kalerkantho

অ্যাপোলোতে চিকিৎসকের অবহেলায় রোগী সংকটাপন্ন

নিজস্ব প্রতিবেদক   

৭ জুলাই, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



অ্যাপোলোতে চিকিৎসকের অবহেলায় রোগী সংকটাপন্ন

রাজধানীর অ্যাপোলো হাসপাতালে চিকিৎসকের অবহেলার কারণে এক রোগীর অবস্থা সংকটাপন্ন। শফিকুর রহমান নামের এই রোগী বসুন্ধরা গ্রুপের সিনিয়র ডেপুটি ম্যানেজিং ডিরেক্টর মো. বেলায়েত হোসেনের ভাগ্নে।

তাঁর স্বজনরা জানায়, শফিকুর রহমান অ্যাপোলো হাসপাতালের নিউরোসার্জন ডা. জিল্লুর রহমানের তত্ত্বাবধানে চিকিৎসাধীন। গত ২৫ জুন তাঁকে অ্যাপোলো হাসপাতালের আইসিইউতে ভর্তি করা হয়। গত মঙ্গলবার তাঁকে বেডে স্থানান্তর করা হয়। এ সময় তাঁকে অনেকটা সুস্থ মনে হয়। এরপর গত বৃহস্পতিবার বেডে থাকা অবস্থায় তাঁর প্রচণ্ড জ্বর আসে এবং রক্তচাপ বেড়ে যায়। কর্তব্যরত চিকিৎসককে বিষয়টি জানালে তিনি তাঁকে দেখতে আসেননি। চিকিৎসককে অন্তত পাঁচবার অনুরোধ করার পরও তিনি দেখতে আসেননি এবং রোগীকে না দেখেই হাসপাতাল ত্যাগ করেন। এ অবস্থায় রোগীর অবস্থার অবনতি ঘটতে থাকে এবং তাঁকে ওই দিনই আবারও আইসিইউতে নিয়ে যাওয়া হয়। সেখানে গতকাল শনিবার তাঁর এমআরআই ও সিটি স্ক্যান করা হয়। রিপোর্ট দেখে চিকিৎসক জানান, দ্বিতীয় ধাপে তাঁর স্ট্রোক হয়েছে।

বেলায়েত হোসেনের অভিযোগ, তাঁর অবস্থা খারাপ হওয়ার সময় কর্তব্যরত চিকিৎসক না আসায় দ্বিতীয়বার স্ট্রোক করেছে। ওই সময় তাঁর চিকিৎসক ডা. জিল্লুর রহমান ঢাকার বাইরে ছিলেন। তিনি আরো অভিযোগ করেন, দ্বিতীয়বার আইসিইউতে নিয়ে যাওয়ার পর ভাগ্নে শফিকুর রহমানকে মনিটরে দেখানো হচ্ছে না। তাঁদের দেখতেও দেওয়া হচ্ছে না। শফিকুর রহমানের স্ত্রী নুরজাহান বলেন, চিকিৎসায় অবহেলা করে তাঁর স্বামীকে মৃত্যুর দিকে ঠেলে দেওয়া হচ্ছে।

এ বিষয়ে বক্তব্য নিতে চাইলে অ্যাপোলো কর্তৃপক্ষ সহযোগিতা করেনি। শফিকুর রহমানের গ্রামের বাড়ি কুমিল্লার বরুড়া থানার চেঙ্গাহাটা গ্রামে।

মন্তব্য