kalerkantho

সোমবার । ১৬ ডিসেম্বর ২০১৯। ১ পোষ ১৪২৬। ১৮ রবিউস সানি                         

জ্ঞাত আয়বহির্ভূত সম্পদ

সম্রাট ও আরমান এবার দুদকের মামলায় রিমান্ডে

নিজস্ব প্রতিবেদক   

১৮ নভেম্বর, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



সম্রাট ও আরমান এবার দুদকের মামলায় রিমান্ডে

যুবলীগ ঢাকা মহানগর দক্ষিণের বহিষ্কৃত সভাপতি ইসমাইল চৌধুরী সম্রাট ও তাঁর ক্যাসিনো গুরু এনামুল হক আরমানের ছয় দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন আদালত। জ্ঞাত আয়বহির্ভূত সম্পদ অর্জনের অভিযোগে দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) দায়ের করা মামলায় গতকাল রবিবার এই আদেশ দেওয়া হয়েছে। অস্ত্র ও মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনের পৃথক মামলায় তাঁদেরকে এর আগে কয়েক দফা রিমান্ডে নেওয়া হয়েছে।

ঢাকা মহানগর দায়রা জজ ও জ্যেষ্ঠ বিশেষ জজ আদালতের বিচারক কে এম ইমরুল কায়েশ গতকাল দুদকের মামলায় পৃথক আদেশে সম্রাট ও আরমানের বিরুদ্ধে এই রিমান্ড মঞ্জুর করেন। এর আগে দুই আসামিকে কারাগার থেকে আদালতে হাজির করা হয়।

গত ১৪ নভেম্বর দুজনকে সাত দিন করে রিমান্ডের আবেদন করে দুদক। গতকাল দুজনের পক্ষেই পৃথকভাবে জামিনের আবেদন করেন আইনজীবীরা। শুনানি শেষে আদালত জামিনের আবেদন নামঞ্জুর করে রিমান্ড মঞ্জুর করেন।

দুই কোটি ৯৪ লাখ ৮০ হাজার ৮৭ টাকার জ্ঞাত আয়বহির্ভূত সম্পদ অর্জনের অভিযোগে কমিশনের সমন্বিত জেলা কার্যালয়, ঢাকা-১-এ সম্রাটের বিরুদ্ধে গত ১২ নভেম্বর মামলা করেন দুদকের উপপরিচালক জাহাঙ্গীর আলম। একই দিন দুই কোটি পাঁচ লাখ ৪০ হাজার টাকার জ্ঞাত আয়বহির্ভূত সম্পদ অর্জনের অভিযোগে কমিশনের সমন্বিত জেলা কার্যালয়, ঢাকা-১-এ আরমানের বিরুদ্ধে মামলা করেন দুদকের উপপরিচালক মো. সালাহউদ্দিন।

গত ৬ অক্টোবর কুমিল্লার চৌদ্দগ্রাম থেকে সম্রাট ও আরমানকে গ্রেপ্তার করা হয়। পরে সম্রাটের কাকরাইলের অফিসে অভিযান চালিয়ে এক হাজার পিস ইয়াবা ও ১৯ বোতল মদ এবং একটি বিদেশি পিস্তল, একটি ম্যাগাজিন ও পাঁচ রাউন্ড গুলি উদ্ধার করে র‌্যাব। এ ঘটনায় র‌্যাব-১-এর ডিএডি আবদুল খালেক বাদী হয়ে রমনা থানায় অস্ত্র ও মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে দুটি মামলা করেন। ওই দুটি মামলায় কয়েক দফা জিজ্ঞাসাবাদ করে পুলিশ, র‌্যাব ও সিআইডি। পরে তাঁদের বিরুদ্ধে জ্ঞাত আয়বহির্ভূত সম্পদ অর্জনের মামলা হয়।

 

 

 

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা