kalerkantho

শুক্রবার । ১২ আগস্ট ২০২২ । ২৮ শ্রাবণ ১৪২৯ । ১৩ মহররম ১৪৪৪

রে সি পি

ঈদের আহার

করোনাকালে ঘরবন্দি সময়ের মধ্যেই কেটে গেছে আমাদের দুটি ঈদুল ফিতর। তাই এবারের ঈদের আনন্দটা যেন একটু বেশিই। পরিবার-পরিজন, বন্ধুবান্ধব নিয়ে ঈদ আনন্দ ভাগাভাগি করার মজাও আলাদা। ঈদের আনন্দ বিশেষ অর্থবহ করতে পরিবারের সদস্যদের জন্য তৈরি করুন মজাদার ঈদের খাবার। রেসিপি দিয়েছেন উম্মাহ মোস্তফা

২৭ এপ্রিল, ২০২২ ০০:০০ | পড়া যাবে ১৬ মিনিটে



ঈদের আহার

মোরগ মোসাল্লাম

উপকরণ

মোরগ আস্ত দেড় কেজির ১টি, জায়ফল ১ চা চামচ, জয়ত্রি ১ চা চামচ, জাফরান সামান্য (১ চা চামচ কেওড়া জলের সঙ্গে ভিজিয়ে রাখুন) কাজুবাদাম বাটা ৪ চা চামচ, দারচিনি ৪ টুকরা আধা ইঞ্চির, এলাচ ৪টি, কিশমিশ ১০টি, তেজপাতা ৩টি, আদা বাটা ২ টেবিল চামচ, রসুন বাটা দেড় টেবিল চামচ, ধনে বাটা ১ চা চামচ, জিরা ১ চা চামচ, কাঁচা মরিচ বাটা ২ টেবিল চামচ, টমেটো সস ৪ টেবিল চামচ, টক দই আধা কাপ, চিনি ১ চা চামচ, লবণ ২ চামচ, তেল পৌনে এক কাপ, কাঁচা মরিচ ৩টি, পেঁয়াজ কুচি ভাজা এক কাপ।

 

যেভাবে তৈরি করবেন

১.   আস্ত মোরগের বুকটা কেটে ভালো করে পরিষ্কার করে নিন। একে একে সব মসলা, টমেটো সস, টক দই ভালো করে মেখে আধাঘণ্টার জন্য মেরিনেট করে রেখে দিন।

২.   রান্না শুরু করার আগে আস্ত মোরগটা সুতা দিয়ে বেঁধে নিন, এতে মোরগের আকার ঠিক থাকবে।

বিজ্ঞাপন

৩. পাতিলে তেল আর ঘি মিশিয়ে দিয়ে গরম করে নিয়ে মোরগ হালকা ভেজে নিন এবং এরপর তুলে নিন। একই তেলে তেজপাতা, দারচিনি, এলাচ দিয়ে গরম করে পুরো মোরগটা এবং মসলাগুলো দিয়ে দিন। ঢাকনা দিয়ে মধ্যম আঁচে ২০ মিনিটের জন্য রেখে দিন।

৪.   তবে মাঝেমধ্যে সিদ্ধ হয়েছে কি না, সেটা দেখে নেড়ে দিতে ভুলবেন না। জাফরান ভেজানো কেওড়া জল ও কিশমিশ দিয়ে পাঁচ মিনিট দমে রেখে নামিয়ে নিন। এবার পরিবেশন পাত্রে রেখে ওপরে পেঁয়াজ ভাজা ছিটিয়ে দিন।

কড়াই বিফ

উপকরণ

বিফ আধা কেজি, পেঁয়াজ কুচি ১ কাপ, আদা-রসুন কুচি ১ টেবিল চামচ, কাশ্মীরি লাল মরিচের গুঁড়া ১ টেবিল চামচ, হলুদ গুঁড়া ১ চা চামচ, ধনে গুঁড়া ১ চা চামচ, দারচিনি ১টি, এলাচ ৩টি, লং ৫টি, ফ্রেশ ক্রিম ১ টিন, ধনেপাতা কুচি সিকি কাপ, ঘি ১ টেবিল চামচ, মাটির হাঁড়ি ১টি।

 

যেভাবে তৈরি করবেন

১.   হাঁড়িতে মাংসের টুকরাগুলো নিয়ে তাতে গুঁড়া মসলা, ধনেপাতা কুচি ও ঘি বাদে সব উপকরণ দিয়ে সিদ্ধ করুন।

২.   ৩০-৩৫ মিনিট সিদ্ধ করার পর বাকি সব গুঁড়া মসলা দিয়ে অল্প আঁচে রান্না করুন।

৩.   তেল উঠলে আর সিদ্ধ হলে ফ্রেশ ক্রিম দিয়ে নামিয়ে পরিবেশন করুন।

বিফ কোরমা

উপকরণ

হাড়সহ গরুর মাংস ১ কেজি, সয়াবিন তেল আধাকাপ, তেজপাতা ১টি, দারচিনি ১ ইঞ্চির ৩ টুকরা, এলাচ ৫টি, কালো এলাচ ১টি, পেঁয়াজ কুচি ১ কাপ, পেঁয়াজ বাটা ৩ টেবিল চামচ, আদা বাটা দেড় টেবিল চামচ, রসুন বাটা ১ টেবিল চামচ, ধনে গুঁড়া আধা টেবিল চামচ, মরিচ গুঁড়া সিকি চা চামচ, লবণ ১ চা চামচ, গুঁড়া দুধ ২ টেবিল চামচ, ক্রিম বা মালাই ২ টেবিল চামচ, পেঁয়াজের বেরেস্তা দেড় টেবিল চামচ, চিনি আধা চা চামচ, আস্ত কাঁচা মরিচ ৪টি, কেওড়া জল কয়েক ফোঁটা, টক দই ৪ টেবিল চামচ, কিশমিশ ২ টেবিল চামচ, কাজুবাদাম ৫টি, চিনাবাদাম দেড় টেবিল চামচ, সাদা এলাচ ১২টি, জয়ত্রি ১টি, জায়ফল অর্ধেকটা।

 

যেভাবে তৈরি করবেন

১.   দই ও মসলার মিশ্রণ তৈরির সব উপকরণ একসঙ্গে ব্লেন্ড করে নিন। কড়াইয়ে তেল গরম করে গরম মসলা ভেজে নিন। পেঁয়াজ কুচি দিয়ে নাড়ুন। পেঁয়াজ নরম হয়ে গেলে সব বাটা ও গুঁড়া মসলা দিয়ে দিন। দইয়ের মিশ্রণ দিয়ে ভালো করে কষিয়ে নিন মসলা। তেল ভেসে উঠলে মাংস ও স্বাদমতো লবণ দিয়ে কষান।

 

২.   আলাদা পানি দেওয়ার দরকার নেই। মাংসের পানিতেই কষিয়ে নিন। ঢাকনা দিয়ে ঢেকে নিন। মাঝেমধ্যে নেড়ে দেবেন। পানি শুকিয়ে গেলে প্রয়োজনমতো গরম পানি দিয়ে ঢেকে দিন। মাংস সিদ্ধ হয়ে গেলে গুঁড়া দুধ, ক্রিম, পেঁয়াজের বেরেস্তা, চিনি, কাঁচা মরিচ ও কেওড়া জল দিয়ে নেড়ে দমে রাখুন। পাঁচ মিনিট পর নামিয়ে পরিবেশন করুন।

কালাভুনা

উপকরণ

গরুর মাংস দেড় কেজি, তেল ১ কাপ, পেঁয়াজ কুচি ১ কাপ, লং ১২টি, দারচিনি ৩টি, এলাচ ৬টি, তেজপাতা ২টি, পেঁয়াজ বেরেস্তা বাটা সিকি কাপ, হাটহাজারীর মরিচ ১টি, কাঁচা মরিচ বাটা ১ চা চামচ, সাদা গোলমরিচের গুঁড়া ১ চা চামচ, কালো গোলমরিচের গুঁড়া ১ চা চামচ, হলুদ গুঁড়া সিকি চা চামচ, ধনে গুঁড়া ২ চা চামচ, টালা জিরা গুঁড়া ১ চা চামচ, আদা বাটা ১ চা চামচ, রসুন বাটা ১ চা চামচ, রসুন কুচি ২টা, পোস্ত বাটা ১ চা চামচ, লবণ ১ চা চামচ।

কালাভুনার বিশেষ মসলা : জায়ফল ১টি, জয়ত্রি আধা চা চামচ, গোলমরিচ আস্ত ১ চা চামচ, আস্ত ধনে ১ চা চামচ, মৌরি ১ চা চামচ, সব একসঙ্গে টেলে গুঁড়া করে নিন।

 

যেভাবে তৈরি করবেন

১.   মাংস ধুয়ে টক দইসহ সব গুঁড়া (টালা জিরা বাদে) আর বাটা মসলা দিয়ে মেরিনেট করে চার থেকে পাঁচ ঘণ্টা রেখে দিন। হাঁড়িতে আধাকাপ তেল গরম করে তাতে পেঁয়াজ কুচি দিয়ে ভাজুন।

২.   এবার আস্ত গোটা গরম মসলা দিয়ে দিন। লালচে হলে এবং পেঁয়াজ নরম হয়ে গেলে তাতে মেরিনেট করা মাংস দিয়ে দুইবার অল্প আঁচে কষিয়ে নিন। এখন পানি দিয়ে আরো ৩০ মিনিট হাঁড়ি ঢেকে রান্না করুন। যদি মাংস সিদ্ধ না হয় আরো পানি দিন।

৩.   মাংস সিদ্ধ হলে আর ঝোল মাখা মাখা হলে নামিয়ে নিন। এবার বাকি আধাকাপ তেল গরম আরেকটা হাঁড়িতে দিন। রসুনের ফোড়ন দিন। ফোড়নের মধ্যে রান্না করা মাংস দিয়ে ভাজুন পাঁচ থেকে আট মিনিট। অনবরত নাড়তে থাকুন। কালচে হলে টালা জিরা দিয়ে নামিয়ে পরিবেশন করুন।

মাটন বিরিয়ানি

উপকরণ

ধাপ-১

মাংসের জন্য : মাটন ১ কেজি (৮ থেকে ১০ টুকরা), বিরিয়ানির মসলা ১ চা চামচ, গোলমরিচ গুঁড়া ৪ চা চামচ, আলুবোখারা ৬টি, এলাচ গুঁড়া আধা চা চামচ, দারচিনি গুঁড়া আধা চা চামচ, জায়ফল ও জয়ত্রি গুঁড়া মেলানো আধা চা চামচ, মরিচ গুঁড়া ১ চা চামচ। লবণ ১ চা চামচ, টক দই ১ কাপ, টমেটো সস আধাকাপ, কেওড়া জল ২ চা চামচ, তেল ১ কাপ, আদা বাটা ১ টেবিল চামচ, রসুন বাটা আধা টেবিল চামচ, কাঁচা মরিচ ৮টি, ঘি সিকি কাপ, পেঁয়াজ বেরেস্তা ১ কাপ, আলু ২টি (বড়) কিউব কাটা ও জর্দার রং ৩ চিমটি। পাত্রে মাংস, টক দই, টমেটো সস, মরিচ, জায়ফল, জয়ত্রি, এলাচ, দারচিনি গুঁড়া, আদা ও রসুন বাটা, পরিমাণমতো লবণ, কেওড়া জল, ঘি, সামান্য জর্দার রং, পরিমাণমতো তেল এবং অর্ধেক পেঁয়াজ বেরেস্তা দিয়ে মাখিয়ে তিন-চার ঘণ্টা মেরিনেট করে রেখে দিন। আলু টুকরায় সামান্য জর্দার রং আর লবণ মাখিয়ে তেলে ভাজুন। এবার মেরিনেট করা মাংস ও প্রয়োজনমতো পানি দিয়ে রান্না করুন। রান্না শেষে ভাজা আলু ও আলুবোখারা দিয়ে মাখা মাখা করে নামিয়ে নিন।

ধাপ-২

পোলাউয়ের জন্য : বাসমতী চাল আধা কেজি (ধুয়ে ২০ মিনিট পানিতে ভিজিয়ে রাখা), শাহি জিরা সিকি চা চামচ, দারচিনি ২ টুকরা, এলাচ ৪টি, লবঙ্গ ৪টি, কেওড়া জল ১ চা চামচ, ঘি ২ টেবিল চামচ, লবণ আধা চা চামচ, চিনি ১ টেবিল চামচ, তরল দুধ ১ কাপ, আদা বাটা আধা চা চামচ, লেবুর রস ১ টেবিল চামচ, পানি আধা লিটার।

 

যেভাবে তৈরি করবেন

১.   প্যানে তেল ও ঘি দিয়ে গরম করে একে একে এলাচ, দারচিনি, লবঙ্গ, শাহি জিরা ও আদা বাটা দিয়ে একটু নেড়ে চাল দিয়ে দিন। এরপর পরিমাণমতো পানি, দুধ, লবণ, চিনি, কেওড়া জল, লেবুর রস দিয়ে পোলাউ রান্না করুন।

২.   পোলাউ রান্না হয়ে গেলে অর্ধেক তুলে নিয়ে মাটন ঢেলে দিয়ে বাকি পেঁয়াজ বেরেস্তা, ১ টেবিল চামচ ঘি, কাঁচা মরিচ ছিটিয়ে দিয়ে বাকি পোলাউটুকু দিয়ে ২০ মিনিট দমে রেখে পরিবেশন করুন।

বালতি বিরিয়ানি

উপকরণ

ধাপ-১

খাসির মাংস ২ কেজি, পেঁপে বাটা সিকি কাপ, দই আধাকাপ, কাঁচা মরিচ বাটা ১ টেবিল চামচ, আদা বাটা ১ টেবিল চামচ, রসুন বাটা ১ টেবিল চামচ, লবণ ১ চা চামচ। মাংসের মধ্যে সব উপকরণ একসঙ্গে মাখিয়ে তিন থেকে চার ঘণ্টা মেরিনেট করে রেখে দিন।

 

ধাপ-২

ঘি ১ কাপ, পেঁয়াজ বাটা ১ কাপ, হলুদ গুঁড়া ১ চা চামচ, মরিচ গুঁড়া ১ চা চামচ, ধনে গুঁড়া ১ চা চামচ, জিরা গুঁড়া ১ চা চামচ, গরম মসলা গুঁড়া ১ চা চামচ, মালাই ১ টিন, কাঁচা মরিচ আস্ত ৭টি, কেওড়া জল ১ চা চামচ, লবণ ১ চা চামচ। ফ্রাইপ্যানে ঘি গরম করে তাতে পেঁয়াজ বাটা দিয়ে ভাজুন। লালচে হলে তাতে সব গুঁড়া মসলা দিয়ে দুইবার ভালো করে কষিয়ে নিন। কষানোর পর তাতে খাসির মাংস দিয়ে পরিমাণমতো পানি দিয়ে অল্প আঁচে রান্না করুন। সিদ্ধ হলে কেওড়া জল ও কাঁচা সবুজ মরিচ দিয়ে দুই মিনিট রাখুন। সব শেষে মাংস আলাদা করে রেখে দিন ঝোল থেকে।

 

ধাপ-৩

বাসমতী চাল ২ কেজি, আদা বাটা ১ টেবিল চামচ, রসুন বাটা ১ টেবিল চামচ, লবণ ১ চা চামচ, ঘি আধা কাপ, লং ১০টি, এলাচ ৩টি, দারচিনি ১ টুকরা, শাহি জিরা একচিমটি, পানি ৬ কাপ।

 

যেভাবে তৈরি করবেন

১.   হাঁড়িতে ঘি দিয়ে গরম করে তাতে চাল দিয়ে ভাজুন। এবার ধাপ-৩ এর সব উপকরণ দিয়ে পোলাউ রান্না করুন।

২.   চাল আধাসিদ্ধ হলে ধাপ-২ এর রান্না করা মাংস দিয়ে দমে ১০ মিনিট রেখে পরিবেশন করুন।

খাসির তেহারি

উপকরণ

ধাপ-১

মাংস ১ কেজি, এলাচ ৫টি, দারচিনি ৪টি, লং ১২টি, পানি দেড় লিটার, লবণ আধা চা চামচ। সব উপকরণ একসঙ্গে মিশিয়ে ৪০ মিনিট সিদ্ধ করে নিন।

ধাপ-২

পেঁয়াজ কুচি ১ কাপ, আদা বাটা ১ চা চামচ, রসুন বাটা ১ চা চামচ, কাঁচা মরিচ বাটা ১ টেবিল চামচ, টালা জিরা গুঁড়া ১ চা চামচ, ধনে গুঁড়া ২ চা চামচ, কাঠবাদাম বাটা ২ টেবিল চামচ, সাদা সরিষা বাটা ২ টেবিল চামচ, সরিষার তেল আধাকাপ, টক দই সিকি কাপ, লবণ ১ চা চামচ, ধাপ-১ এর সিদ্ধ করা মাংস ও তার স্টক।

মাংস রান্না : তেল গরম করে পেঁয়াজ লালচে করে ভেজে তাতে আদা-রসুন বাটা, দই ও বাকি সব উপকরণ দিয়ে দিন। এরপর মাংসের স্টক দিয়ে ভালো করে কষিয়ে নিন। মাংস অল্প আঁচে পাঁচ থেকে আট মিনিট রান্না করুন। রান্না শেষে ঝোল থেকে মাংস উঠিয়ে সেই ঝোলে আরো পানি দিন; সঙ্গে আস্ত কাঁচা মরিচ ও গোটা গরম মসলা দিয়ে দিন।

ধাপ-৩

পোলাউয়ের চাল ১ কেজি, পেঁয়াজ কুচি ১ কাপ, আদা বাটা ১ টেবিল চামচ, রসুন বাটা ১ টেবিল চামচ, লবণ দেড় চা চামচ, সরিষার তেল আধা কাপ।

 

যেভাবে তৈরি করবেন

১.   হাঁড়িতে তেল গরম করে পেঁয়াজ কুচি লাল করে ভেজে তাতে চাল দিয়ে দিন।

২.   তিন-চার মিনিট চাল ভাজা হলে তাতে আদা-রসুন বাটা দিয়ে একটু ভেজে পানি দিয়ে ঢেকে দিন।

৩.   চাল সিদ্ধ হয়ে এলে উঠিয়ে রাখা মাংস দিয়ে অল্প আঁচে পাঁচ থেকে আট মিনিট দমে রেখে নামিয়ে পরিবেশন করুন।

সবজি পোলাউ

উপকরণ

পোলাউয়ের চাল ৫০০ গ্রাম, ফুলকপি ১ কাপ, ব্রকোলি আধাকাপ, গাজর কিউব আধাকাপ, আলু কিউব আধাকাপ, মটরশুঁটি আধাকাপ, সবজির স্টক তিন কাপ, আদা বাটা ১ টেবিল চামচ, রসুন বাটা ১ চা চামচ, পেঁয়াজ বাটা ১ টেবিল চামচ, জিরা বাটা ১ চা চামচ, পোস্তদানা বাটা ১ টেবিল চামচ, লবণ দেড় চা চামচ, লেবুর রস ২ টেবিল চামচ, চিনি ১ চা চামচ, দুধ আধাকাপ, কাঁচা মরিচ ১২টি, তেল আধাকাপ, লবঙ্গ, ৪টি দারচিনি ২ টুকরা, তেজপাতা ২টি, এলাচ ৩টি ও ঘি ৩ টেবিল চামচ।

 

যেভাবে তৈরি করবেন

১.   সবজি আলাদাভাবে হালকা লবণ দিয়ে সিদ্ধ করে নিন। এরপর চাল ধুয়ে নিয়ে পানি ঝরিয়ে রাখুন। একটি পাত্রে তেল গরম করে তাতে গরম মসলা ও তেজপাতা ফোড়ন দিয়ে অন্য সব বাটা মসলা দিয়ে কষিয়ে সবজির স্টক দিয়ে দিন।

২.   একটা হাঁড়িতে পানি ফুটে উঠলে লেবুর রস ও চাল দিয়ে দিন। পানি শুকিয়ে এলে দুধ, চিনি ও কাঁচা মরিচ দিয়ে পাঁচ থেকে সাত মিনিট অল্প আঁচে রাখুন।

৩.   সব শেষে সব সবজি দিয়ে সবজির ওপর ঘি দিয়ে আধাঘণ্টা দমে রেখে নামিয়ে পরিবেশন করুন।

ইরানি বিরিয়ানি

উপকরণ

খাসির মাংস ১ কেজি, বাসমতী চাল আধা কেজি, গোলমরিচ গুঁড়া ১ টেবিল চামচ, আদা বাটা ১ চা চামচ, রসুন বাটা ১ চা চামচ, গরম মসলা গুঁড়া ১ চা চামচ, পেস্তাবাদাম কুচি সিকি কাপ, জাফরান একচিমটি, দুধ ১ কাপ, লবণ ১ চা চামচ, মাখন সিকি কাপ, পেঁপে বাটা সিকি কাপ, ঘি ১ টেবিল চামচ।

 

যেভাবে তৈরি করবেন

১.   চাল ধুয়ে আধাসিদ্ধ করে নিন। খাসির মাংসের সঙ্গে কালো গোলমরিচ গুঁড়া, আদা বাটা, রসুন বাটা, লবণ, পেঁপে বাটা ও গরম মসলা গুঁড়া ভালো করে মিশিয়ে মেরিনেট করে পাঁচ ঘণ্টা রেখে দিন।

২.   হাঁড়িতে মাখন দিয়ে মাংস বিছিয়ে তাতে আধাসিদ্ধ করে রাখা চাল দিয়ে ঢেকে দিন।

৩.   এবার দুধের সঙ্গে জাফরান মিশিয়ে চালের ওপর দিয়ে অল্প আঁচে দমে রাখুন ৪০ থেকে ৫০ মিনিট। এরপর ঢাকনা খুলে ঘি দিয়ে নামিয়ে নিন।

দুধ সেমাই

উপকরণ

তরল দুধ ২ লিটার, চিনি আধাকাপ (স্বাদ অনুযায়ী কমবেশি হতে পারে), সেমাই ২০০ গ্রাম, কিশমিশ ১ টেবিল চামচ, দারচিনি ২ টুকরা, এলাচ ৩টি, কাঠবাদাম ও পেস্তাবাদাম কুচি ২ টেবিল চামচ, ঘি ১ টেবিল চামচ।

 

যেভাবে তৈরি করবেন

১.   দুধে এলাচ ও দারচিনি দিয়ে মৃদু আঁচে জ্বাল দিন।

২.   জ্বাল দিয়ে দুধ অর্ধেক হলে ঘন সর পড়বে, সেই সর চামচ দিয়ে নেড়ে ভালো করে দুধের সঙ্গে মিশিয়ে এবার চিনি ও কিশমিশ দিয়ে দিন।

৩.   কড়াইতে ঘি গরম করে তাতে সেমাই হালকা লাল করে ভেজে দুধের মধ্যে সেমাই ছেড়ে দিন। এখন নেড়ে তিন থেকে চার মিনিট জ্বাল দিয়ে পরিবেশন পাত্রে ঢেলে দিন।

৪.   এবার বাদাম কুচি ছিটিয়ে পরিবেশন করুন।

সুইট অন্থন

উপকরণ

চিকেন কিমা ৫০০ গ্রাম, পেঁয়াজ মিহি কুচি ২টি, রসুনের কোয়া মিহি কুচি ২টি, আদা মিহি কুচি ১ চা চামচ, লেমন গ্রাস কুচি ২ চা চামচ, লেবুপাতা মিহি কুচি ৩টি, ফিশ সস ২ চা চামচ, অন্থন শিট ২৫০ গ্রাম, তেল দেড় কাপ, চিনি ১ কাপ, পানি আধা লিটার।

 

যেভাবে তৈরি করবেন

১.   পাত্রে চিকেন, পেঁয়াজ, রসুন, আদা, লেমন গ্রাস, লেবুপাতা এবং ফিশ সস ভালোভাবে মিশিয়ে নিন।

২.   এবার একটি অন্থন শিট সবজি কাটারের ওপরে বিছিয়ে নিন। ঠিক মাঝ বরাবর আগে থেকে মিক্স করে রাখা মিশ্রণটি এক চা চামচ পরিমাণে নিয়ে নিন।

৩.   অন্থন শিটের চারদিকে সামান্য পরিমাণে পানি ব্রাশ করে নিন। এবার শিট অন্থনের মতো শেপে আটকে দিন। ফ্রাইপ্যানে ডুবো তেলে লালচে করে ভাজুন।

৪.   চিনি ও পানি একত্রে জ্বাল করে ঘন সিরা করে রাখুন। এবার ভাজা অন্থনের ওপর সিরা ঢেলে ঠাণ্ডা করে পরিবেশন করুন।

শাহি কাজু ফিরনি

উপকরণ

দুধ ২ লিটার, পোলাউয়ের চাল আধাকাপ, লবণ একচিমটি, এলাচ ২টি, ঘি ১ চা চামচ, গাজর ১টি মাঝারি, চিনি ১ কাপ, গুঁড়া দুধ আধাকাপ, কেওড়া জল ২ চা চামচ, বাদাম ও কিশমিশ সাজানোর জন্য সিকি কাপ।

 

যেভাবে তৈরি করবেন

১.   পোলাউয়ের চাল ধুয়ে ভিজিয়ে রাখুন। আধাঘণ্টা পর পানি থেকে তুলে আধাবাটা করে নিন।

২.   দুধ জ্বাল করুন। লবণ ও চাল দিয়ে ভালো করে ফোটান। চাল সিদ্ধ হয়ে গলে গেলে চিনি দিন। এলাচ দুটি গুঁড়া করে চালের সঙ্গে দিন।

৩.   গাজর গ্রেট করে এর মধ্যে ফ্রাইপ্যানে ঘি গরম করে তাতে ১ মিনিট ভাজুন। নরম হয়ে এলে ফিরনিতে দিয়ে দিন। ফিরনি বেশ কিছুটা হলে গুঁড়া দুধ ও কেওড়া জল দিয়ে আলতোভাবে নেড়ে নামিয়ে পরিবেশন করুন।

কাস্টার্ড ডিলাইট

উপকরণ

কাস্টার্ড পাউডার সিকি কাপ, তরল দুধ ১ লিটার, চিনি আধাকাপ, ভ্যানিলা এসেন্স ১ চা চামচ, সাধারণ কেক ৪ টুকরা, পাকা আম ১টি, আপেল ১টি, আঙুর সিকি কাপ, পাকা কলা ১টি, হুইপ ক্রিম আধা কাপ।

 

যেভাবে তৈরি করবেন

১.   দুধ, কাস্টার্ড পাউডার, চিনি একসঙ্গে মিশিয়ে অল্প আঁচে চুলায় জ্বাল দিন। ঘন হয়ে এলে নামিয়ে ভ্যানিলা এসেন্স মিশিয়ে নরমাল হতে দিন।

২.   ফলের টুকরা একদম ছোট ছোট আকারে কেটে এর মধ্যে মিশিয়ে আলতো করে নেড়ে দিন। এবার পরিবেশন জারে দিয়ে ওপরে হুইপ ক্রিম ও ফল দিয়ে সাজিয়ে ঠাণ্ডা করে পরিবেশন করুন।

গাজরের সেমাই

উপকরণ

গাজর ২৫০ গ্রাম, তরল দুধ ২ লিটার, চিনি ৩ কাপ, এলাচ ৪টি, দারচিনি ২ ইঞ্চির ২ টুকরা, তেজপাতা ২টি, কিশমিশ ১ টেবিল চামচ, কাজু, পেস্তাবাদাম মেলানো ১ টেবিল চামচ।

 

যেভাবে তৈরি করবেন

১.   প্রথমে গাজর পরিষ্কার করে ধুয়ে গ্রেটার মেশিন দিয়ে লম্বা লম্বা আকারে চিকন করে ঝুরি করে নিন।

২.   একটি প্যানে দুধ ঘন করে জ্বাল দিয়ে দেড় লিটারের মতো করে এর মধ্যে এলাচ, দারচিনি ও তেজপাতা দিয়ে আবারও জ্বাল দিয়ে নিন। এবার কেটে রাখা লম্বা গাজর দুধে দিয়ে পাঁচ মিনিটের মতো জ্বাল করে চিনি দিয়ে শুকানো পর্যন্ত অপেক্ষা করুন।

৩.   যখন ঘন হয়ে আসবে তখন কিশমিশ ও বাদাম কুচি ওপরে ছড়িয়ে দিয়ে নামিয়ে ঠাণ্ডা করে পরিবেশন করুন।



সাতদিনের সেরা