kalerkantho

শনিবার । ২৩ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭ । ৬ জুন ২০২০। ১৩ শাওয়াল ১৪৪১

১০ হাজার টেস্ট কিট ও চিকিৎসা সরঞ্জাম পাঠাচ্ছে চীন সরকার

কূটনৈতিক প্রতিবেদক   

১৯ মার্চ, ২০২০ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



১০ হাজার টেস্ট কিট ও চিকিৎসা সরঞ্জাম পাঠাচ্ছে চীন সরকার

করোনাভাইরাস প্রাদুর্ভাবের পরিপ্রেক্ষিতে বাংলাদেশকে ‘টেস্ট কিট’ ও জরুরি চিকিৎসা সরঞ্জাম পাঠাচ্ছে চীন। ঢাকায় চীনা দূতাবাস গত মঙ্গলবার এ বিষয়টি পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়, অর্থনৈতিক সম্পর্ক বিভাগ এবং স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা মন্ত্রণালয়কে অবহিত করেছে।

জানা গেছে, চীন বাংলাদেশকে ১০ হাজার লোকের করোনাভাইরাস পরীক্ষা সরঞ্জাম (টেস্ট কিট), ১৫ হাজার সার্জিক্যাল মাস্ক, ১০ হাজার ‘মেডিক্যাল প্রসেসিং ক্লোদিং’ এবং এক হাজার ‘ইনফ্রারেড থার্মোমিটার’ দিচ্ছে। চীন সেগুলো তৈরি করে ফ্লাইটযোগে শিগগিরই ঢাকায় হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে পৌঁছে দেবে। এরপর বাংলাদেশ তা প্রয়োজনীয় প্রক্রিয়া সম্পন্ন করে ছাড় করবে। বাংলাদেশকে এ বিষয়ে আগামী ২৯ মার্চের মধ্যে জানাতে চীন দূতাবাস অনুরোধ করেছে। এ ছাড়া চিকিৎসা সরঞ্জামের জন্য চীন বাংলাদেশকে রেফ্রিজারেটর মজুদ রাখতে বলেছে।

ঢাকায় চীনা দূতাবাস গতকাল বুধবার এক বিবৃতিতে জানায়, চীন বাংলাদেশের প্রতি সহযোগিতার হাত বাড়ানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছে। গত মঙ্গলবার চীনা দূতাবাস বাংলাদেশের সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়গুলোকে জানিয়েছে, তারা বন্ধুপ্রতীম বাংলাদেশের জনগণের জন্য বিপুলসংখ্যক টেস্ট কিট এবং সংক্রমণ নিরোধক জরুরি চিকিৎসা সরঞ্জাম অনুদান হিসেবে প্রদান করবে। সংক্রমণ মোকাবেলায় চীন সব সময় বাংলাদেশের সবচেয়ে বিশ্বস্ত অংশীদার হিসেবে আছে এবং থাকবে।

উল্লেখ্য, করোনাভাইরাস পরীক্ষায় বাংলাদেশে পর্যাপ্ত সংখ্যক ‘টেস্ট কিট’ নেই। গত সোমবার সরকারের অর্থনৈতিক সম্পর্ক বিভাগ চীনের কাছে টেস্ট কিটসহ চিকিৎসা সরঞ্জাম সহায়তা চায়। পরদিন মঙ্গলবারই চীন এ বিষয়ে ইতিবাচক সাড়া দিয়েছে। চীন করোনাভাইরাস মোকাবেলায় ইতালিসহ অন্যান্য দেশকেও সহায়তা করছে।

 

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা