kalerkantho

রবিবার । ১১ আশ্বিন ১৪২৮। ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২১। ১৮ সফর ১৪৪৩

অর্থমন্ত্রী বললেন

দুর্যোগে রক্ষাকবচ হবে বদ্বীপ ব্যবস্থাপনা

নিজস্ব প্রতিবেদক   

১৭ জুন, ২০১৫ ০০:০০ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



দুর্যোগে রক্ষাকবচ হবে বদ্বীপ ব্যবস্থাপনা

অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত বলেছেন, প্রাকৃতিক দুর্যোগের কারণে প্রতিবছর হাজার হাজার একর জমি বিলীন হয়ে যায়। সরকার শত বছর মেয়াদি নতুন যে ডেল্টা প্ল্যান বা বদ্বীপ পরিকল্পনা হাতে নিয়েছে, এর মাধ্যমে প্রাকৃতিক দুর্যোগ ও জলবায়ু পরিবর্তনের প্রভাব মোকাবিলা করা সম্ভব বলে জানান অর্থমন্ত্রী।

গতকাল মঙ্গলবার রাজধানীর শেরে বাংলানগরের এনইসি সম্মেলন কক্ষে 'টুওয়ার্ডস রিসিলিয়েন্ট অ্যান্ড সাসটেইনেবল ডেল্টা ম্যানেজমেন্ট ফর এ প্রোসপরাস বাংলাদেশ' শীর্ষক সমঝোতা স্মারক সই অনুষ্ঠানে অর্থমন্ত্রী এ কথা বলেন। তিনি বলেন, নদীভাঙনের কারণে দেশে প্রতিবছর প্রচুর জমি নষ্ট হচ্ছে। কৃষি খাতকে বাঁচাতে এ অবস্থা থেকে বের হয়ে আসা অত্যন্ত জরুরি। এ দুর্যোগ যাতে কমে যায় সে পরিকল্পনা হাতে নেওয়া হয়েছে। তিনি বলেন, স্বাদু পানির ব্যবহারের ক্ষেত্রে ভারসাম্যতা রক্ষা করতে হবে। কেননা এখন দেখা যাচ্ছে স্বাদু পানি পান করা ও কৃষিকাজে ব্যবহারসহ নানা ধরনের অপব্যবহার হচ্ছে। লবণাক্ত পানি বাড়ার কারণে লবণাক্ততা সহনীয় ধান আবিষ্কার করা হচ্ছে বলে জানান মন্ত্রী।

সমঝোতা স্মারকটি সই হয় বাংলাদেশের সঙ্গে নেদারল্যান্ডস সরকার, বিশ্বব্যাংকের সহযোগী সংস্থা আইডিএ ও আইএফসির। এতে বাংলাদেশের পক্ষে সই করেন অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত। নেদারল্যান্ডসের বাণিজ্য ও উন্নয়ন সহযোগিতা মন্ত্রী লিলিয়েন প্লোমেন, বিশ্বব্যাংকের পক্ষে প্রোগ্রাম লিডার লিয়া সির্গাট, আইএফসির ওয়াটার রিসোর্স গ্রুপের নির্বাহী পরিচালক অ্যান্ডারস ব্যারেনটেল নিজ নিজ দেশ ও সংস্থার পক্ষে সমঝোতা স্মারকে সই করেন। অনুষ্ঠানে ডেল্টা প্ল্যান বা বদ্বীপ পরিকল্পনার বিভিন্ন দিক তুলে ধরেন পরিকল্পনা কমিশনের সদস্য ড. শামসুল আলম। স্বাগত বক্তব্য দেন অর্থনৈতিক সম্পর্ক বিভাগের অতিরিক্ত সচিব কাজী শফিকুল আজম। অনুষ্ঠানে কৃষিমন্ত্রী মতিয়া চৌধুরী, পানিসম্পদমন্ত্রী আনিসুল ইসলাম মাহমুদ, পরিকল্পনা বিভাগের সচিব সফিকুল আযমসহ নেদারল্যান্ডস, বিশ্বব্যাংক ও সরকারের উচ্চ পর্যায়ের কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

অনুষ্ঠানে জানানো হয়, জলবায়ু পরিবর্তনের প্রভাব মোকাবিলায় দেশের পানিসম্পদ নিয়ে ১০০ বছর মেয়াদি পরিকল্পনার কাজ শুরু করেছে সরকার। বাংলাদেশ ডেল্টা প্ল্যান ২১০০ শীর্ষক এ পরিকল্পনা তৈরিতে সহায়তা দিচ্ছে নেদারল্যান্ডস। এ জন্য এরই মধ্যে দুই দেশের মধ্যে চুক্তির আওতায় নেদারল্যান্ডস এ পরিকল্পনা তৈরির জন্য ৪৭ কোটি ৪৭ লাখ টাকা অনুদান দিচ্ছে। পানিসম্পদ নিয়ে শত বছরের পরিকল্পনা (ডেল্টা প্ল্যান) বাস্তবায়নে গতকাল সমঝোতা স্মারকের মধ্য দিয়ে যুক্ত হলো বিশ্বব্যাংক। এমওইউ সই হওয়ার মধ্য দিয়ে সংস্থাটি দীর্ঘমেয়াদি এ পরিকল্পনা তৈরি এবং পরে বাস্তবায়ন পর্যায়ে সহযোগিতা করবে। সমঝোতা স্মারকটি স্বাক্ষরের দিন থেকে কার্যকর হবে এবং তিন বছর মেয়াদে থাকবে। তবে স্বাক্ষরকারী কর্তৃপক্ষের লিখিত অনুমতি সাপেক্ষে পরে এর কার্যক্রম বাড়ানো যাবে বলে জানানো হয়েছে।



সাতদিনের সেরা