kalerkantho

রবিবার । ১৯ জানুয়ারি ২০২০। ৫ মাঘ ১৪২৬। ২২ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪১     

শীতে কাঁপছে পঞ্চগড়

দেশের সর্বনিম্ন তাপমাত্রা তেঁতুলিয়ায় ১০ ডিগ্রি সেলসিয়াস

পঞ্চগড় প্রতিনিধি   

৭ ডিসেম্বর, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



শীতে কাঁপছে পঞ্চগড়

পঞ্জিকার পাতা ধরে শীত আসতে সপ্তাহখানেক বাকি, তবে এরই মধ্যে গ্রামে-গঞ্জে, নগরে-বন্দরে শীতের আমেজ শুরু হয়ে গেছে। তবে শীতের তীব্রতায় এরই মধ্যে কাঁপতে শুরু করেছে উত্তরবঙ্গের জেলা পঞ্চগড়। গতকাল শুক্রবার দেশের সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ছিল পঞ্চগড়ের তেঁতুলিয়ায় ১০ ডিগ্রি সেলসিয়াস।

জেলায় দিনে মেঘলুপ্ত সূর্যের খরতাপ আর রাতে কুয়াশার সঙ্গে সঙ্গে বইছে হিমেল  হাওয়া। ঋতু বৈচিত্র্যের এই খেলা উপভোগ করছে এখানকার মানুষ। শীতের আগমন যতই ঘনিয়ে আসছে, তাপমাত্রাও ততই কমছে। রাত ও ভোরে ঠাণ্ডা বেশি অনুভূত হচ্ছে। এ জেলায় এখন সূর্য ডোবার সঙ্গে সঙ্গে ঠাণ্ডা নেমে আসে। রাতে উত্তুরে হিমালয় থেকে আসে ঠাণ্ডা বাতাস। সেই সঙ্গে হালকা কুয়াশায় ঝাপসা হয়ে আসে চারপাশ। রাত বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে গ্রামের পথঘাটে পথচারীদের চলাচলও কমে আসে। টিনের চালায় টুপটুপ করে অবিরাম পড়ে কুয়াশার ফোঁটা। ঠাণ্ডায় লেপ-কাঁথা-কম্বল গায়ে জড়িয়ে নিয়ে ঘুমাতে হয়। সকালে হালকা কুয়াশার চাদরে ঢেকে যায় পথঘাট। গাছে গাছে লতাপাতা আর ঘাসের ওপর ঝরে শিশির বিন্দু। বিকেলের পর বাড়ি বের হলেই গরম কাপড় পরিধান করে বের হতে হয়।

তেঁতুলিয়া আবহাওয়া পূর্বাভাস কেন্দ্রের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা রহিদুল ইসলাম কালের কণ্ঠকে বলেন, ‘বৃহস্পতিবার এবং শুক্রবার দেশের সর্বনিম্ন তাপমাত্রা পঞ্চগড়ের তেঁতুলিয়ায় রেকর্ড করা হয়েছে। দুই দিনই সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ছিল ১০ ডিগ্রি সেলসিয়াস। ডিসেম্বরে গড় তাপমাত্রা প্রায় এমনই থাকবে বলে আমরা মনে করছি।’

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা