kalerkantho

মঙ্গলবার । ৫ ফাল্গুন ১৪২৬ । ১৮ ফেব্রুয়ারি ২০২০। ২৩ জমাদিউস সানি ১৪৪১

‘পেছনে ছিল বিভিন্ন শক্তির যোগসাজশ’

ট্রুথ কমিশন চায় সিপিবি

নিজস্ব প্রতিবেদক   

২১ জানুয়ারি, ২০২০ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



‘পেছনে ছিল বিভিন্ন শক্তির যোগসাজশ’

পল্টনে ১৯ বছর আগের সমাবেশে বোমা হামলা ও হত্যা মামলার রায়ে সন্তোষ প্রকাশ করলেও নেপথ্যের বিভিন্ন শক্তি শনাক্ত করতে ট্রুথ কমিশন গঠন করার দাবি জানিয়েছে বাংলাদেশের কমিউনিস্ট পার্টি (সিপিবি)। দলের সভাপতি মুজাহিদুল ইসলাম সেলিম ও সাধারণ সম্পাদক মোহাম্মদ শাহ আলম গতকাল সোমবার এক বিবৃতিতে বলেছেন, সুদীর্ঘ ১৯ বছর পর হলেও বিচার হওয়াটা সন্তোষের বিষয়। বিচারের রায় দ্রুত বাস্তবায়ন করতে হবে।

বিবৃতিতে সিপিবি নেতারা বলেন, সিপিবির মহাসমাবেশে বোমা হামলার বিচার হয়েছে আইনগতভাবে। হরকাতুল জিহাদের কিলিং স্কোয়াড চিহ্নিত করা হয়েছে; কিন্তু এই হামলার পেছনে বিভিন্ন শক্তির যোগসাজশ ছিল। শুধু আইনগতভাবে নয়, বোমা হামলার পেছনের অর্থনৈতিক-রাজনৈতিক-সামাজিক  বিষয়গুলো বিশ্লেষণ করা প্রয়োজন। রাজনৈতিক শক্তির উপযুক্ত শিক্ষা গ্রহণ করা জরুরি কর্তব্য। এ জন্য উচ্চ পর্যায়ের ট্রুথ কমিশন গঠন করতে হবে।

সিপিবি নেতারা আরো বলেন, সিপিবির মহাসমাবেশে বোমা হামলার যদি দ্রুত বিচার হতো, তাহলে পরবর্তী হামলাগুলো না-ও ঘটতে পারত। আলোচিত এ বোমা হামলার বিচারের জন্য শুধু দীর্ঘ সময় ক্ষেপণই করা হয়নি, উপরন্তু নানা অন্তর্ঘাতমূলক ষড়যন্ত্র করা হয়েছে। শুধু দায়িত্বহীনতা ও অবহেলাই নয়, সরকারের পক্ষ থেকে উদ্দেশ্যপ্রণোদিতভাবে ঘটনাকে ভিন্ন খাতে প্রবাহিত করার অপচেষ্টা করা হয়েছে। জনমতকে বিভ্রান্ত করার জন্য নানা কল্পকাহিনি সাজানো হয়েছে।

তাত্ক্ষণিক প্রতিক্রিয়া হিসেবে দেওয়া বিবৃতিতে বলা হয়, বোমা হামলাকে সিপিবির অভ্যন্তরীণ কোন্দল বলে চালিয়ে দেওয়া, পার্টির আহত কমরেডকে বোমা বহনকারী সাজানোর অপচেষ্টাসহ সরকারের পক্ষ থেকে বিচারে নানাভাবে বাধা-বিঘ্ন ও বিভ্রান্তি তৈরি করা হয়েছিল। একসময় চূড়ান্ত প্রতিবেদনের নামে মামলা শেষ করে দেওয়ারও চেষ্টা হয়েছিল। বিচারকে বাধাগ্রস্ত করার এসব প্রচেষ্টারও বিচার হওয়া প্রয়োজন।

বিবৃতিতে আরো বলা হয়েছে, সিপিবির মহাসমাবেশে বোমা হামলা বাংলাদেশের ইতিহাসে কোনো রাজনৈতিক দলের সমাবেশে প্রথম বোমা হামলা। এই জঘন্যতম বোমা হামলার বিচারের জন্য নানা বাধা-বিপত্তি পার করে দেশবাসীকে সুদীর্ঘ ১৯ বছর অপেক্ষা করতে হয়েছে। মামলার পূর্ণাঙ্গ রায় পর্যালোচনা করেই সিপিবি প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করবে।

 

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা