kalerkantho

বুধবার । ১৬ অক্টোবর ২০১৯। ১ কাতির্ক ১৪২৬। ১৬ সফর ১৪৪১       

ভারত-নিউজিল্যান্ড ম্যাচেও বৃষ্টির চোখ-রাঙানি

ক্রীড়া প্রতিবেদক   

১৩ জুন, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ৪ মিনিটে



ভারত-নিউজিল্যান্ড ম্যাচেও বৃষ্টির চোখ-রাঙানি

‘দ্য বিটলসের’ বিখ্যাত গান ‘ইফ দ্য রেন কামস/দে রান অ্যান্ড হাইড দেয়ার হেডস’। এবারের বিশ্বকাপটাও এগোচ্ছে সেই গানের সুরে তাল মিলিয়ে। ম্যাচ বাতিল হয়েছে তিন তিনটি! বিশ্বকাপ ইতিহাসের এক আসরে এত বেশি ম্যাচ ভেসে যাওয়ার নজির নেই। বৃষ্টির শঙ্কা জেনেও আইসিসির রিজার্ভ ডে না রাখা নিয়ে আইসিসিকে খোঁচা দিয়েছেন বাংলাদেশ কোচ স্টিভ রোডস। এই খোঁচাটা আজ সমালোচনার ঝড় হয়ে আছড়ে পড়তে পারে ভারত-নিউজিল্যান্ডের ম্যাচ বাতিল হলে।

ট্রেন্টব্রিজে টানা বৃষ্টিতে পিচ ঢাকা তিন দিন ধরে। পুরোদমে অনুশীলনও করতে পারছেন না দুই দলের ক্রিকেটাররা। আবহাওয়ার পূর্বাভাস বলছে আজ বৃষ্টির শঙ্কা ৬০ শতাংশ। গত রাতে টানা বৃষ্টি হয়ে থাকলে মাঠ শুকাতে হিমশিম খেতে হবে মাঠকর্মীদের। শেষ পর্যন্ত বৃষ্টির চোখ-রাঙানি উপেক্ষা করে ম্যাচ হলে ট্রেন্ট বোল্ট, লকি ফার্গুসন, জিমি নিশামদের আগুনে পুড়তে হতে পারে বিরাট কোহলির দলকে।

বিশ্বকাপ শুরুর আগে খেলা প্রস্তুতি ম্যাচে কিউই পেসারদের সামনে লেজেগোবরে হাল হয়েছিল ভারতের। বোল্ট ৪ ও নিশাম ৩ উইকেট নিয়ে গুঁড়িয়ে দিয়েছিলেন ১৭৯ রানে। বৃষ্টিস্নাত ম্যাচে আগে টস জিতে বোলিংয়ের সুযোগ পেলে তাদের সামলানোটা সহজ হওয়ার কথা নয় আজও। তাই গতকাল সংবাদ সম্মেলনে ভারতকে ভয় না পাওয়ার কথাই জানালেন কিউই ব্যাটসম্যান রস টেলর ,‘ এখনই সেমিফাইনাল নিয়ে কিছু বলা সম্ভব না। বাস্তবতা হচ্ছে অন্তত সাতটি দল ভালোভাবে আছে সেমিফাইনালের দৌড়ে। ভারতের সঙ্গে গত কিছুদিনে অনেকগুলো ম্যাচ খেলেছি। সেখানে সাফল্যও আছে আমাদের।’

ইনজুরির জন্য শিখর ধাওয়ান তিন সপ্তাহ মাঠের বাইরে চলে যাওয়ায় সমস্যা আরো বেড়েছে কোহলির দলের। অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে সেঞ্চুরি করা ধাওয়ানের জায়গায় ইনিংস ওপেন করবেন লোকেশ রাহুল। চার নম্বরে ভাবা হচ্ছে বিজয় শঙ্কর বা দীনেশ কার্তিককে। গুরুত্বপূর্ণ এই পজিশনের জন্য ভারতীয় টিম ম্যানেজমেন্ট ব্যাকআপ হিসেবে উড়িয়ে আনছে ঋষভ পান্টকে। তবে এখনই শিখর ধাওয়ানের বিশ্বকাপ শেষ বলে মানছে না ভারতীয় সহকারী কোচ সঞ্জয় বাঙ্গার,‘ আগামী ১০-১২ দিনে বোঝা যাবে ধাওয়ানের সেরে ওঠার ব্যাপারটা। আমরা অপেক্ষা করব। ওর মত গুরুত্বপূর্ণ খেলোয়াড়কে এখনই বাদ দেয়া যায় না।’

বিশ্বকাপের প্রাথমিক দলে ঋষভ পান্টকে না নেওয়ায় নির্বাচকদের সমালোচনা করেছিলেন সুনীল গাভাস্কারের মতো কিংবদন্তি। আইপিএলে দুর্দান্ত ব্যাটিংয়ে নিজের দাবি জানিয়ে রেখেছিলেন এই উইকেটরক্ষক ব্যাটসম্যান। শিখর ধাওয়ানের ইনজুরিতে বিশ্বকাপ দরজাটা শেষ পর্যন্ত খুলল তাঁর। নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে খেলার কোনো সম্ভাবনা নেই পান্টের। পাকিস্তানের বিপক্ষে এই তরুণ মাঠে নামলে ধরে নিতে হবে শিখর ধাওয়ানের বিশ্বকাপ শেষ। কারণ দলের কোনো একজনের বদলি হয়েই শুধু সেরা একাদশে নামতে পারবেন তিনি। পান্টের সঙ্গে ধাওয়ান তখনই থাকতে পারবেন যদি এর মধ্যে চোট পেয়ে ছিটকে যান অন্য কেউ।

এবারের বিশ্বকাপে ভারত আর নিউজিল্যান্ডই অপরাজিত এখন পর্যন্ত। টানা তিন ম্যাচ জিতে পয়েন্ট টেবিলের চূড়ায় কিউইরা। ভারত টুর্নামেন্ট শুরু করেছে দক্ষিণ আফ্রিকা ও অস্ট্রেলিয়ার মতো প্রবল দুই প্রতিপক্ষকে বিধ্বস্ত করে। ভারতীয় বিখ্যাত ব্যাটিংকে অবশ্য ভয় পাচ্ছেন না কিউই পেসার লকি ফার্গুসন। বরং শিখর ধাওয়ান ছিটকে যাওয়ায় আফসোসই ঝরল তাঁর কণ্ঠে, ‘ধাওয়ান বাঁহাতি। ওর বিপক্ষে বোলিংয়ের বিশেষ পরিকল্পনা ছিল আমার। ভারতীয় অন্য ব্যাটসম্যানরাও দুর্দান্ত। আমরা রান আটকাতে প্রচুর ডট বল করতে চাই।’

দুই দলের সবশেষ সিরিজে ভারত দাপটে জিতেছে ৪-১ ব্যবধানে। তাও নিউজিল্যান্ডেরই মাঠে। বিশ্বকাপ প্রস্তুতি ম্যাচে ২০০-র আগে গুটিয়ে যাওয়া একটা বাজে দিন হিসেবে দেখছেন বিরাট কোহলিরা। চাপ কাটাতে দলের সবাই উপভোগ করেছেন সালমান খানের ঈদ ব্লকবাস্টার ‘ভারত’ মুভিটি। আজ ম্যাচ পরিকল্পনায় তাদের ভালোভাবে আছে তিন পেসার খেলানোর ছক। সে ক্ষেত্রে একাদশে আসবেন মোহাম্মদ সামি। আর বেঞ্চে কাটাতে হবে কুলদীপ যাদবকে। বৃষ্টিতে ম্যাচের আয়ু কমে ‘টি-টোয়েন্টি’ হয়ে পড়লে শেষ বেলায় দুই দলেরই পরিকল্পনা বদলাতে পারে আরো একবার।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা