kalerkantho

বুধবার । ২৫ চৈত্র ১৪২৬। ৮ এপ্রিল ২০২০। ১৩ শাবান ১৪৪১

আহমেদ আকবর সোবহান বললেন

প্রধানমন্ত্রীর নেতৃত্বে দেশের উন্নতি হয়েছে হচ্ছে, আরো হবে

নিজস্ব প্রতিবেদক   

২৩ ফেব্রুয়ারি, ২০২০ ০০:০০ | পড়া যাবে ৪ মিনিটে



প্রধানমন্ত্রীর নেতৃত্বে দেশের উন্নতি হয়েছে হচ্ছে, আরো হবে

বসুন্ধরা বিটুমিন প্লান্টের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে বক্তব্য দেন গ্রুপের চেয়ারম্যান আহমেদ আকবর সোবহান। ছবি : কালের কণ্ঠ

তিন লাখ লোক একসঙ্গে কাজ করবে এমন শিল্প গড়ার ঘোষণা দিয়েছেন বসুন্ধরা গ্রুপের চেয়ারম্যান আহমেদ আকবর সোবহান। তিনি বলেছেন, ‘তিন লাখ শ্রমিক একসঙ্গে কাজ করবে এমন কারখানা আমি তৈরি করব। অর্থমন্ত্রী সেটি উদ্বোধন করবেন।’ গতকাল শনিবার দুপুরে ঢাকার কেরানীগঞ্জের পানগাঁওয়ে দেশের শীর্ষ শিল্প গোষ্ঠী বসুন্ধরা গ্রুপের মালিকানাধীন বসুন্ধরা বিটুমিন প্লান্ট উদ্বোধন অনুষ্ঠানে তিনি এ কথা বলেন।

অনুষ্ঠানে বসুন্ধরা গ্রুপের চেয়ারম্যান আহমেদ আকবর সোবহান আরো বলেন, ‘আমাদের বসুন্ধরা গ্রুপ অন্তত ৩০টি শিল্প-কারখানা করেছে। বিশাল দুটি হাউজিং করেছে। বসুন্ধরা গ্রুপের একটি বৈশিষ্ট্য, বসুন্ধরা গ্রুপ শুধু নিজের জন্য করে না।’ তিনি বলেন,  “একটু আগে অর্থমন্ত্রীর সঙ্গে আমার আলাপ হচ্ছিল। তিনি আমাকে বলেছেন, ‘আপনি এমন একটা শিল্প করেন যেখানে তিন লাখ শ্রমিক একসাথে কাজ করবে।’ আমি ওনাকে আশ্বাস দিয়েছি, ইনশাআল্লাহ আপনিই সেই কারখানার উদ্বোধন করবেন।”

বসুন্ধরা গ্রুপের চেয়ারম্যান বলেন, ‘বাংলাদেশকে স্বাধীন করেছেন বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান। স্বাধীন করার পর ষড়যন্ত্রকারীরা তাঁকে নির্মমভাবে হত্যা করল। আজকে উনি থাকলে আরো ২৫ বছর আগে বাংলাদেশ আজকের অবস্থানে থাকত। আমাদের সমস্ত উৎসাহ-উদ্দীপনার মূল বঙ্গবন্ধু। তাঁর উৎসাহ-উদ্দীপনায় আজ বাংলাদেশ সৃষ্টি হয়েছে। বাংলাদেশের অর্থনীতি উন্নত হয়েছে। একসময় বলা হতো তলাবিহীন ঝুড়ি, আজ সারা দুনিয়া বাংলাদেশের দিকে তাকিয়ে আছে।’

প্রধানমন্ত্রীর কারণে দেশের ক্রিকেট এগিয়ে যাচ্ছে বলে মন্তব্য করেন আহমেদ আকবর সোবহান। তিনি বলেন, “প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা রিহ্যাবের এক সভায় বলেছিলেন, ‘আপনারা সবাই খেলাধুলাকে সমর্থন দেবেন।’ আজ ক্রিকেটে বাংলাদেশের যে অবস্থান তার ৯৯ শতাংশ অবদান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার। আজ ক্রিকেটকে তিনি যে উৎসাহ-উদ্দীপনা দিয়েছেন, ক্রিকেটারদের সাথে তাঁর যে ব্যক্তিগত সম্পর্ক, প্রতিটি ক্রিকেটারের সাথে তাঁর সম্পর্ক, তিনি ফোনে কথা বলেন, এসএমএস করেন। তাঁদের উৎসাহ দেন। তাঁদের কারো ওজন বেড়ে গেলে তিনি বলেন, ‘তোমরা ওজন কমাও।’ তাঁর সেই উৎসাহে আজকে বাংলাদেশের ব্র্যান্ডিং ক্রিকেটের অনূর্ধ্ব-১৯ বিশ্বচ্যাম্পিয়ন হয়েছে। আজকের আন্ডার-নাইন্টিন টিম ইনশাআল্লাহ একদিন মূল ক্রিকেটে বিশ্বচ্যাম্পিয়ন হবে। সেদিন হয়তো বেশি দূরে না। আজকে ক্রিকেটের মাধ্যমে বাংলাদেশের ব্র্যান্ডিং হচ্ছে, বাংলাদেশকে চিনছে, শেখ হাসিনাকে চিনছে, বঙ্গবন্ধুকে চিনছে, বাংলাদেশের অর্থনীতিকে চিনছে।” ওই সময় তিনি শেখ রাসেল ক্রিকেট একাডেমি গড়ার ঘোষণা দেন।

শিক্ষাক্ষেত্রে প্রধানমন্ত্রীর উৎসাহের কথা জানিয়ে বসুন্ধরা গ্রুপের চেয়ারম্যান বলেন, “জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় প্রধানমন্ত্রীর কাছে ১৫ একর জায়গা চাইত। তিনি বললেন, ‘১৫ একর জায়গা দিয়ে বিশ্ববিদ্যালয় হয় নাকি?’ কেরানীগঞ্জে তিনি এক হাজার বিঘা জায়গা দিয়েছেন। ৩০০ একর জায়গার ওপর জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় হচ্ছে। আমাদের সব উৎসাহ-উদ্দীপনার মূল প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। উনি সব সময় উৎসাহ দেন, ‘তোমরা শিল্প-কারখানা করো, দেশকে এগিয়ে নিয়ে যাও। আমি তোমাদের পাশে আছি।’ এ দেশে এখন ব্যবসা করার পরিবেশ আছে। গত পাঁচ বছরে আমরা একটা দিন হরতাল দেখিনি, অনাকাঙ্ক্ষিত ঘটনা দেখিনি। একটা সময় আমরা গালে হাত দিয়ে বসে থাকতাম, কবে হরতাল-অবরোধ বন্ধ হবে। সেটি থেকে প্রধানমন্ত্রী আমাদের পরিত্রাণ দিয়েছেন। সারা জাতি, দেশ ওনার প্রতি কৃতজ্ঞ। বাংলাদেশে আজকের উন্নতি তা আওয়ামী লীগের যারা বিরোধী দল, চরম শত্রু তারাও স্বীকার করে। আমরা কোনো রাজাকারের গাড়িতে পতাকা দেখতে চাই না।” হুন্ডি বন্ধ করার আহ্বান জানিয়ে আহমেদ আকবর সোবহান বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রী এবং অর্থমন্ত্রীর একটি সিদ্ধান্তে রেমিট্যান্স বেড়ে গেছে। ২ শতাংশ প্রণোদনা দেওয়ার সিদ্ধান্তে রেমিট্যান্স ৫০ শতাংশ বেড়ে গেছে। আমি তাঁদের আরেকটি অনুরোধ করব, আপনারা হুন্ডি বন্ধ করেন। বর্তমানের তুলনায় রেমিট্যান্স দ্বিগুণ হয়ে যাবে। এ দেশে প্রতি মাসে তিন বিলিয়ন ডলার আসবে।’

গত নির্বাচনে দল-মত-নির্বিশেষে সবাই শেখ হাসিনাকে সমর্থন দিয়েছে বলে মন্তব্য করেন বসুন্ধরা গ্রুপের চেয়ারম্যান। তিনি বলেন, ‘এর কারণ হলো, সবার উন্নতি হয়েছে, উন্নতি হচ্ছে এবং সবার উন্নতি হবে। প্রধানমন্ত্রী অনেক দীর্ঘজীবী হোন, দোয়া করি।’ ওই সময় তিনি শেখ রাসেলের নামে ক্রিকেট একাডেমি করা হবে বলে ঘোষণা দেন।

আগামী দেড় বছরের মধ্যে একটি স্কুল করারও ঘোষণা দেন আহমেদ আকবর সোবহান। তিনি বলেন, ‘ইনশাআল্লাহ আমরা একটি স্কুল করব। এটি কেরানীগঞ্জের জন্য বিরাট সম্মান বয়ে আনবে।’

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা