kalerkantho

সৃজনশীল প্রশ্ন

এইচএসসি প্রস্তুতি ব্যবসায় সংগঠন ও ব্যবস্থাপনা প্রথম পত্র

পপেল চন্দ্র সাহা, সহকারী অধ্যাপক, আবদুল কাদির মোল্লা সিটি কলেজ, নরসিংদী

২২ জানুয়ারি, ২০২০ ০০:০০ | পড়া যাবে ৬ মিনিটে



এইচএসসি প্রস্তুতি ব্যবসায় সংগঠন ও ব্যবস্থাপনা প্রথম পত্র

সপ্তম অধ্যায় : রাষ্ট্রীয় ব্যবসায়

সৃজনশীল প্রশ্ন ও উত্তর

১। পুলক বাবু পণ্য কেনার বিষয়ে খুবই সাবধান থাকেন। বাংলাদেশি কোনো পণ্য কিনতে গেলে তিনি দেখেন যথাযথ কর্তৃপক্ষের অনুমোদন আছে কি না, বিশেষ করে খাদ্য ও প্রসাধনীসামগ্রীর বেলায় এটা থাকতেই হবে। ব্র্যান্ড পণ্য কেনার প্রতি তাঁর আগ্রহ। তিনি মনে করেন স্কয়ার, প্রাণ, বেক্সিমকো ইত্যাদি বড় প্রতিষ্ঠানে একটি আদর্শ মান মেনে চলা হয়। এ ক্ষেত্রে নকলের সম্ভাবনাও কম।

ক) বীমা কী?                              

খ) আন্তর্জাতিক বাণিজ্যে ISO গুরুত্বপূর্ণ কেন?           ২

গ) পুলক বাবু কোন ধরনের কর্তৃপক্ষের অনুমোদন আছে কি না তা পরীক্ষা করেন? ব্যাখ্যা করো।        ৩

ঘ) পুলক বাবু যে আইনগত বিষয়টি দেখে পণ্য কিনেন, তার যর্থাথতা মূল্যায়ন করো।           ৪

উত্তর : ক) মানুষের জীবন ও সম্পত্তিকে ঘিরে যে ঝুঁকি ও অনিশ্চয়তা বিদ্যমান তার বিপক্ষে আর্থিক প্রতিরক্ষা ব্যবস্থাই হলো বীমা।

খ) একটা প্রতিষ্ঠানে কতটা মানসম্মত পণ্য ও সেবা সরবরাহ করে এবং তাদের ব্যবস্থার মান কেমন এ বিষয়ে মান সনদ প্রদানকারী আন্তর্জাতিক সংস্থাকেই ISO বলে।

আন্তর্জাতিক বাণিজ্যে ক্রেতার পক্ষে পণ্য দেখে ক্রয় করার সুযোগ সীমিত। তাই পণ্য মানের বিষয়ে ক্রেতার এক ধরনের উদ্বিগ্নতা থাকে। এ ক্ষেত্রে পণ্যমানবিষয়ক মানসনদ প্রদানকারী প্রতিষ্ঠানের সনদকে গুরুত্ব দেওয়া ছাড়া গত্যন্তর থাকে না। এরূপ মানসনদ প্রদানকারী প্রতিষ্ঠান যদি আন্তর্জাতিক মানের হয়, তবে তার ওপর ক্রেতা, ভোক্তা বা ব্যবহারকারীরা অধিক আস্থা রাখতে পারেন। ISO কাজটি করে বিধায় বৈদেশিক বাণিজ্যে ISO গুরুত্বপূর্ণ।

গ) পুলক বাবু বিএসটিআইর অনুমোদন আছে কি না তা পরীক্ষা করেন।

বাংলাদেশের পণ্যের মান নির্ধারণ পণ্যমান পরীক্ষা ও মান নিশ্চিত করার জন্য যে সরকারি প্রতিষ্ঠান কর্মরত রয়েছে, তাকে বিএসটিআই বলে। এর উদ্দেশ্য হলো শিল্প, খাদ্য ও রাসায়নিক পণ্যের ক্ষেত্রে আঞ্চলিক ও আন্তর্জাতিক মানের সঙ্গে সামঞ্জস্য রেখে বাংলাদেশের জন্য একটা জাতীয় মান তৈরি করে ওই মান নিশ্চিতের ব্যবস্থা করা।

উদ্দীপকে, পুলক বাবু পণ্য ক্রয়ের বিষয়ে খুবই সাবধান থাকেন। বাংলাদেশি কোনো পণ্য বিশেষভাবে খাদ্য ও প্রসাধনী কিনতে গেলে তিনি দেখেন যথাযথ কর্তৃপক্ষের অনুমোদন রয়েছে কি না। বাংলাদেশে এরূপ অনুমোদন দেওয়ার জন্য যেহেতু একক কর্তৃপক্ষ হলো বিএসটিআই। তাই পুলক বাবু বিএসটিআইর অনুমোদন আছে কি না তা দেখেন।

ঘ) পুলক বাবু ট্রেডমার্ক দেখে পণ্য কেনেন, যা যথার্থ।

ট্রেডমার্ক হলো পণ্য বা ব্যবসায়ের এমন কোনো স্বতন্ত্রসূচক বৈশিষ্ট্য, চিহ্ন বা প্রতীক, যা সবার কাছে ব্যবসায় বা পণ্যকে সহজে পরিচিত করে তোলে এবং এর মালিককে তা ব্যবহারের একচ্ছত্র অধিকার নির্দেশ করে। আইনে ট্রেডমার্ক বলতে কোনো ডিভাইস, ব্র্যান্ড, শিরোনাম, লেবেল, নাম, প্রতীক বা এগুলোর যেকোনো রূপ সমন্বয়কে বোঝায়।

উদ্দীপকে বলা হয়েছে, পুলক বাবু ব্র্যান্ড পণ্য কেনার বিষয়ে আগ্রহী। তিনি মনে করেন স্কয়ার, প্রাণ ইত্যাদি বড় প্রতিষ্ঠানে একটা মান মেনে চলা হয়। এ ক্ষেত্রে নকলের আশঙ্কাও কম। অর্থাৎ ব্র্যান্ড পণ্যের প্রতি আগ্রহ বলায় এ ক্ষেত্রে ট্রেডমার্কসংক্রান্ত আইনগত বিষয় সম্পর্কে বলা হয়েছে।

একটা প্রতিষ্ঠান বাজারে পণ্য ছাড়লেই ক্রেতাদের সুদৃষ্টি অর্জন করতে পারে না। যখন এর গুণাগুণ, উপস্থাপনা ইত্যাদি একটা মানে পৌঁছে, তখন ওই পণ্যটি গ্রাহকদের কাছে জনপ্রিয় হয়। তখন এর নকল হওয়ার আশঙ্কা থাকে। তখনই উৎপাদনকারী প্রতিষ্ঠান ট্রেডমার্ক আইনে পণ্য নামটি নিবন্ধন করে। তাই এটা দেখে ক্রয় করা পুলক বাবুর জন্য যথার্থ।

২। বিমল সাহেব শাপলা পাওয়ার ব্যাংকের স্বত্বাধিকারী। ডিজাইন ও গুণগতমানের জন্য বাজারে পণ্যটির চাহিদা বেশি। নাম ও মার্কা নিবন্ধিত হওয়ায় ব্যবসার ক্ষেত্রে মালিক ও ভোক্তা অনেক সুবিধা ভোগ করেন। সম্প্রতি পণ্যের গুদামে আগুন লেগে ক্ষতিগ্রস্ত হলেও ক্ষতিপূরণ পাওয়ার ব্যবস্থা থাকায় তিনি চিন্তিত নন।

ক) শব্দদূষণ কী?  ১

খ) জীবন বীমাকে নিশ্চয়তার চুক্তি বলা হয় কেন? ব্যাখ্যা করো।  ২

গ) উদ্দীপকে বর্ণিত পাওয়ার ব্যাংকের নিবন্ধন ব্যবসায়ের কোন আইনের সঙ্গে সম্পর্কিত? ব্যাখ্যা করো।            ৩

ঘ) ক্ষতিপূরণের জন্য গৃহীত ব্যবস্থার যথার্থতা উদ্দীপকের আলোকে বিশ্লেষণ করো।  ৪

উত্তর : ক) নিরিবিলি পরিবেশে যে অস্বাভাবিক অবস্থার সৃষ্টি হয়, তাকে শব্দদূষণ বলে।

খ) যে চুক্তিতে ক্ষতি সংঘটিত হলে ক্ষতিপূরণ না করে নির্দিষ্ট পরিমাণ অর্থ প্রদানের প্রতিশ্রুতি দেওয়া হয়, তাকে নিশ্চয়তার চুক্তি বলে।

সম্পত্তি বীমায় ক্ষতির আর্থিক পরিমাণ নির্ণয় করা যায় বিধায় তা ক্ষতিপূরণের চুক্তি; কিন্তু জীবন বীমায় জীবনের হানি হলে বা ব্যক্তি অক্ষম হলে ক্ষতির পরিমাণ নির্ণয় করা যায় না। তাই এ ক্ষেত্রে বীমা কম্পানি কেউ মারা গেলে বা পঙ্গুত্ববরণ করলে কী পরিমাণ অর্থ প্রদান করবে তার নিশ্চয়তা দিয়ে থাকে, যা বিপদ সংঘটিত হলে প্রদান করে। তাই জীবন বীমা নিশ্চয়তার চুক্তি।

গ) উদ্দীপকে বর্ণিত পাওয়ার ব্যাংকের নিবন্ধন ব্যবসায়ের ট্রেডমার্ক আইনের সঙ্গে সম্পর্কিত।

ট্রেডমার্ক হলো পণ্য বা ব্যবসায়ের এমন কোনো স্বতন্ত্র সূচক, বৈশিষ্ট্য, চিহ্ন বা প্রতীক, যা সবার কাছে ব্যবসায় বা পণ্যকে সহজে পরিচিত করে তোলে এবং এর মালিককে তা ব্যবহারের একচ্ছত্র অধিকার নির্দেশ করে। ট্রেডমার্কের মূল বিষয় হলো অন্য পণ্য বা প্রতিষ্ঠান থেকে এর স্বাতন্ত্র্যতা বা ভিন্নতা।

উদ্দীপকে বিমল সাহেব শাপলা পাওয়ার ব্যাংকের স্বত্বধিকারী। তার প্রতিষ্ঠানে উৎপাদিত পণ্যের ডিজাইন ও গুণগতমানের জন্য বাজারে পণ্যটির চাহিদা অনেক বেশি। এ ছাড়া তার নাম ও মার্কা নিবন্ধিত হওয়ায় ব্যবসায়ের ক্ষেত্রে তিনি অনেক বেশি সুবিধা ভোগ করেন। তাঁর এই নিবন্ধনটি ট্রেডমার্কের সঙ্গে সামঞ্জস্যপূর্ণ। তাই বলা যায়, উদ্দীপকে বর্ণিত পাওয়ার ব্যাংকের নিবন্ধন ব্যবসায়ের ট্রেডমার্ক আইনের সঙ্গে সম্পর্কিত।

ঘ) ক্ষতিপূরণে জন্য গৃহীত বীমা ব্যবস্থা প্রতিষ্ঠানের জন্য কার্যকর হবে।

মানুষের জীবন ও সম্পত্তিকে ঘিরে যে ঝুঁকি অনিশ্চয়তা বিদ্যমান তার বিপক্ষে আর্থিক প্রতিরক্ষা ব্যবস্থায় হলো বীমা। বীমা ঝুঁকিগত প্রতিবন্ধকতা দূর করে। এ জন্য বীমাগ্রহীতা নির্দিষ্ট প্রিমিয়ামের বিনিময়ে এসব ক্ষতির বিপক্ষে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণে বীমাকারীর সঙ্গে চুক্তি করে। ফলে বীমাগ্রহীতা ক্ষতিগ্রস্ত হলে বীমাকারী ক্ষতিপূরণ প্রদান করে।

উদ্দীপকে বিমল সাহেব শাপলা পাওয়ার ব্যাংকের স্বত্বাধিকারী। তাঁর প্রতিষ্ঠানে উৎপাদিত পণ্যের ডিজাইন ও গুণগতমানের জন্য বাজারে পণ্যটির চাহিদা অনেক বেশি। এ ছাড়া তাঁর নাম ও মার্কা নিবন্ধিত হওয়ায় ব্যবসায়ের ক্ষেত্রে তিনি অনেক বেশি সুবিধা ভোগ করেন। সম্প্রতি পণ্যের গুদামে আগুন লেগে ক্ষতিগ্রস্ত হলেও ক্ষতিপূরণ পাওয়ার ব্যবস্থা থাকায় তিনি চিন্তিত নন।

ব্যবসায়ের সঙ্গে ঝুঁকি ওতপ্রোতভাবে জড়িত। ব্যাবসায়িক কার্যসম্পাদনের সঙ্গে জড়িত চাহিদা হ্রাস, অগ্নিকাণ্ড, পণ্য পচন, মূল্য হ্রাস, দুর্ঘটনা, চুরি, ডাকাতি প্রভৃতি কারণে প্রচুর আর্থিক ক্ষতি হতে পারে। এসব ক্ষতির বিপক্ষে প্রতিরক্ষামূলক ব্যবস্থা হচ্ছে বীমা। উদ্দীপকের বিমল সাহেব তাঁর প্রতিষ্ঠানের বীমা করে নেন। এ জন্য তাঁর গুদামে আগুন লাগা সত্ত্বেও তিনি চিন্তিত নন। কারণ তিনি জানেন যে পরিমাণ ক্ষতি তাঁর হয়েছে তার জন্য ক্ষতিপূরণ তিনি পাবেন। তাই বলা যায়, ক্ষতিপূরণের জন্য গৃহীত বীমাব্যবস্থা প্রতিষ্ঠানের জন্য কার্যকর হবে।

 

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা