kalerkantho

ডেঙ্গু আক্রান্ত ২৪৮০৪ জন

সুস্থ হয়ে হাসপাতাল ছেড়েছে ১৭৩৮৮

অতিরিক্ত আইজিপির স্ত্রীসহ আরো সাতজনের মৃত্যু

নিজস্ব প্রতিবেদক   

৫ আগস্ট, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ১০ মিনিটে



সুস্থ হয়ে হাসপাতাল ছেড়েছে ১৭৩৮৮

ডেঙ্গুতে আক্রান্ত শিশুটি। গতকাল হলি ফ্যামিলি হাসপাতালে তার দেহে নার্সরা স্যালাইনের সুই ঢোকাতে গেলে কান্নায় ভেঙে পড়ে। ছবি : শেখ হাসান

আগস্টের শুরুতে রাজধানীতে ডেঙ্গু রোগীর সংখ্যা কমে আসায় মানুষের মনে কিছুটা স্বস্তি ফিরতে শুরু করেছিল। দুঃসংবাদ হলো, গত শনিবার সকাল ৮টা থেকে গতকাল রবিবার সকাল ৮টা পর্যন্ত পাওয়া তথ্যে ফের বেড়েছে ডেঙ্গু রোগীর সংখ্যা। গত ২৪ ঘণ্টায় ঢাকার বাইরের বিভিন্ন হাসপাতালে ভর্তি হয়েছে ৮১৭

জন, যা আগের দিন ছিল ৬৮০ জন। গত ১ জানুয়ারি থেকে গতকাল সকাল পর্যন্ত সারা দেশে হাসপাতালে ডেঙ্গু রোগী ভর্তি হয় ২৪ হাজার ৮০৪ জন। এদের মধ্যে ১৭ হাজার ৩৮৮ জন চিকিৎসার মাধ্যমে হাসপাতাল থেকে ছাড়পত্র নিয়ে বাড়ি ফিরেছে। বাকি সাত হাজার ৩৯৮ জন বিভিন্ন হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আছে।

এডিস মশা নিয়ন্ত্রণের লক্ষ্যে রাজধানীতে দূরপাল্লার বাসে যাত্রী উঠার আগে মশার ওষুধ ছিটানো হবে। এ ছাড়া ডেঙ্গু প্রতিরোধের লক্ষ্যে রাজধানীর চারটি বাস টার্মিনালে কমিটি করা হয়েছে। ঢাকা সড়ক পরিবহন মালিক সমিতির উদ্যোগে সমিতির কার্যালয়ে গতকাল রবিবার বিকেলে পরিবহন মালিক-শ্রমিকদের যৌথ বৈঠকে এসব সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। আগামীকাল মঙ্গলবার থেকে এসব সিদ্ধান্ত কার্যকর করা হবে বলে বৈঠক সূত্রে জানা গেছে।

সূত্র মতে, রাজধানীর সায়েদাবাদ, গাবতলী, মহাখালী ও ফুলবাড়িয়া বাস টার্মিনালে দিনে তিনবার মশার ওষুধ ছিটানোর সিদ্ধান্ত হয়েছে। এসব টার্মিনালে জমে থাকা পনি ও ময়লা পরিষ্কার করা হবে। চারটি বাস টার্মিনালের জন্য চারটি ফগার মেশিন কেনা হবে। এসব সিদ্ধান্ত বাস্তবায়ন অগ্রগতি তদারকির জন্য সমিতির সাংগঠনিক সম্পাদক মাহবুবুর রহমানের নেতৃত্বে কমিটি করা হয়েছে। বৈঠকে সভাপতিত্ব করেন ঢাকা সড়ক পরিবহন মালিক সমিতির মহাসচিব খন্দকার এনায়েত উল্ল্যাহ।

গত ২৪ ঘণ্টায় এক হাজার ৮৭০ রোগী দেশের বিভিন্ন হাসপাতালে ভর্তি হয়েছে বলে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের হেলথ ইমার্জেন্সি অপারেশন্স সেন্টার ও কন্ট্রোল রুম থেকে জানানো হয়েছে। এর আগে গত ১ আগস্ট ২৪ ঘণ্টায় সর্বোচ্চ রোগী ভর্তির সংখ্যা ছিল ১ হাজার ৭১২।

