kalerkantho

হাইকোর্টের নির্দেশ

কাবিননামায় ‘কুমারী’ শব্দ বাদ, বরের বৈশিষ্ট্য যুক্ত

নিজস্ব প্রতিবেদক   

২৬ আগস্ট, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



কাবিননামায় ‘কুমারী’ শব্দ বাদ, বরের বৈশিষ্ট্য যুক্ত

মুসলমানদের বিয়ের কাবিননামা হিসেবে পরিচিত রেজিস্ট্রেশন ফরমের (নিকাহনামা) ৫ নম্বর কলাম থেকে ‘কুমারী’ শব্দ বাদ দিতে নির্দেশ দিয়েছেন হাইকোর্ট। কনের পরিচিতির ক্ষেত্রে ‘কুমারী’ শব্দের পরিবর্তে ‘অবিবাহিত’ শব্দ প্রতিস্থাপন করতে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। একই সঙ্গে ৪ নম্বর কলামে ‘ক’ উপকলাম নতুন করে যুক্ত করে সেখানে বরের ক্ষেত্রে বিবাহিত, বিপত্নীক ও তালাকপ্রাপ্ত শব্দ সংযোজন করতে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।  

বিচারপতি নাইমা হায়দার ও বিচারপতি খিজির আহমেদ চৌধুরীর সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্ট বেঞ্চ গতকাল রবিবার এক রায়ে এসব নির্দেশ দেন। রায়ে নিকাহনামা ছাপাতে সরকারকে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

বাংলাদেশ লিগ্যাল এইড অ্যান্ড সার্ভিসেস ট্রাস্ট, নারীপক্ষ এবং বাংলাদেশ মহিলা পরিষদের করা এক রিট আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে জারি করা রুলের ওপর চূড়ান্ত শুনানি শেষে ওই রায় দেওয়া হয়। আদালতে রিট আবদেনকারীপক্ষে আইনজীবী ছিলেন অ্যাডভোকেট জেড আই খান পান্না, আইনুন্নাহার সিদ্দিকা। রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল অমিত তালুকদার।

মুসলিম বিবাহ ও তালাক (নিবন্ধন) বিধিমালা, ২০০৯-এর বিধি ২৮(১)(ক) অনুযায়ী বিবাহ রেজিস্ট্রি ফরমের ৫ নম্বর কলামে উল্লেখ আছে, ‘কন্যা কুমারী, বিধবা অথবা তালাকপ্রাপ্তা নারী কিনা?’ এই বিধিটি একজন বিবাহ উপযুক্ত নারীর জন্য অসম্মানজনক উল্লেখ করে তা বাতিল চেয়ে ২০১৪ সালে হাইকোর্টে রিট করা হয়েছিল। রিট আবেদনে বলা হয়েছিল, একবিংশ শতাব্দীতে একটা মেয়ে কুমারী থাকল কি থাকল না তা নিয়ে প্রশ্ন তোলা খুবই অসম্মানজনক। সিডওতে সরকার সই করেছে নারী-পুরুষ সমতার প্রশ্নে। সেখানে কাবিননামায় ওই বিধি থাকাটা নারীর অধিকারকে খর্ব করে। এ ধরনের কলাম যুক্ত থাকা সংবিধানের ২৭, ২৮, ৩১ ও ৩২ অনুচ্ছেদ অনুযায়ী বৈষম্যমূলক ও সংবিধানপরিপন্থী। এরপর আদালত রুল জারি করেন।

ওই রুলের ওপর শুনানিতে অ্যামিকাস কিউরি হিসেবে আদালতে বক্তব্য দেন ব্যারিস্টার বেলায়েত হোসেন। তিনি বলেন, ফরমের ৫ নম্বর কলামে ‘কুমারী’ শব্দটি থাকা উচিত নয়। এই শব্দটি ব্যক্তির মর্যাদা ও গোপনীয়তাকে ক্ষুণ্ন করে, যা সংবিধানের সঙ্গে সাংঘর্ষিক। এ ছাড়া ধর্মীয় রীতি অনুযায়ী এগুলো থাকা বাধ্যতামূলক নয়। মুসলিম শরীয়তে বিয়ের ক্ষেত্রে এ ধরনের কোনো শর্ত নেই।

 

মন্তব্য