kalerkantho

রেসিপি

উৎসবের পাতে

৭ আগস্ট, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ৬ মিনিটে



উৎসবের পাতে

উৎসবের দিনগুলোয় হরেক রকম রান্নার ধুম পড়ে যায় ঘরে ঘরে। শুধু পদ বাহারি রান্না নয়, খাবার হওয়া চাই সুস্বাদু। উৎসবের দিনে নানা বৈচিত্র্যের আস্বাদ দিতে রইল ঈদ উৎসব রেসিপির বাহারি পদ

মিষ্টিমুখেই হোক ঈদের সকাল। প্রচলিত খাবারের পাশাপাশি রাখতে পারেন কিছু ভিন্নধর্মী আয়োজন, যা ঈদের দিন স্বাদে যোগ করবে ভিন্নতা। রেসিপি দিয়েছেন ফারহানা আক্তার স্বপ্না

 

কেক পুডিং

উপকরণ

ঘন দুধ ২ কাপ, ডিম ৮টি, চিনি ১ কাপ, কনডেনসড মিল্ক আধা কাপ, ভ্যানিলা এসেন্স দেড় চা চামচ, ময়দা আধা কাপ, কর্নফ্লাওয়ার ২ টেবিল চামচ, মিহি চিনি আধা কাপ, তেল আধা কাপ, লেবুর রস ১ চা চামচ।

 

যেভাবে তৈরি করবেন

১.   পুডিংয়ের পাত্রে আধা চামচ বাটার ব্রাশ করে নিন।

২.   একটি প্যানে আধা কাপ চিনি ও ২ টেবিল চামচ গরম পানি দিয়ে মাঝারি তাপে জ্বাল দিন। চিনি গলতে শুরু করলে অনবরত নাড়ুন। ক্যারামেল ঘন হয়ে সোনালি রং হওয়া শুরু করলে বাকি ১ টেবিল চামচ গরম পানি মিশিয়ে চুলা থেকে দ্রুত নামিয়ে পুডিংয়ের পাত্রে ঢেলে দিন।

৩.   আরেকটি পাত্রে ৪টি ডিম ভালো করে ফেটিয়ে তাতে ২ কাপ ঘন দুধ, আধা কৌটা কনডেনসড মিল্ক, আধা কাপ চিনি ও আধা চামচ ভ্যানিলা এসেন্স দিয়ে আরেকবার বিট করুন। চিনি গলে গেলে বিটার বন্ধ করে রাখুন।

৪.   ওভেন ১৬০ ডিগ্রি তাপে প্রিহিট করুন। ময়দা, কর্নফ্লাওয়ার, কোকো পাউডার একসঙ্গে চালনিতে চেলে রাখুন। ৪টি ডিমের সাদা অংশের সঙ্গে সিকি কাপ মিহি চিনি মিশিয়ে বিটার দিয়ে বিট করুন। ফোম হয়ে এলে বিট করা বন্ধ করুন।

৫.   আরেকটি পাত্রে ডিমের কুসুম, মিহি চিনি, ১ চা চামচ ভ্যানিলা এসেন্স ও তেল দিয়ে ভালো করে বিট করুন। ডিমের কুসুমের মিশ্রণের সঙ্গে ময়দায় মিশ্রণ ভালো করে মিশিয়ে নিন। এবার এই মিশ্রণে ডিমের সাদা অংশের ফোম অল্প অল্প করে তিনবারে স্প্যাচুলা দিয়ে হালকাভাবে মেশাতে হবে।

৬.   ক্যারামেল দেওয়া পাত্রে পুডিংয়ের মিশ্রণ ঢালুন। ওভেনের বেকিং ট্রে অর্ধেক পরিমাণ গরম দিয়ে তাতে পুডিংয়ের পাত্র বসিয়ে ২০ মিনিট পুডিং বেক করুন। ২০ মিনিট পর পুডিং নামিয়ে পুডিংয়ের ওপর কেকের মিশ্রণ ঢেলে আরো ৩০ মিনিট বেক করুন। টুথপিক গেঁথে পরীক্ষা করুন কেক হয়েছে কি না। হলে নামিয়ে ঠাণ্ডা হতে দিন।

৭.   কেক পুডিং ঠাণ্ডা হলে উপুড় করে পরিবেশন পাত্রে ঢেলে আরো দুই ঘণ্টা ফ্রিজে ঠাণ্ডা করে পরিবেশন করুন।

 

শাহি মালাই পুডিং

উপকরণ

কনডেনসড মিল্ক ১ কৌটা, ডিম ৫টা, তরল দুধ দেড় কাপ, গুঁড়া দুধ ২ টেবিল চামচ, এলাচ ১টি, ঘি সামান্য।

 

যেভাবে তৈরি করবেন

১.   পাত্রে ডিম ভেঙে নিন। বিটার দিয়ে বিট করুন। আধা কৌটা         কনডেনসড মিল্ক ও ১ কাপ তরল দুধ দিয়ে আরেকবার বিট       করে স্টিলের ছাঁকনি দিয়ে মিশ্রণটি ছেঁকে রাখুন।

২.   পুডিংয়ের পাত্রে ঘি ব্রাশ করে ডিমের মিশ্রণ দিন। ঢাকনা           দেওয়া বড় হাঁড়িতে চার ভাগের এক ভাগ পানি দিয়ে চুলায়           বসান। পানির মধ্যে পুডিংয়ের পাত্রটি বসিয়ে হাঁড়ির ঢাকনা          দিয়ে মাঝারি আঁচে আধা ঘণ্টা পুডিং ভাপে দিন।

