kalerkantho

রবিবার । ২ অক্টোবর ২০২২ । ১৭ আশ্বিন ১৪২৯ ।  ৫ রবিউল আউয়াল ১৪৪৪

এইচএসসি পরীক্ষা : অধ্যায়ভিত্তিক প্রশ্ন ফিন্যান্স, ব্যাংকিং ও বিমা প্রথম পত্র

মোহাম্মদ জয়নাল আবেদীন, প্রভাষক, হিসাববিজ্ঞান বিভাগ সিদ্ধেশ্বরী কলেজ, ঢাকা

১৫ আগস্ট, ২০২২ ০০:০০ | পড়া যাবে ৪ মিনিটে



এইচএসসি পরীক্ষা : অধ্যায়ভিত্তিক প্রশ্ন ফিন্যান্স, ব্যাংকিং ও বিমা প্রথম পত্র

অঙ্কন : শেখ মানিক

ষষ্ঠ অধ্যায়

দীর্ঘমেয়াদি অর্থায়ন

দ্বিতীয় অংশ

জ্ঞানমূলক প্রশ্ন

 

১।    সংরক্ষিত মুনাফার ব্যয় কী?

     উত্তর : সাধারণ শেয়ারের ব্যয়ের সমতুল্য ব্যয়কেই সংরক্ষিত মুনাফার ব্যয় বলা হয়ে থাকে।

২।    সংরক্ষিত মুনাফার সাথে কোন ব্যয় জড়িত?

     উত্তর : কোম্পানি যদি লভ্যাংশ প্রদান করত, তাহলে শেয়ারহোল্ডাররা অন্যত্র শেয়ার, বন্ড বা ব্যবসায় বিনিয়োগ করতে পারত।

বিজ্ঞাপন

আয় সংরক্ষণের কারণে এই সুযোগ হাতছাড়া হয় বলে সংরক্ষিত আয়ের সাথে সুযোগ ব্যয় জড়িত।

৩।    কোন মূলধন ব্যয়ের ক্ষেত্রে ব্যক্তিগত আয়কর বিবেচনা করা হয়?

     উত্তর : সংরক্ষিত মুনাফার ব্যয়ের ক্ষেত্রে ব্যক্তিগত আয়কর বিবেচনা করা হয়।

৪।    সংরক্ষিত মুনাফার ব্যয় অপেক্ষা সাধারণ শেয়ারের ব্যয় বেশি কেন?

     উত্তর : স্থির লভ্যাংশ প্রবৃদ্ধি মডেল অনুসারে কোম্পানির লভ্যাংশ প্রতিবছর নির্দিষ্ট হারে বৃদ্ধি পেয়ে থাকে। লভ্যাংশ বৃদ্ধির ফলে শেয়ারহোল্ডারদের প্রত্যাশিত আয়ের হারও বেড়ে যায়। যার জন্য কোম্পানির কার্যক্রম প্রসারিত হতে থাকে। ফলে কোম্পানির নতুন শেয়ার ইস্যুর প্রয়োজন হয়। নতুন শেয়ার ইস্যুর জন্য শেয়ার বিক্রয়জনিত উত্তরণ ব্যয় বৃদ্ধি পেতে থাকে। এ জন্য সংরক্ষিত মুনাফার ব্যয় অপেক্ষা সাধারণ শেয়ারের ব্যয় বেশি হয়ে থাকে।

৫।    অবমূল্যায়িত কী?

     উত্তর : চলতি বাজার মূল্যের চেয়ে কমে বিক্রীকৃত শেয়ারের মূল্যকে অবমূল্যায়িত বলা হয়।

৬।    সামগ্রিক মূলধন ব্যয় বা গুরুত্ব প্রদত্ত গড় মূলধন ব্যয় কী?   

     উত্তর : মূলধন কাঠামোর প্রতিটি উপাদানের ব্যয়ের সাথে সংশ্লিষ্ট উপাদানের গুরুত্বের গুণফলের সমষ্টিকে সামগ্রিক মূলধন ব্যয় বা গুরুত্ব প্রদত্ত গড় মূলধন ব্যয় বলে।

৭।   প্রত্যাশিত আয়ের হার কী?

     উত্তর : একটি বিনিয়োগ বা সিকিউরিটি হতে বার্ষিক আয় ও তার বাজার মূল্য পরিবর্তনের শতকরা হারকে প্রত্যাশিত আয় বলে। কোনো সিকিউরিটি হতে প্রতিবছর প্রাপ্ত আয় ও এটি বিক্রয়মূল্য হতে প্রাপ্ত মূলধনী লাভের প্রত্যাশিত আয়কে প্রতিদান হার বা উপার্জন হারও বলা হয়ে থাকে।

৮।   ইল্ড বলতে কী বোঝো?

     উত্তর : সিকিউরিটি হতে প্রতিবছর গ্রহণকৃত আয় ও বিক্রয়ের দ্বারা প্রাপ্ত মূলধনী লাভকে ইল্ড বলে। ইল্ডকে Required Rate of Returnবা Internal Rate of Return (IRR)-এর অনুরূপ বাট্টার হার হিসেবে বিবেচনা করা হয়ে থাকে।

৯। মেয়াদোত্তীর্ণ আয় বলতে কী বোঝো?

     উত্তর : যদি একটি বন্ড নির্দিষ্ট মূল্যে ক্রয় করে মেয়াদোত্তীর্ণের পূর্ব পর্যন্ত ধরে রেখে একজন বিনিয়োগকারীর যে আয় অর্জন করে তাকে মেয়াদোত্তীর্ণ আয় বলে।

১০। কল পর্যন্ত আয়/কলমূল্য/কল বন্ড বলতে কী বোঝো?

     উত্তর : যদি মেয়াদপূর্তির আগে ফার্ম কর্তৃক বন্ড ফেরত নেওয়ার জন্য আহ্বান করা হয়, তাহলে ওই সময় পর্যন্ত হিসাবকৃত আয়কে কল পর্যন্ত আয় বলে। আর মেয়াদপূর্তির আগে বন্ড ফেরত নেওয়ার জন্য আহ্বান করা হলে ওই সময় পর্যন্ত হিসাবকৃত আয়ের পরিমাণকে কল মূল্য বলে। মেয়াদপূর্তির আগে বন্ড ফেরত নেওয়ার জন্য অধিকারসংবলিত বন্ডকে কল বন্ড বলে।

১১। চলতি আয় বলতে কী বুঝো?

     উত্তর : বন্ডের চলতি মূল্যের ওপর যে তাৎক্ষণিক সুদ প্রদান করা হয় তাকে চলতি আয় বলে।

১২। বাট্টার হার কী?

     উত্তর : ভবিষ্যতের প্রত্যাশিত নগদ প্রবাহকে যে হার দ্বারা বর্তমান মূল্যে আনা যায় তাকে বাট্টার হার বলে।

১৩। কুপন হার কী?

     উত্তর: কুপন হার হলো বন্ডের ওপর নির্ধারিত সুদের হার; যা বন্ডের লিখিত মূল্যের ওপর বার্ষিক সুদ পরিশোধ করা হয়।

১৪। জিরো কুপন হার কী?

     উত্তর : যদি বন্ডের ওপর কোনো প্রকার সুদ প্রদান করা হয় না, তাহলে এই সুদের হারকে জিরো কুপন হার বলা হয়।

১১৫। কুপন বন্ড কী?

     উত্তর : যে বন্ডে নির্দিষ্ট হারে সুদের হার উল্লেখ থাকে ও সুদ প্রদান করা হয় তাকে কুপন বন্ড বলে।

১৬। শূন্য কুপন বন্ড কী?

     উত্তর : যে বন্ডের ওপর কোনো প্রকার সুদ দেওয়া হয় না, লিখিত মূল্যের ওপর বাট্টায় (কমে) বিক্রি হয় তাকে শূন্য কুপন বন্ড বলে। পরিশোধমূল্য ও ক্রয়মূল্যের পার্থক্য হলো এই বন্ডের আয়।

১৭। করপোরেট বন্ড কী?

     উত্তর : কোম্পানি কর্তৃক গৃহীত ঋণের অর্থ পরিষ্কারভাবে উল্লিখিত শর্তে ভবিষ্যতে পরিশোধের অঙ্গীকারকে করপোরেট বন্ড বলে। বন্ডের লিখিত মূল্যের ওপর সাধারণত বার্ষিক হারে সুদ প্রদান করা হয়। বন্ড কোম্পানির জন্য একটি দীর্ঘমেয়াদি দায় এবং আনুষ্ঠানিক দলিল।



সাতদিনের সেরা