kalerkantho

শুক্রবার । ২২ নভেম্বর ২০১৯। ৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৬। ২৪ রবিউল আউয়াল ১৪৪১     

ঘুরে দাঁড়ানোর চেষ্টা সিলেট বিএনপির

২৪ সেপ্টেম্বর মহাসমাবেশের ঘোষণা

সিলেট অফিস   

২০ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ৪ মিনিটে



ঘুরে দাঁড়ানোর চেষ্টা সিলেট বিএনপির

সিলেটে বিভাগীয় মহাসমাবেশের ঘোষণা দিয়েছে বিএনপি। আগামী ২৪ সেপ্টেম্বর সিলেটের রেজিস্ট্রি ময়দানের এ মহাসমাবেশ সফল করতে জোরেশোরে প্রস্তুতি নিচ্ছে সিলেট জেলা ও মহানগর বিএনপি। এর মাধ্যমে ঘুরে দাঁড়াতে চায় দলটি। সেই লক্ষ্যে জেলা বিএনপির পক্ষ থেকে উপজেলা ও ইউনিয়ন পর্যায়ে নেতাকর্মীদের সঙ্গে মতবিনিময় চলছে। পাশাপাশি মহানগর বিএনপি সমাবেশ সফলে সিনিয়র নেতাদের সমন্বয়ে বেশ কয়েকটি উপকমিটি গঠন করেছে। যেকোনো মূল্যে সমাবেশ সফল করার ঘোষণাও দেওয়া হয়েছে।

তবে দিন যত ঘনিয়ে আসছে প্রতীক্ষিত ওই সমাবেশ অনুষ্ঠান হওয়া নিয়ে সংশয়ও বাড়ছে। সমাবেশ অনুষ্ঠানের অনুমতি চাইলেও সিলেট মহানগর পুলিশের (এসএমপি) পক্ষ থেকে এখনো সাড়া মেলেনি। ফলে শেষ পর্যন্ত মহাসমাবেশ হয় কি না তা নিয়ে সংশয় রয়েই যাচ্ছে।

প্রসঙ্গত, দীর্ঘদিন ধরে অনেকটা নিষ্ক্রিয় সিলেট বিএনপি। দিবসকেন্দ্রিক অনুষ্ঠান আর কেন্দ্র ঘোষিত কর্মসূচি দায়সারাভাবে পালন ছাড়া তেমন তত্পরতা চোখে পড়ে না তাদের। তবে এবার বিভাগীয় মহাসমাবেশ সফলভাবে অনুষ্ঠানের মধ্য দিয়ে দলকে আবারও চাঙ্গা করতে এবং ঘুরে দাঁড়াতে চায় তারা। এ জন্য মহাসমাবেশকে ঘিরে সক্রিয় হচ্ছে জেলা ও মহানগর বিএনপি।

সমাবেশে উল্লেখযোগ্য উপস্থিতি নিশ্চিত করতে একেবারে তৃণমূল পর্যায়েও যোগাযোগ চলছে। মহানগরের ওয়ার্ড পর্যায়ে নেতাকর্মীদের উপস্থিতি নিশ্চিত করতে এবং মহাসমাবেশ সফল করতে মহানগর বিএনপির সিনিয়র নেতাদের সমন্বয়ে ৯টি উপকমিটি গঠন করা হয়েছে বলে দলীয় সূত্রে জানানো হয়েছে।

সিলেট জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক আলী আহমদ বৃহস্পতিবার কালের কণ্ঠকে জানান, বিভাগীয় মহাসমাবেশকে ঘিরে দলের সর্বস্তরের নেতাকর্মীদের মধ্যে উদ্দীপনা তৈরি হয়েছে। সমাবেশ সফল করতে নানামুখী কার্যক্রম পরিচালনা করা হচ্ছে। বিভাগীয় মহাসমাবেশের প্রচারের জন্য ব্যানার, পোস্টার ছাপা শেষ হয়েছে। আজ রাত (গতকাল বৃহস্পতিবার) থেকে প্রচারকাজ শুরু হবে। সমাবেশ সফল করার লক্ষ্যে জেলা বিএনপি নানা পদক্ষেপ নিয়েছে জানিয়ে তিনি বলেন, ‘ইতিমধ্যে আমরা দক্ষিণ সুরমা উপজেলা ও সদর উপজেলা বিএনপির প্রস্তুতি সভায় অংশ নিয়েছি। মহাসমাবেশ সফল করতে জেলা শ্রমিক দলের সঙ্গেও মতবিনিময় করেছি। আগামীকাল (আজ শুক্রবার) সকল উপজেলা পৌর কমিটির সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকদের সঙ্গে বৈঠক আছে। এরপর শনিবার বিএনপির সকল অঙ্গসংগঠনের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকের সঙ্গে প্রস্তুতি সভায় বসব আমরা।’ অনুমতি না পেলেও শেষ মুহূর্ত পর্যন্ত আশাবাদী জানিয়ে তিনি আরো বলেন, ‘আমি বিশ্বাস করতে চাই শেষ পর্যন্ত প্রশাসন আমাদের মহাসমাবেশের অনুমতি দেবে।’

দীর্ঘদিন পর বড় কর্মসূচি সফল করতে তত্পর রয়েছে সিলেট মহানগর বিএনপিও। সমাবেশ সফল করতে গত মঙ্গলবার নগরের হলিসাইড হোটেলের হলরুমে এক প্রস্তুতি সভার আয়োজন করা হয়। সভায় মহানগর বিএনপির সভাপতি নাসিম হোসাইন বলেন, ‘মহাসমাবেশ সফলের মাধ্যমে আমরা সরকারকে কঠোর বার্তা দিতে চাই। বার্তাটি হলো, দেশনেত্রী খালেদা জিয়ার মুক্তি নিয়ে আর কোনো টালবাহানা মেনে নেওয়া হবে না।’ যেকোনো মূল্যে বিভাগীয় মহাসমাবেশ সফল করতে বিএনপি ও এর সহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মীদের অগ্রণী ভূমিকা পালনের আহ্বান জানিয়ে তিনি আরো বলেন, ‘এর মাধ্যমে প্রমাণ করতে হবে মহানগর বিএনপি যেকোনো সময়ের তুলনায় এখন শক্তিশালী।’ প্রস্তুতি সভায় মহানগর বিএনপি, ২৭টি ওয়ার্ড এবং অঙ্গ ও সহযোগী সংগঠনের বিভিন্ন পর্যায়ের নেতাকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন। এ সময় দলের ওয়ার্ড ও অঙ্গসংগঠনের নেতারা নিজ নিজ উদ্যোগে নেতাকর্মীদের উপস্থিতি নিশ্চিতের প্রতিশ্রুতি দেন।

মহানগর বিএনপির সভাপতি নাসিম হোসাইন বলেন, ‘২৪ সেপ্টেম্বরের বিভাগীয় মহাসমাবেশ সিলেট মহানগরে অনুষ্ঠিত হবে। এ জন্য তা সফল করতে মহানগর বিএনপির অঙ্গ ও সহযোগী সংগঠনের দায়বদ্ধতা বেশি। প্রতিটি ওয়ার্ডে গণসংযোগের মাধ্যমে আমরা দেশনেত্রী খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবিতে অনুষ্ঠিতব্য মহাসমাবেশকে জনসমুদ্রে পরিণত করতে চাই।’

এদিকে মহাসমাবেশের অনুমতি পাওয়া না পাওয়ার দোলাচল প্রসঙ্গে জেলা বিএনপির সভাপতি আবুল কাহের চৌধুরী শামীম কালের কণ্ঠকে বলেন, ‘সমাবেশের আবেদন করা হলেও এখন পর্যন্ত অনুমোদন দেওয়া হয়নি। পুলিশ কমিশনার আমাদের সামনে আসতে চান না। সাক্ষাত্কার দেওয়ার সৌজন্যটুকুও দেখান না।’ তবে শেষ পর্যন্ত মহাসমাবেশের অনুমতি পাওয়ার বিষয়ে তিনি আশাবাদী জানিয়ে বলেন, ‘আশা করছি গণতান্ত্রিক কর্মসূচি পালনের অনুমতি দেবে তারা। সরকারি দল সব সুবিধা পায় শুধু বিরোধী দলের বেলায় বিধি-নিষেধ আর আইন দেখানো হয়।’

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা