kalerkantho

মঙ্গলবার । ১২ ফাল্গুন ১৪২৬ । ২৫ ফেব্রুয়ারি ২০২০। ৩০ জমাদিউস সানি ১৪৪১

বিদ্রোহী প্রার্থীদের সরে দাঁড়াতে চিঠি বিএনপির

নিজস্ব প্রতিবেদক   

২১ জানুয়ারি, ২০২০ ০০:০০ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



ঢাকা উত্তর ও দক্ষিণ সিটি করপোরেশন নির্বাচনে কাউন্সিলর পদে দলের বিদ্রোহী প্রার্থীদের সরে দাঁড়াতে চিঠি দিয়ে চূড়ান্ত সতর্ক করেছে বিএনপি। এর ব্যত্যয় হলে সাংগঠনিক ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলে ওই চিঠিতে উল্লেখ করা হয়েছে। দুই সিটি মিলিয়ে প্রায় ৩০ জন বিদ্রোহীকে প্রার্থীকে এই চিঠি দেওয়া হয়েছে।

দলীয় সূত্র জানিয়েছে, প্রতিপক্ষের বাধা ও প্রশাসনিক চাপের পাশাপাশি বিদ্রোহী প্রার্থীদের নিয়ে চরম বেকায়দায় পড়েছে বিএনপি। গত শনিবার বিদ্রোহীদের সঙ্গে বৈঠক করেন উত্তরের নির্বাচন পরিচালনা কমিটির সদস্যসচিব ও বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান মোহাম্মদ শাহজাহান। দক্ষিণ নির্বাচন পরিচালনা কমিটির সদস্য ও ঢাকা মহানগর দক্ষিণ বিএনপির সাধারণ সম্পাদক আবুল বাসার গত শুক্রবার বৈঠক করেন বিদ্রোহীদের নিয়ে, কিন্তু তাতেও কাজ না হওয়ায় এই সিদ্ধান্ত নিলেন দুই সিটির নির্বাচন পরিচালনার দায়িত্বে থাকা জ্যেষ্ঠ নেতারা।

উত্তর সিটির নির্বাচনের প্রধান সমন্বয়ক ও বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য গয়েশ্বর চন্দ্র রায় এবং সদস্যসচিব মো. শাহজাহান স্বাক্ষরিত চিঠিতে বলা হয়েছে, ‘আপনি নির্বাচনে স্বতন্ত্র কাউন্সিলর প্রার্থী হিসেবে অংশগ্রহণ করায় দল মনোনীত মেয়র প্রার্থীর বিজয়ে বাধা সৃষ্টি হতে পারে। দলের বিজয় ও ঐক্য অব্যাহত রাখার লক্ষ্যে আপনার প্রার্থিতা প্রত্যাহার করে দল মনোনীত মেয়র ও কাউন্সিলর প্রার্থীর পক্ষে অংশ নিয়ে সহযোগিতা করবেন বলে বিএনপি মনে করে। এ বিষয়টি কার্যকর না হলে পরবর্তীতে সাংগঠনিক নিয়ম অনুযায়ী পদক্ষেপ নেওয়া হবে।’

বিদ্রোহী প্রার্থীদের বিষয়ে দক্ষিণের নির্বাচন পরিচালনা কমিটির নেতা ও বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা আব্দুস সালাম কালের কণ্ঠকে বলেন, দক্ষিণে বিদ্রোহীর সংখ্যা খুব বেশি নয়। সাতজনের মতো হতে পারে। বিদ্রোহীদের দল সমর্থিত প্রার্থীদের পক্ষে কাজ করার জন্য বলা হয়েছে। না হলে তাঁদের সাংগঠনিক ব্যবস্থা নেওয়ার কথা জানানো হয়েছে।

ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশন নির্বাচন পরিচালনা কমিটির সদস্য আহসান উল্লাহ হাসান জানান, দলের আদেশ মেনে বিদ্রোহীরা শেষ পর্যন্ত থাকবেন না। যেমন উত্তর সিটির ১৬ নম্বর ওয়ার্ডে বিএনপি সমর্থিত কাউন্সিলর পদপ্রার্থী হলেন হাবিবুর রহমান রাব্বী। এই ওয়ার্ডে প্রার্থী হয়েছেন কাফরুল থানা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ ইকরাম বাবু। বিএনপির হাইকমান্ড থেকে বাবুকে বোঝানোর চেষ্টা করা হয়েছে। এরই মধ্যে বাবু নির্বাচন থেকে সরে দাঁড়াতে রাজি হয়েছেন। এমন করে সবাই দলের আদেশ মেনে নেবেন।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা