানুষগুলো।

ভারতে করোনাভাইরাসে গতকাল পর্যন্ত মৃতের সংখ্যা বেড়ে ৫৯ জন এবং আক্রান্তের সংখ্যা ২৪৮৪ জন ছাড়িয়েছে। গত ২৫ মার্চ থেকে ভারতে ২১ দিনের অবরুদ্ধ দশা চলছে। এতে লাখ লাখ শ্রমিক তাত্ক্ষণিকভাবে কর্মহীন হয়ে পড়েছে এবং হাজার হাজার লোক তাদের নিজ গ্রামে ফেরার চেষ্টা করছে।

হুবেইয়ে ১৪ জনকে শহীদ ঘোষণা

নভেল করোনাভাইরাস মহামারির বিরুদ্ধে লড়াইয়ে সামনের সারিতে কাজ করতে গিয়ে মারা যাওয়া ১৪ জনকে সম্প্রতি ‘শহীদ’ ঘোষণা করেছে চীনের হুবেই সরকার। তাঁদের মধ্যে আছেন চিকিৎসাকর্মী, পুলিশ ও আবাসিক এলাকার কর্মকর্তা।

চীনের রাষ্ট্রীয় বেতার সিআরআই জানিয়েছে, নভেল করোনাভাইরাস মহামারি হচ্ছে গণপ্রজাতন্ত্রী চীন প্রতিষ্ঠার পর সবচেয়ে কঠিন জনস্বাস্থ্যসংশ্লিষ্ট ঘটনা। অনেক চিকিৎসাকর্মী ও প্রতিরোধকর্মী অগ্রণী ভূমিকা পালন করে উহান ও হুবেই রক্ষা করেছেন। এই ১৪ জন হচ্ছেন তাঁদের শ্রেষ্ঠ প্রতিনিধি। তাদের সম্মান পাওয়া উচিত বলে মনে করে হুবেইয়ের স্থানীয় সরকার।

ফ্রান্সে আরো ৪৭১ জনের মৃত্যু

ফ্রান্সে করোনাভাইরাসে বৃহস্পতিবার ৪৭১ জনের মৃত্যু হয়েছে। ওই সময় পর্যন্ত দেশটির হাসপাতালে যারা মারা গেছে, তাদের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৪,৫০৩ জনে। বাড়িতে ও বৃদ্ধনিবাসে মৃতদের সংখ্যা এই হিসাবে অন্তর্ভুক্ত করা হয়নি। করোনা আক্রান্ত হয়ে বাড়িতে ও বৃদ্ধনিবাসে মারা গেছে প্রায় ৯০০ জন।

ফ্রান্সের শীর্ষ স্বাস্থ্য কর্মকর্তা জেরোমি সালোমন বলেছেন, মহামারি শুরুর পর থেকে প্রাথমিক হিসাবে বৃদ্ধনিবাসে ৮৮৪ জনের মৃত্যু হয়েছে। হাসপাতালে মৃতদের সংখ্যার সঙ্গে এই সংখ্যা যুক্ত করে মোট সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৫,৩৮৭ জনে।

ফ্রান্সের হাসপাতালে ২৬ হাজার মানুষ চিকিৎসাধীন আছে। এদের মধ্যে ছয় হাজার ৩৯৯ জন নিবিড় পরিচর্যা কেন্দ্রে আছে।

সিঙ্গাপুরে এক মাসের লকডাউন

করোনাভাইরাসের বিস্তার ঠেকাতে জরুরি সেবা ছাড়া স্কুলসহ বেশির ভাগ অফিস-আদালত এক মাসের জন্য বন্ধ করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে সিঙ্গাপুর। আগামী মঙ্গলবার থেকে শুরু হবে এ লকডাউন। পরদিন থেকে শিক্ষার্থীদের অনলাইন ক্লাস চলবে। এ সময় সিঙ্গাপুরে চালু থাকবে খাদ্য সরবরাহ, বাজার, সুপারমার্কেট, ক্লিনিক, হাসপাতাল, পরিবহন ও ব্যাংক। গতকাল এক ঘোষণায় এসব তথ্য জানিয়েছেন সিঙ্গাপুরের প্রধানমন্ত্রী লি সিয়েন লুং। এ সময় তিনি মানুষজনকে ঘরে থাকতে ও সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখার আহ্বান জানিয়েছেন।

লি বলেন, সিঙ্গাপুরে করোনাভাইরাস পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে রয়েছে। তবে আক্রান্তের হার বাড়ছে। আগে যেখানে দিনে ১০ জনেরও কম মানুষ আক্রান্ত হচ্ছিল, এখন সেখানে ৫০ জনের বেশি মানুষ আক্রান্ত হচ্ছে।

এখন পর্যন্ত সিঙ্গাপুরে ১,১১৪ জনের শরীরে মিলেছে কোভিড-১৯। মৃত্যু হয়েছে পাঁচজনের। আর গতকালই নতুন আক্রান্ত হয়েছে ৬৫ জন।

ইরানের স্পিকার আক্রান্ত

ইরানের পার্লামেন্ট স্পিকার আলি লারিজানির শরীরে করোনা শনাক্ত হয়েছে। ব্যাপকভাবে করোনাভাইরাস ছড়িয়ে পড়া এ দেশে এ ভাইরাসে সংক্রমিত হওয়া তিনি হচ্ছেন সর্বশেষ সরকারি কর্মকর্তা। করোনাভাইরাসের উপসর্গ দেখা দেওয়ার পর স্পিকারের শারীরিক পরীক্ষা করা হয়। এতে ফলাফল পজিটিভ এসেছে এবং তিনি বর্তমানে আলাদা রয়েছেন।

৬২ বছর বয়সী লারিজানি ইরানের সর্বোচ্চ ধর্মীয় নেতা আয়াতুল্লাহ আলী খামেনির ঘনিষ্ঠ। দেশটির পার্লামেন্ট স্পিকার হিসেবে তিনি ২০১৬ সালে দ্বিতীয় মেয়াদে নির্বাচিত হন।

ইরানে গতকাল করোনায় ১৩৪ জনের মৃত্যু হয়েছে। এ নিয়ে দেশটিতে মৃতের সংখ্যা বেড়ে মোট তিন হাজার ২৯৪ জনে দাঁড়িয়েছে। আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে ৫৩ হাজার ছাড়িয়ে গেছে।

ফের করোনা পরীক্ষা করালেন ট্রাম্প

মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প জানিয়েছেন, হোয়াইট হাউসে দ্বিতীয়বারের মতো তিনি করোনা পরীক্ষা করিয়েছেন এবং ফল আবারও নেগেটিভ এসেছে। গত বৃহস্পতিবার ট্রাম্প এক সংবাদ সম্মেলনে বলেন, ‘আমি আজ সকালে ফের আমার করোনাভাইরাস পরীক্ষা করিয়েছি। এ পরীক্ষায়ও আমার কোভিড-১৯ ভাইরাস নেগেটিভ এসেছে।’

দ্রুত ফল পাওয়া যায় এমন নতুন পদ্ধতি ব্যবহার করা হয় ট্রাম্পের করোনা পরীক্ষায়। তিনি বলেন, নতুন পদ্ধতিতে পরীক্ষার কাজ সম্পন্ন করতে মাত্র এক মিনিট সময় লাগে এবং মাত্র ১৫ মিনিটেই ফলাফল পাওয়া যায়। নতুন এ পদ্ধতি কত দ্রুত কাজ করে সেটা জানার কৌতূহল থেকেই আমি এটা করিয়েছি। এটি হচ্ছে অনেক সহজ একটি পদ্ধতি।

 

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা