kalerkantho

বৃহস্পতিবার । ১৪ নভেম্বর ২০১৯। ২৯ কার্তিক ১৪২৬। ১৬ রবিউল আউয়াল ১৪৪১     

ভোলার সেই শুভর ভগ্নিপতিকে তুলে নেওয়ার অভিযোগ

এসপির ফেসবুক আইডি হ্যাক্ড

ভোলা ও চরফ্যাশন প্রতিনিধি   

২৩ অক্টোবর, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



ভোলার সেই শুভর ভগ্নিপতিকে তুলে নেওয়ার অভিযোগ

বিপ্লব চন্দ্র শুভ

বিপ্লব চন্দ্র বৈদ্য শুভ নামের যে তরুণের ফেসবুক হ্যাক হওয়ার পর ধর্ম অবমাননার অভিযোগ তুলে ভোলার বোরহানউদ্দিনে সহিংস ঘটনা ঘটেছে, তাঁর ভগ্নিপতিসহ দুজনকে ডিবি পুলিশ পরিচয়ে তুলে নেওয়ার অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনায় গতকাল মঙ্গলবার চরফ্যাশনের দুলারহাট থানায় সাধারণ ডায়েরি (জিডি) করা হয়েছে। শুভর ভগ্নিপতি বিধান মজুমদার (৩৫) ও তাঁর দোকানের কর্মচারী সাগর (১৮) সোমবার থেকে নিখোঁজ রয়েছেন বলে জিডিতে উল্লেখ করা হয়েছে।

এলাকাবাসী সূত্রে জানা যায়, বিধান মজুমদার এবং তাঁর কর্মচারী ও শুভর চাচাতো ভাই সাগরকে ডিবি পুলিশ পরিচয়ে গত সোমবার সন্ধ্যার দিকে তুলে নিয়ে যাওয়া হয়। তবে ভোলা ডিবি পুলিশের ওসি শহিদুল হক বলেন, ‘আমাদের পক্ষ থেকে ওই দুজনকে তুলে আনা হয়নি। চরফ্যাশনে আমাদের কোনো অভিযানও ছিল না।’

ভোলার দুলারহাট থানার ওসি মিজানুর রহমান পাটওয়ারী গতকাল সন্ধ্যায় কালের কণ্ঠকে বলেন, ‘বিধানের বাবা বিনয় ভূষণ মজুমদার গতকাল দুপুরে থানায় এসে তাঁর ছেলে ও দোকানের কর্মচারী নিখোঁজ হওয়ার উল্লেখ করে জিডি করেন। তবে কে বা কারা তাঁর ছেলেকে নিয়ে গেছে তা তিনি জানেন না। ইতিমধ্যে বেতারবার্তার মাধ্যমে দেশের সব থানায় খবর পাঠানো হয়েছে। পুলিশ তাদের খুঁজছে।’

দুলারহাট থানার রোদেরহাটে ‘মা জুয়েলার্স’ নামে বিধানের একটি দোকান রয়েছে। তাঁর বাড়ি লালমোহন উপজেলার পশ্চিম চরউমেদ গ্রামে। আর কর্মচারী সাগরের বাড়ি বোরহানউদ্দিনে।

বিনয় ভূষণ মজুমদার বলেন, ‘আমার ছেলে বিধান ও কর্মচারী সাগর প্রতিদিনের মতো গত সোমবার চরফ্যাশন উপজেলার আবু বকরপুর ইউনিয়নের রোদ্রেরহাটে তার ব্যবসায়িক প্রতিষ্ঠান মা জুয়েলার্সে যায়। দিন শেষেও সে বাড়ি না আসায় দোকানে গিয়ে দেখি প্রতিষ্ঠানটি বন্ধ। তার পর থেকে এখন পর্যন্ত ছেলে নিখোঁজ রয়েছে।’

গত রাতে বিনয় ভূষণ মজুদার কালের কণ্ঠকে বলেন, ‘রাত ১০টার দিকে বিধান আমার সাথে মোবাইল ফোনে কথা বলেছে। বলেছে—বাবা, তুমি এলাকার গণ্যমান্য লোকদেরকে নিয়ে ভোলা কালিনাথ বাজারে চলে আস। আমি র‌্যাবের হেফাজতে আছি। তোমরা আসলে আমাকে ছেড়ে দেবে।’

স্থানীয়দের তথ্যের উল্লেখ করে বিনয় মজুমদার জানান, বিধান ও সাগরকে সিভিল পোশাকধারী সাত-আটজন র‌্যাব ও ডিবির লোক পরিচয় দিয়ে কালো একটি গাড়িতে তুলে নিয়ে যায়। গতকাল লালমোহন ও চরফ্যাশন পুলিশ সার্কেল কার্যালয়ে খোঁজ নিয়ে তাঁরা জানতে পারেন যে আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর কোনো সদস্য তাঁদের তুলে নেয়নি।

আবুবকরপুর ইউপি চেয়ারম্যান সিরাজ উদ্দিন জমাদার বলেন, রোদ্রেরহাট বাজারের কয়েকজন ব্যবসায়ী তাঁকে জানিয়েছেন যে র‌্যাব ও ডিবির পরিচয়ে বিধান ও সাগরকে আটক করে গাড়িতে তুলে নিয়ে যায়। এ সময় কয়েকজন ব্যবসায়ী বিধানকে আটকের কারণ জানতে চাইলে তারা জানায় যে বোরহানউদ্দিনে সংঘর্ষের ঘটনায় তাদের জিজ্ঞাসাবাদের জন্য নিয়ে যাওয়া হচ্ছে।

পুলিশ সুপার সরকার মোহাম্মদ কায়ছার জানান, ঘটনায় সম্পৃক্তদের শনাক্তকরণপ্রক্রিয়া চলছে। শনাক্তকরণ শেষে অভিযুক্তদের আইনের আওতায় আনা হবে।

এসপির ফেসবুক আইডি হ্যাকড : এদিকে ভোলার পুলিশ সুপার সরকার মোহাম্মদ কায়সারের ব্যক্তিগত ফেসবুক আইডি হ্যাক হয়েছে বলে ভোলা ডিস্ট্রিক্ট পুলিশ পেজে জানানো হয়েছে।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা