kalerkantho

মঙ্গলবার । ২৮ জুন ২০২২ । ১৪ আষাঢ় ১৪২৯ । ২৭ জিলকদ ১৪৪৩

বাংলা প্রথম পত্র

নবম ও দশম শ্রেণি অধ্যায়ভিত্তিক প্রশ্ন

আতাউর রহমান সায়েম,সিনিয়র সহকারী শিক্ষক,আইডিয়াল স্কুল অ্যান্ড কলেজ,মতিঝিল, ঢাকা

১৬ মে, ২০২২ ০০:০০ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



কবিতা

বঙ্গবাণী

আবদুল হাকিম

বহু নির্বাচনী প্রশ্ন

 

[পূর্ব প্রকাশের পর]

৩৬। ‘বঙ্গবাণী’ কবিতায় উল্লিখিত ‘হিন্দুর অক্ষর হিংসে’ কাদের কথা বলা হয়েছে?

                ক) মুসলমানদের         

                খ) মারফত জ্ঞানহীনদের 

                গ) আরববাসীদের              

                ঘ) মুশরিকদের

৩৭। যে ভাষার অর্থ সাধারণের বোধগম্য নয় বলে আমাদের দেশের মানুষের কাছে গ্রহণযোগ্য হয় না—

     i. আরবি          ii. বাংলা           iii. ফারসি

                নিচের কোনটি সঠিক?

ক) i ও ii                 খ) i ও iii               

 গ) ii ও iii               ঘ) i, ii ও iii

৩৮। ‘হিন্দুর অক্ষর’ বলতে কবি আবদুল হাকিম কী বোঝাতে চেয়েছেন?

                ক) বাংলা ভাষার অক্ষর   খ) সংস্কৃত ভাষার অক্ষর

                গ) আরবি ভাষার অক্ষর

                ঘ) দেবনাগরী ভাষার অক্ষর

 ৩৯।

বিজ্ঞাপন

‘বঙ্গবাণী’ কবিতার বিষয়বস্তু ও কবি চেতনার স্বতন্ত্র সচেতন

     পাঠককে বিস্মিত করে। এ বিস্ময়ের মূলে রয়েছে—

                i. পাঠকের আবেগজনিত মুগ্ধতা    

                ii . মধ্যযুগের কালগত বৈশিষ্ট্য    

                iii. মধ্যযুগের পটভূমিতে আধুনিক দৃষ্টিভঙ্গির প্রকাশ

     নিচের কোনটি সঠিক?

      ক) ii            খ) iii               গ)  i ও ii            ঘ) ii ও iii     

৪০। ‘হিন্দুর অক্ষর’ বলে যারা বাংলা ভাষাকে উপেক্ষা করে, তারা আসলে কী?

      ক) অতিশয় মূর্খ      

                খ) অতি চালাক         

                গ) অতিশয় ধর্মভীরু        ঘ) অতি বোকা

৪১। ‘বঙ্গবাণী’ কবিতার বর্ণনা সাহিত্যের অন্তর্ভুক্ত কী?

                ক) পুঁথিসাহিত্য                  খ) গদ্যসাহিত্য  

                গ) আধুনিক কাব্য             ঘ) মহাকাব্য

                নিচের উদ্দীপক পড়ো এবং ৪২-৪৩ নম্বর প্রশ্নের উত্তর দাও :

                অধ্যাপক ইব্রাহিম একজন ভাষাবিজ্ঞানী। তিনি পৃথিবীর বহু ভাষা নিয়ে গবেষণা করেছেন। বেশ কয়েকটি ভাষায় তিনি সমান তালে লিখতে ও পড়তে পারেন। তবে তাঁর কাছে মাতৃভাষার কোনো প্রতিদ্বন্দ্বী নেই। অন্য সব ভাষার প্রতিও তাঁর যথেষ্ট শ্রদ্ধা আছে।

৪২। উদ্দীপকের অধ্যাপক ইব্রাহিমের সঙ্গে তোমার পাঠ্য বইয়ের কোন কবির মিল পাওয়া যায়?

                ক) আবদুল হাকিম                 খ) রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর    

                গ) মাইকেল মধুসূদন দত্ত ঘ) কায়কোবাদ

৪৩।        উদ্দীপকটির মধ্য দিয়ে ওই কবির কবিতার কোন দিকটি প্রকাশ পেয়েছে?

                ক) মাতৃভাষার প্রতি ভালোবাসা

                খ) বিদেশি ভাষাকে ভালোবাসা

                গ) বিদেশি ভাষাকে ঘৃণা করা                       

                ঘ) সব ভাষা শেখার গুরুত্ব 

                নিচের উদ্দীপক পড়ো এবং ৪৪-৪৫ নম্বর প্রশ্নের উত্তর দাও :

                কাজল সাহেব প্রার্থনার সময় মুখস্থ কিছু বুলি না আওড়িয়ে তাঁর মাতৃভাষা বাংলায় ঈশ্বরের কাছে সাহায্য প্রার্থনা করেন। তিনি বিশ্বাস করেন, কোনো ভাষার প্রতি ঈশ্বরের বিরাগ নেই এবং তিনি মানুষের মনের যেকোনো কথা, তা যেকোনো ভাষায় প্রকাশিত বা অপ্রকাশিত হোক না কেন, বুঝতে সক্ষম।

৪৪। উদ্দীপকের আলোকে ‘বঙ্গবাণী’ কবিতার কোন ভাবটি প্রকাশ পায়?

                ক) সৃষ্টিকর্তা সরল, জটিল ও যৌগিক বাক্য বোঝেন

                খ) সৃষ্টিকর্তা নির্দেশাত্মক বাক্য বোঝেন

                গ) সৃষ্টিকর্তা সব বাক্য, সব ভাষা বোঝেন

                ঘ) সৃষ্টিকর্তা দেশি ও বিদেশি ভাষা বোঝেন

৪৫। ‘বঙ্গবাণী’ কবিতার কোন কথাটি প্রদত্ত উদ্দীপকের বক্তব্যের সঙ্গে সাদৃশ্যপূর্ণ?

                ক) যত ইতিবাণী               

                খ) হিন্দুর অক্ষর

                গ) দেশি ভাষা

                ঘ) আরবি-ফারসি ভাষা

                উত্তর : ৩৬. খ ৩৭. খ ৩৮. ক ৩৯. খ ৪০. ক ৪১. ক ৪২. ক ৪৩. ক ৪৪. গ ৪৫. ক।



সাতদিনের সেরা