kalerkantho

রবিবার । ১৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৮। ২৮ নভেম্বর ২০২১। ২২ রবিউস সানি ১৪৪৩

পঞ্চম শ্রেণি : বাংলা

আতাউর রহমান সায়েম, সিনিয়র সহকারী শিক্ষক, আইডিয়াল স্কুল অ্যান্ড কলেজ, মতিঝিল, ঢাকা

২৭ অক্টোবর, ২০২১ ০০:০০ | পড়া যাবে ৫ মিনিটে



পঞ্চম শ্রেণি : বাংলা

অঙ্কন : প্রসূন

অ ধ্যা য় ভি ত্তি ক  প্র শ্ন

কবিতা

দুই তীরে

 

রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর

 

     পাঠ্য বই বহির্ভূত যোগ্যতাভিত্তিক প্রশ্ন

     নিচের কবিতাংশটি পড়ে প্রশ্নগুলোর উত্তর লেখো :

     সব নাও, মাঝি, চকচকে সিকি

     এই আনি দুটো, তাও।

     লক্ষ্মী তো, মোরে-আর ছোকানুরে

     নৌকায় তুলে নাও।

     শুয়ে-শুয়ে দেখি অবাক আকাশ,

     আকাশ মস্ত বড়ো,

     পৃথিবীর সব নীল রং বুঝি

     সেখানে করেছে জড়ো।

     সারাদিন গেলো, সূর্য লুকালো

     জলের তলার ঘরে,

     সোনা হয়ে জ্বলে পদ্মার জল

     কালো হলো তার পরে

     সন্ধ্যার বুকে তারা ফুটে ওঠে—

     এবার নামাও পাল,

     গান ধরো, মাঝি; জলের শব্দ

     ঝুপঝুপ দেবে তাল।

 

১।   নিচে কয়েকটি শব্দ ও শব্দার্থ দেওয়া হলো। উপযুক্ত শব্দটি দিয়ে নিচের বাক্যগুলোর শূন্যস্থান পূরণ করো।

ক)   দাদু খড়গুলো  --- করছেন।

খ)   --- তুলে দেওয়ায় নৌকার গতি বেড়ে গেল।

গ)   --- ছেলেদের সবাই ভালোবাসে।

ঘ)   হাতি এক  --- প্রাণী।

ঙ)   সুমনের গানের গলা সবাইকে  --- করে দিল।

     উত্তর

     ক) জড়ো    খ) পাল

     গ) লক্ষ্মী     ঘ) মস্ত

     ঙ) অবাক

 

২।   নিচের প্রশ্নগুলোর উত্তর লেখো :

ক)   সন্ধ্যায় কী কী ঘটল? তিনটি বাক্যে লেখো।

     উত্তর

     সন্ধ্যায় যা যা ঘটল—

     ১) সূর্য অস্ত গেল।

     ২) পদ্মার জলে সোনালি আলোর দ্যুতি দেখা গেল।

     ৩) ধীরে ধীরে পদ্মার জল কালো রং ধারণ করল।

 

খ)   কোনো এক সন্ধ্যায় নৌকা ভ্রমণের বর্ণনা পাঁচটি বাক্যে লেখো।

     উত্তর

     নিচে পাঁচটি বাক্যে কোনো এক সন্ধ্যায় নৌকা ভ্রমণের বর্ণনা দেওয়া হলো—

     ১) ভাড়া করা নৌকা নিয়ে আমি, আমার ছোট ভাই ও বড় মামা এক সন্ধ্যায় ভ্রমণে বের হয়েছিলাম।

     ২) চাঁদের আলোয় চারদিক আলোকিত হয়ে ছিল।

     ৩) নদীর জলে চাঁদের আলো পড়ে এক অসাধারণ দৃশ্যের অবতারণা হয়েছিল।

     ৪) আমরা নাশতা করার জন্য সঙ্গে মুড়ি, চানাচুর নিয়েছিলাম।

     ৫) রাত ১০টায় আমরা আনন্দ ভ্রমণ শেষ করে বাড়ি ফিরেছিলাম।

৩।   নিচের যুক্তবর্ণগুলো কোন কোন বর্ণ নিয়ে তৈরি ভেঙে দেখাও এবং প্রতিটি যুক্তবর্ণ দিয়ে একটি করে শব্দ গঠন করে বাক্যে প্রয়োগ দেখাও।

     ষ্ট, ন্দ ,ণ্ড, ল্প, ক্ষ, চ্ছ, ন্ধ, ন্দ, দ্র, স্ত।

    

     উত্তর

     ষ্ট (ষ্ + ট) = নষ্ট 

     বাক্যে প্রয়োগ : খাবারগুলো নষ্ট হয়ে গেছে।

     ন্দ {ন্ + দ্ + র-ফলা (  ্র )} = তন্দ্রা

     বাক্যে প্রয়োগ : খোকা তন্দ্রায় ঢুলছে।

     ণ্ড (ণ্ + ড) = প্রচণ্ড

     বাক্যে প্রয়োগ : রাতুল প্রচণ্ড ভয় পেয়েছে।

     ল্প (ল্ + প) = গল্প

     বাক্যে প্রয়োগ : আমার গল্প শুনতে ভালো লাগে।

     ক্ষ (ক্ + ষ) = ক্ষমা

     বাক্যে প্রয়োগ : ক্ষমা মহৎ কাজ।

     চ্ছ (চ্ + ছ) = গচ্ছিত    

     বাক্যে প্রয়োগ : মায়ের কাছে আমার কিছু টাকা গচ্ছিত আছে।

     ন্ধ (ন্ + ধ) = বন্ধ

     বাক্যে প্রয়োগ : জানালাটা বন্ধ করে দাও।

     ন্দ (ন্ + দ) = বন্দি

     বাক্যে প্রয়োগ : সারাক্ষণ ঘরে বন্দি থাকতে ভালো লাগে না।

     দ্র {দ্ + র-ফলা (  ্র)} =  ক্ষুদ্র  

     বাক্যে প্রয়োগ : ক্ষুদ্র পিঁপড়াও সময়ের মূল্য জানে।

     স্ত (স্ + ত) = সমস্ত

     বাক্যে প্রয়োগ : বাবা সমস্ত কাজ একাই করলেন।

 

৪।   এক কথায় প্রকাশ করো।

 

     উত্তর       

     জনমানব শূন্যস্থান—নির্জন     হাঁসজাতীয় এক ধরনের পাখি—চকাচকি 

     এক ধরনের নৌকা—ডিঙি     

     বাঁশের বাগান—বেণু বন

 

৫।   ক্রিয়াপদের চলিত রূপ লেখো :

     ফুটিয়াছে, যাইতেছে, বাঁধিল, মিলাইয়া, বসিয়া, ভাসিয়া, থাকিয়া, আসিয়া, ভাসাইয়া,  মিলিয়াছে, দিয়াছে।

     উত্তর 

     সাধু রূপ      চলিত রূপ

     ফুটিয়াছে ফুটেছে

     যাইতেছে     যাচ্ছে

     বাঁধিল  বাঁধল

     মিলাইয়া মিলিয়ে

     বসিয়া  বসে

     ভাসিয়া ভেসে  থাকিয়া থেকে  আসিয়া এসে  

     ভাসাইয়া     ভাসিয়ে মিলিয়াছে     মিলেছে দিয়াছে দিয়েছে

 

৬।   বাক্যে সাধুরীতির ক্রিয়াপদের চলিত রূপ দেখাও :

     সাধুরূপ : সেখান থেকে একটা রাস্তা আসিয়াও মিশিয়াছে নদীতে।    

     চলিতরূপ : সেখান থেকে একটা রাস্তা এসেও মিশেছে নদীতে। 

     সাধুরূপ : শীতের সময় হাঁসেরা আসিয়া ভিড় করে।   চলিতরূপ : শীতের সময় হাঁসেরা এসে ভিড় করে।   

     সাধুরূপ : নদীর তীরে তীরে ফুটিয়া থাকে কাশফুল।   চলিতরূপ : নদীর তীরে তীরে ফুটে থাকে কাশফুল।  

     সাধুরূপ : সন্ধ্যায় নদীর তীরে জেলে ডিঙি আসিয়া ভেড়ে।    

     চলিতরূপ : সন্ধ্যায় নদীর তীরে জেলে ডিঙি এসে ভেড়ে।    

     সাধুরূপ : একটি নদী দুই তীরের মানুষকে মিলাইয়া দিয়াছে।  

     চলিতরূপ : একটি নদী দুই তীরের মানুষকে মিলিয়ে দিয়েছে।

 

৭।   নিচের শব্দগুলোর দুটি করে সমার্থক শব্দ লেখো :

     নদী, তট, বন, ঘর, জল, আচ্ছাদন, সকাল, দিন, নিরবধি।

     উত্তর

৮।   নিচের শব্দগুলোর বিপরীত শব্দ লেখো :

     মিল, বাঁকা, রোদ, ঘন, ভালো, সন্ধ্যা, দিনে, ভাসায়, বিদেশি, সুন্দর।

     উত্তর

     মূল শব্দ বিপরীত শব্দ

     মিল   অমিল 

     বাঁকা  সোজা

     রোদ  বৃষ্টি

     ঘন   পাতলা

     ভালো  মন্দ

     সন্ধ্যা সকাল 

     দিনে   রাতে

     ভাসায় ডোবায়

     বিদেশি দেশি

     সুন্দর  কুৎসিত



সাতদিনের সেরা