গত ২৪ ঘণ্টায় রাজধানীসহ সারা দেশে ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হয়ে সাতজনের মৃত্যু হয়েছে। এদের মধ্যে ছয়জনই নারী। পুলিশের অতিরিক্ত মহাপরিদর্শক (এআইজিপি) শাহাবুদ্দীন কোরেশীর স্ত্রী সৈয়দা আক্তার (৫৪) মারা গেছেন রাজধানীর স্কয়ার হাসপাতালে। মাগুরার গৃহবধূ জয়ন্তী সাহা (৩২) মারা গেছেন  রাজধানীর অ্যাপোলো হাসপাতালে। চাঁদপুরের মতলব দক্ষিণ উপজেলার খাদেরগাঁও ইউনিয়ন পরিষদের নারী সদস্য লাভলী বাশার (৩৫) ঢাকার শমরিতা হাসপাতালে মারা গেছেন। ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে দিপালী আক্তার নামে এক নারীর মৃত্যু হয়েছে। এদিকে রাজধানীর জিগাতলার জাপান-বাংলাদেশ ফ্রেন্ডশিপ হাসপাতালে মারা গেছেন শান্তা (২০) নামের এক তরুণী। অন্য দুজন মারা গেছেন খুলনায়। তাঁরা হলেন রূপসার কাজদিয়ার মো. মঞ্জুর শেখ (১৫) ও দিঘলিয়ার ব্রহ্মগাতী গ্রামের মর্জিনা বেগম (৬৫)।

গত ২৪ ঘণ্টায় ডেঙ্গু আক্রান্ত এক হাজার ৮৭০ জনের মধ্যে রাজধানীর হাসপাতালগুলোতে এক হাজার ৫৩ জন এবং দেশের আট বিভাগে ৮১৭ জন রোগী হাসপাতালে ভর্তি হয়েছে। রাজধানীর বাইরে ঢাকা বিভাগের জেলাগুলোতেই সবচেয়ে বেশি ডেঙ্গু রোগী শনাক্ত হয়েছে। গত ২৪ ঘণ্টায় এসব জেলার হাসপাতালগুলোতে ডেঙ্গু নিয়ে ভর্তি হয়েছে ২১৬ জন। তাদের নিয়ে মোট চিকিৎসাধীন ৪৪৩ জন।

সরকারি হিসাবে গতকাল পর্যন্ত মারা গেছে ১৮ জন। তবে বিভিন্ন গণমাধ্যমের তথ্য অনুযায়ী মৃতের সংখ্যা অনেক আগেই ৬০ ছাড়িয়েছে।

চট্টগ্রাম বিভাগে নতুন ডেঙ্গু রোগী ১৫৯ ও চিকিৎসাধীন ৪১৬ জন, খুলনা বিভাগে নতুন ১২৭ ও চিকিৎসাধীন ৪২১ জন, রাজশাহী বিভাগে নতুন রোগী ৮৩ ও চিকিৎসাধীন ৩৪২ জন, বরিশাল বিভাগে নতুন ৭৮ ও চিকিৎসাধীন ২২৯ জন, ময়মনসিংহ বিভাগে নতুন ৭০ ও চিকিৎসাধীন ২৬৮ জন, রংপুর বিভাগে নতুন ৫৩ ও ভর্তি ২১৫ জন এবং সিলেট বিভাগে নতুন শনাক্ত ৩১ ও হাসপাতালে ভর্তি ৯৯ জন।

স্বাস্থ্য অধিদপ্তর সূত্র জানায়, গত ২৪ ঘণ্টায় ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হয়ে ঢাকা মেডিক্যালে ভর্তি হয়েছে ১৩৪ জন, যা আগের দিন ছিল ৫৪ জনে। কুর্মিটোলা হাসপাতালে ভর্তি হয়েছে ১১৩ জন, যা আগের দিন ছিল ৪৮ জন, মিটফোর্ড হাসপাতালে ভর্তি হয়েছে ৯৭ জন, যা আগের দিন ছিল ১৪৩ জন। মুগদা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি হয় ৮৩ জন, আগের দিন যা ছিল ১০০ জন। শহীদ সোহরাওয়ার্দী মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি ৫৫ জন, আগের দিন এই সংখ্যা ৬২, রাজারবাগ পুলিশ হাসপাতালে শনিবার ভর্তি হয় ১৭ জন, আগের দিন তা ছিল ৫৬ জন।

অতিরিক্ত আইজিপির স্ত্রীর মৃত্যু : এবার ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হয়ে পুলিশের অতিরিক্ত মহাপরিদর্শক (এআইজিপি) শাহাবুদ্দীন কোরেশীর স্ত্রী সৈয়দা আক্তার (৫৪) মারা গেছেন। গতকাল রবিবার সকাল সাড়ে ১১টার দিকে রাজধানীর স্কয়ার হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি মারা যান।

পুলিশ সদর দপ্তর সূত্র জানায়, চট্টগ্রামের রাঙ্গুনিয়ার বাসিন্দা ও নগরের নজরের টিলা এলাকায় থাকতেন শাহাবুদ্দীন কোরেশীর স্ত্রী সৈয়দা আক্তার। সম্প্রতি তিনি জ্বরে আক্রান্ত হন। পরে তাঁকে গত ৩০ জুলাই রাজারবাগ পুলিশ লাইনস হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সেখানে রক্ত পরীক্ষায় ডেঙ্গু ধরা পড়ে। পরে অবস্থার অবনতি হলে গত শনিবার তাঁকে স্কয়ার হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। গতকাল সকাল সাড়ে ১১টার দিকে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাঁকে মৃত ঘোষণা করেন।

তরুণীর মৃত্যু : ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হয়ে রাজধানীর জিগাতলার জাপান-বাংলাদেশ ফ্রেন্ডশিপ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় শান্তা নামের এক তরুণীর মৃত্যু হয়েছে। মাত্রাতিরিক্ত জ্বর নিয়ে গত শনিবার তিনি এই হাসপাতালে ভর্তি হয়েছিলেন।

চাঁদপুরের নারী ইউপি সদস্যের মৃত্যু : ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হয়ে চাঁদপুরের মতলব দক্ষিণ উপজেলার খাদেরগাঁও ইউনিয়ন পরিষদের নারী সদস্য লাভলী বাশার (৩৫) মারা গেছেন। গত শনিবার রাতে রাজধানীর শমরিতা হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি মারা যান। লাভলী বাশার উপজেলার ৩ নম্বর খাদেরগাঁও ইউপির সংরক্ষিত ৪, ৫ ও ৬ নম্বর ওয়ার্ডের নির্বাচিত সদস্য। তাঁর বাড়ি উপজেলার নাগদা এলাকায়। তিনি স্থানীয় একটি মাদরাসার শিক্ষক আবুল বাশারের স্ত্রী।

জানা যায়, চার-পাঁচ দিন আগে ঢাকায় একটি বিয়ের অনুষ্ঠানে যান লাভলী। সেখান থেকে গত বুধবার বাড়ি ফেরেন। গত বৃহস্পতিবার দুপুরে জ্বরে আক্রান্ত হন তিনি। ওই দিন বিকেলে চাঁদপুর জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি হয়ে ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হওয়ার বিষয়টি নিশ্চিত হন। সেখানে চিকিৎসা নেওয়ার পরও অবস্থার উন্নতি না হওয়ায় পরিবারের লোকজন তাঁকে গত শনিবার বিকেলে ঢাকায় নিয়ে আসেন। পরে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি মারা যান।

খুলনায় স্কুল শিক্ষার্থীসহ দুজনের মৃত্যু : খুলনায় ডেঙ্গু আক্রান্ত হয়ে স্কুলছাত্রসহ দুজনের মৃত্যু হয়েছে বলে নিশ্চিত করেছেন খুলনার সিভিল সার্জন ডা. এ এস এম আব্দুর রাজ্জাক। রূপসার কাজদিয়া সরকারি কলেজিয়েট স্কুলের দশম শ্রেণির ছাত্র মো. মঞ্জুর শেখ জ্বরে আক্রান্ত হয়ে গত শনিবার খুলনা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি হয়। প্রথমে তাকে খুলনা সিটি মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ও পরে গাজী মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। কিন্তু চিকিৎসাধীন অবস্থায় গতকাল রবিবার সকাল সাড়ে ৬টার দিকে সে মারা যায়।

দিঘলিয়ার ব্রহ্মগাতী গ্রামের ইসরাইল সরদারের স্ত্রী মর্জিনা বেগম গত শনিবার রাতে মারা যান। তাঁর স্বজনরা জানায়, মর্জিনা বেগম লিভার রোগে আক্রান্ত ছিলেন। লিভারের চিকিৎসার জন্য ঢাকায় গিয়ে তিনি ডেঙ্গু আক্রান্ত হন। সপ্তাহখানেক আগে খুলনা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসা নেন। শনিবার রাতে তিনি মারা যান।

মাগুরার গৃহবধূর ঢাকায় মৃত্যু : ডেঙ্গু আক্রান্ত হয়ে মাগুরা সদর উপজেলার পুটিয়া গ্রামের গৃহবধূ জয়ন্তী সাহা (৩২) রাজধানীর অ্যাপোলো হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় গতকাল মারা গেছেন। জয়ন্তী সাহ বেরইল পরিতা ইউনিয়নের পুটিয়া গ্রামের চঞ্চল মিত্রের স্ত্রী। তাঁর বড় ভাই মিলন সাহা জানান, জয়ন্তী তিন দিন আগে শ্বশুরবাড়ি পুটিয়া গ্রামে জ্বরে আক্রান্ত হয়। প্রথমে তাঁরা স্বাভাবিক জ্বর মনে করলেও শানিবার সকালে তাঁর অবস্থার অবনতি হয়। পরে তাঁকে ফরিদপুর নেওয়া হয়। সেখান শারীরিক অবস্থার আরো অবনতি হলে উন্নত চিকিৎসার জন্য শনিবার বিকেলেই তাঁকে ঢাকায় নেওয়া হয়। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় রবিবার ভোরে তাঁর মৃত্যু হয়। এদিকে দেশের বিভিন্ন স্থান থেকে আমাদের প্রতিনিধিদের পাঠানো তথ্যে জানা যায়, ঢাকার বাইরের বিভিন্ন জেলার হাসপাতালগুলোতেও বাড়ছে ডেঙ্গু রোগীর সংখ্যা। এ ছাড়া ডেঙ্গু পরীক্ষার জন্য কিট সংকট এবং পরীক্ষায় অতিরিক্ত ফি আদায়ের ঘটনাও ঘটেছে। এমনকি উপজেলাপর্যায়ের অনেক সরকারি হাসপাতালেও ডেঙ্গু রোগের পরীক্ষার ব্যবস্থা না থাকায় রোগীদের অসহনীয় দুর্ভোগে পড়তে হচ্ছে, ছুটতে হচ্ছে বেসরকারি ক্লিনিকসহ জেলা সদরে।

চট্টগ্রামে নতুন করে ডেঙ্গু আক্রান্ত হয়েছে আরো ৩২ জন। গত ২৪ ঘণ্টায় চট্টগ্রাম মেডিক্যাল কলেজ (চমেক) হাসপাতালসহ সরকারি-বেসরকারি ১১টি হাসপাতালে এসব রোগী ভর্তি হয়েছে। এ নিয়ে গত ৩৫ দিনে চট্টগ্রামে ডেঙ্গু রোগীর সংখ্যা দাঁড়াল ৩৩১ জনে।

ফরিদপুরে গত ২৪ ঘণ্টায় আরো ২০ জন ডেঙ্গু আক্রান্ত রোগী হাসপাতালে ভর্তি হয়েছে। এর মধ্যে ফরিদপুর মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি হয়েছে ১৮ জন ও ফরিদপুর জেনারেল হাসপাতালে দুজন। ফরিদপুরের সিভিল সার্জন ডা. মো. এনামুল হক জানান, ডেঙ্গু আক্রান্ত হয়ে বিভিন্ন হাসপাতালে ভর্তি হয়েছে ২২৭ জন। এর মধ্যে সুস্থ হয়ে বাড়িতে ফিরে গেছে ৬০ জন। ঢাকায় স্থানান্তর করা হয়েছে ১৪ জনকে। মারা গেছে একজন। বর্তমানে চিকিৎসাধীন ১৫২ জন।

উত্তরবঙ্গের অন্যতম চিকিৎসাকেন্দ্র রংপুর মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে এখনো ডেঙ্গু শনাক্তকরণ পরীক্ষা শুরু হয়নি। তবে বেসরকারি ডায়াগনস্টিক সেন্টারেও কিট সংকট দেখা দেওয়ায় পরীক্ষা ব্যাহত হচ্ছে। রংপুর মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে গতকাল পর্যন্ত ১৫ শিশু ও ১১ জন নারীসহ মোট ১১২ জন ভর্তি হয়। তাদের মধ্যে ২০ জন রোগী চিকিৎসা নিয়ে হাসপাতাল ছেড়েছে।

নীলফামারী সদর আধুনিক হাসপাতালে ডেঙ্গু আক্রান্ত হয়ে গতকাল দুজন ভর্তি হয়। এ নিয়ে এই হাসপাতালে ভর্তি হওয়া রোগীর সংখ্যা দাঁড়াল ৯ জনে। নীলফামারীর সৈয়দপুরে মিশন জেনারেল হাসপাতাল অ্যান্ড পপুলার ল্যাবে ডেঙ্গু পরীক্ষায় অতিরিক্ত ফি আদায়ের কারণে ১১ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে। দিনাজপুরের পার্বতীপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স হাসপাতালে ডেঙ্গু রোগ পরীক্ষার যন্ত্রপাতি না থাকায় মানুষ ভোগান্তিতে পড়েছে। তবে বেসরকারি ক্লিনিকে ডেঙ্গু পরীক্ষায় এখন পর্যন্ত আটজনকে শনাক্ত করা হয়েছে।

হবিগঞ্জের আধুনিক জেলা সদর হাসপাতালে গতকাল আরো দুজন নতুন ডেঙ্গু রোগী ভর্তি করা হয়েছে। এ নিয়ে এই হাসপাতালে ২৫ জন ডেঙ্গু রোগী শনাক্ত করা হয়েছে। এ ছাড়া আরেকটি বেসরকারি ক্লিনিকে ডাক্তারসহ তিনজনের পরীক্ষায় ডেঙ্গু ধরা পড়ে। গাইবান্ধা সদর আধুনিক হাসপাতালে গতকাল নতুন পাঁচজন ডেঙ্গু রোগী ভর্তি করা হয়েছে। এই হাসপাতাল থেকে এখন পর্যন্ত ২৫ জন ডেঙ্গু রোগী শনাক্ত করা হয়েছে। রাঙামাটির লংগদুতেও রাজু বেগম নামের একজন ডেঙ্গু রোগী শনাক্ত করা হয়েছে।

বাগেরহাটে এখন পর্যন্ত ১৫ জন ডেঙ্গু রোগী শনাক্ত করা হয়েছে। এর মধ্যে ১০ জন চিকিৎসা নিয়ে বাড়ি ফিরে গেছে, আর বাকি পাঁচজন এখনো বাগেরহাট সদর হাসপাতালে ভর্তি রয়েছে। গোপালগঞ্জে ডেঙ্গু আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৩৮, যাদের মধ্যে বিভিন্ন হাসপাতালে ভর্তি আছে ১৯ জন। ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় এখন পর্যন্ত ৬৩ জন ডেঙ্গু রোগী শনাক্ত করা হয়েছে। এর মধ্যে ২০ জনের বেশি সুস্থ হয়েছে। বাগেরহাটের শরণখোলায় গত শনিবার রাতে জোবায়দা বেগম (৬০) নামের এক বৃদ্ধার ডেঙ্গু রোগ শনাক্ত হয়েছে।

ময়মনসিংহ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন রোগী ভর্তি হয়েছে ৫৭ জন। চট্টগ্রামের পটিয়ায় আরো দুজন ডেঙ্গু রোগী শনাক্ত হয়েছে।

 

মন্তব্য