kalerkantho

সোমবার । ৩ মাঘ ১৪২৮। ১৭ জানুয়ারি ২০২২। ১৩ জমাদিউস সানি ১৪৪৩

মোংলা বন্দর

[ষষ্ঠ শ্রেণির বাংলাদেশ ও বিশ্বপরিচয় বইয়ের তৃতীয় অধ্যায়ে মোংলা বন্দরের উল্লেখ আছে]

২ ডিসেম্বর, ২০২১ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



মোংলা বন্দর

মোংলা বন্দর খুলনা শহর থেকে ৪৮ কিলোমিটার দক্ষিণে মোংলা উপজেলায় অবস্থিত বাংলাদেশের দ্বিতীয় সমুদ্রবন্দর। প্রথমে এই বন্দর গড়ে ওঠে চালনা থেকে ১৮ কিলোমিটার উজানে। পূর্ব বাংলার দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলে সেবা দেওয়ার জন্য ১৯৫০ সালে এই বন্দর প্রতিষ্ঠা করা হয় এবং ১১ ডিসেম্বর বন্দরটি বিদেশি জাহাজ নোঙরের জন্য প্রথম উন্মুক্ত করা হয়। শুরুর দিকে এটি চালনা বন্দর নামে পরিচিত ছিল। ১৯৫০ সালে এটি প্রতিষ্ঠা লাভের পর চালনা বন্দর কর্তৃপক্ষ নামে একটি সরকারি অধিদপ্তর হিসেবে যাত্রা শুরু করে।

সমুদ্রগামী জাহাজ নোঙরের ক্ষেত্রে মোংলা উপজেলা অধিকতর সুবিধাজনক বিধায় ১৯৫৪ সালে বন্দরটি মোংলায় স্থানান্তরিত হয়। স্থানান্তরিত হওয়ার পরও এই বন্দর দীর্ঘদিন ধরে চালনা নামেই পরিচিত হতে থাকে। চালনা বন্দর কর্তৃপক্ষ ১৯৮৭ সালের মার্চ মাসে নাম পরিবর্তন করে ‘মোংলা বন্দর কর্তৃপক্ষ’ হিসেবে যাত্রা শুরু করে।

মোংলা বন্দরে ১১টি জেটি, পণ্য বোঝাই ও খালাসের জন্য সাতটি শেড এবং আটটি ওয়্যারহাউস রয়েছে। নদীর গভীরে রয়েছে ১২টি ভাসমান নোঙর করার স্থান। হিরন পয়েন্টে মোংলা বন্দর কর্তৃপক্ষ নাবিকদের জন্য একটি রেস্টহাউস নির্মাণ করেছে। এই বন্দরটি বাংলাদেশ রেলওয়ের মাধ্যমে খুলনা মেট্রোপলিটন এলাকার সঙ্গে সংযুক্ত।

২০২০-২১ অর্থবছরে ৯৭০টি বাণিজ্যিক জাহাজ এই বন্দরে নোঙর করে, যা বন্দরটিতে বাণিজ্যিক জাহাজ আগমনের নতুন রেকর্ড। প্রায় সব প্রধান বন্দরের সঙ্গে এই বন্দরের সংযোগ আছে। এখানে বেশির ভাগ জাহাজ এশিয়া, মধ্যপ্রাচ্য, অস্ট্রেলিয়া, ইউরোপ ও উত্তর আমেরিকা থেকে আসে। ভারতের সঙ্গে একটি উপকূলীয় জাহাজ চুক্তির মাধ্যমে মোংলা ও কলকাতা বন্দরের মধ্যে জাহাজরুটে সরাসরি সংযোগ করেছে। থাইল্যান্ডের সঙ্গেও একটি উপকূলীয় জাহাজ চুক্তি স্বাক্ষরিত হয়েছে।

বর্তমানে বন্দরটি ২৪ ঘণ্টা খোলা থাকে, পণ্য খালাসের জন্য ২২৫ মিটার পর্যন্ত লম্বা জাহাজ বন্দরে প্রবেশ করতে পারে। প্রতিবছর এই বন্দরে গড়ে প্রায় ৪০০টি জাহাজ নোঙর করে এবং গড়ে তিন মিলিয়ন মেট্রিক টন পণ্যের আমদানি-রপ্তানি সম্পন্ন হয়।

২০২১-২২ (জুলাই ২১) অর্থবছরে মোংলা বন্দরের রাজস্ব আয় ১৮৫৬.৪১ লাখ টাকা, ব্যয় ১৮০৪.৮৩ লাখ টাকা এবং মুনাফা ৫১.৫৮ লাখ টাকা।

 ►   ইন্দ্রজিৎ মণ্ডল

 

[আরো বিস্তারিত জানতে বাংলাপিডিয়া ও পত্রপত্রিকায় মোংলা বন্দর সম্পর্কিত লেখাগুলো পড়তে পারো।]



সাতদিনের সেরা