৩.   পুডিংয়ের ভেতর একটা কাঠি গেঁথে তুলে নিন। কাঠির গায়ে          কিছু না লাগলে বুঝবেন পুডিং হয়ে গেছে। এরপর নামিয়ে       ঠাণ্ডা হতে দিন। স্বাভাবিক তাপমাত্রায় এলে পুডিং ফ্রিজে            রাখুন।

৪.   এবার একটি নন-স্টিক পাত্রে বাকি আধা কৌটা কনডেনসড          মিল্ক, আধা কাপ তরল দুধ, গুঁড়া দুধ ও এলাচ দিয়ে জ্বাল           দিন। ফুটে উঠলে ক্রমাগত নেড়ে মালাই বানিয়ে নিন। মালাই        চুলা থেকে নামিয়ে ঠাণ্ডা হতে দিন।

৫.   পরিবেশন পাত্রে প্রথমে পুডিং দিয়ে ওপরে মালাই ঢেলে বাদাম ও ড্রাইফ্রুট দিয়ে পছন্দমতো সাজিয়ে পরিবেশন করুন।

 

দই সেমাই

উপকরণ

সেমাই ৩ কাপ, ঘি ৪ চা চামচ, ঘন দুধ ১ কাপ, কনডেনসড মিল্ক ১ কাপ, পানি ঝরানো টক দই ২ কাপ, কাজুবাদাম ও কাঠবাদাম কুচি আধা কাপ।

 

যেভাবে তৈরি করবেন

১.   প্যানে ঘি গরম করে অল্প আঁচে সেমাই ভেজে নিন। এবার আধা কাপ কনডেনসড মিল্ক দিয়ে আরো কিছুক্ষণ ভাজুন। একটি স্প্রিং কেকের মোল্ডে বাটার ব্রাশ করে গ্রিজ করে নিন। ভাজা সেমাই গরম থাকতেই মোল্ডে ঢেলে হাত দিয়ে চেপে বসিয়ে দিন।

২.   আরেকটি পাত্রে টক দই ১ কাপ, কনডেনসড মিল্ক ও ১ কাপ ঘন দুধ দিয়ে ভালো করে বিট করুন। দইয়ের মিশ্রণ সেমাইয়ের ওপর ঢেলে দিন।

৩.   ওভেনে ১৮০ ডিগ্রি তাপে ২০-৩০ মিনিট বেক করুন। ঠাণ্ডা হলে বাদামকুচি সাজিয়ে পরিবেশন করুন।

 

দুধ দুলারি

উপকরণ

তরল দুধ ১ লিটার, ঘন দুধ ১ কাপ, কনডেনসড মিল্ক দেড় কাপ, কাস্টার্ড পাউডার ৩ টেবিল চামচ, সেমাই আধা কাপ, ক্রিম ১ কাপ, পছন্দমতো মৌসুমি ফল কিউব করে কাটা ১ কাপ, ছোট আকারের মিষ্টি ১ কাপ, আগার আগার পাউডার ১ প্যাকেট, ফুড কালার (লাল, সবুজ, কমলা), চিনি ১ কাপ, কেওড়া জল ১ টেবিল চামচ।

 

যেভাবে তৈরি করবেন

১.   প্যানে দুধ জ্বাল দিন। ফুটে উঠলে অর্ধেক দুধ তুলে রাখুন। বাকি দুধে সেমাই দিন। সেমাই সিদ্ধ হলে ঘন দুধ ও কনডেনসড মিল্ক দিয়ে ভালো করে নেড়ে কিছুক্ষণ জ্বাল দিয়ে নামিয়ে রাখুন।

২.   তুলে রাখা দুধ আরেকটি পাত্রে চুলায় বসান। অল্প পানিতে কাস্টার্ড পাউডার গুলে আস্তে আস্তে দুধের মধ্যে দিয়ে অনবরত নাড়তে থাকুন। খেয়াল রাখতে হবে যেন পাত্রের তলায় লেগে না যায়। ঘন হয়ে এলে কেওড়া জল দিয়ে চুলা থেকে নামিয়ে নিন। চুলা থেকে নামানোর পরও নেড়ে নেড়ে ঠাণ্ডা করতে হবে যেন কাস্টার্ড জমে না যায়।

৩.   আগার আগার পাউডার আধা কাপ গরম পানিতে গুলিয়ে চুলায় জ্বাল দিন। ফুটে উঠলে ৩ টেবিল চামচ চিনি দিন। কিছুক্ষণ নেড়ে নামিয়ে নিন। তিনটি আলাদা বাটিতে ঢেলে প্রতিটিতে আলাদা করে ফুড কালার মিশিয়ে ঠাণ্ডা হতে দিন।

৪.   কাস্টার্ড ঠাণ্ডা হলে সেমাই-দুধের মিশ্রণে দিয়ে ভালো করে নেড়ে মেশান। ফলের কিউব ছড়িয়ে দিন। বানিয়ে রাখা জেলি কিউব করে কেটে ওপরে ছড়িয়ে দিন। সব শেষে মিষ্টি ও বাদাম কুচি দিয়ে সাজিয়ে ফ্রিজে ঠাণ্ডা করে পরিবেশন করুন।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা